কৈলাস বিজয়বর্গীয়র ‘হরি বোল’, এক গুচ্ছ প্রতিশ্রুতি

0

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, জয়নগর: রাজ্য সরকার বাংলার মানুষকে কেন্দ্রীয় সরকারি প্রকল্প থেকে বঞ্চিত করে রেখেছে বলে জোরালো অভিযোগ করলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya)।

এ দিন মঙ্গলবার দুপুরে জয়নগর থানার বহড়ু হাইস্কুলের মাঠে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে কীর্তন শিল্পীরা স্বাগত জানান বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাকে। কীর্তনও করেন তিনি। ‘হরি বোল’-এ মেতে ওঠেন কৈলাস।

ভিড়ে ঠাসা সভায় দর্শকদের সামনে বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, “রাজ্য সরকারের অহংকারে আজ পশ্চিমবঙ্গের মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত। মমতার সরকারের জন্য আজ বাংলার কৃষক, লোকশিল্পী থেকে শুরু করে উম্পুনে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ দুর্দাশায় ভুগছে। রাজ্য সরকারের অসহযোগিতায় বাংলার লোক শিল্পীরা আজ পেনশন থেকে বঞ্চিত। মোদী সরকার তবুও ১২০০ জন বয়স্ক শিল্পীকে পেনশনের ব্যবস্থা করেছে। রাজ্য আমরা ক্ষমতায় এলে সব বয়স্ক শিল্পীরা এই পেনশন পাবেন। কেন্দ্রকে মমতার সরকার কোনো কৃষকের তালিকা দিচ্ছে না। ১০ হাজার কোটি টাকা পড়ে রয়েছে। তালিকা পেলেই তাদের কাছে টাকা পৌঁছে যাবে”।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা শিল্পী সংসদ আয়োজিত এক শিল্পী সমাবেশের অনুষ্ঠানে এসে তিনি রাজ্য সরকারের সমালোচনা করে বলেন, “মোদী সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পগুলো নিজেদের নাম করে চালিয়ে দিচ্ছে মমতার সরকার। উম্পুৱে এক হাজার কোটি টাকা কেন্দ্র দিয়েছে এখনো রাজ্য সরকার তার হিসাব দিতে পারেনি। সারা দেশের মধ্যে সব থেকে বেশি নারীদের প্রতি অত্যাচার, ধর্ষণের মতন ঘটনা ঘটছে পশ্চিমবঙ্গে। এখনও সময় আছে, আমাদের একবার রাজ্যে আনুন”।

এ দিন এই সমাবেশে বাউল, ঝুমুর, লোকনৃত্য, গাজন,পল্লিগীতি,ঢোল, কীর্তন-সহ বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এ দিনের অনুষ্ঠানে কৈলাস ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সংসদের সর্বভারতীয় সম্পাদক ও সাংসদ সিদ্ধার্থশেখর নস্কর, ডা. অশোক কান্ডারি, সুকদেব প্রামানিক-সহ আরও অনেকে।

আরও পড়তে পারেন: খেজুরি থেকে ‘এক সঙ্গে ভালো থাকা’র বার্তা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন