Connect with us

দঃ ২৪ পরগনা

উম্পুনের এক সপ্তাহ পার, সুন্দরবনে এখনও পানীয় জলের জন্য হাহাকার

Published

on

খবর অনলাইনডেস্ক: ‘ওয়াটার ওয়াটার এভরিহোয়্যার, নর এনি ড্রপ টু ড্রিংক।’ স্যামুয়েল টেলর কোলরিজের কবিতা, ‘রাইম অব দা এনসিয়েন্ট মেরিনার’-এর সেই বিখ্যাত দু’টি লাইনের কথাই যেন মনে করিয়ে দিচ্ছে সুন্দরবনের বর্তমান পরিস্থিতি।

চারিদিকে শুধু জল আর জল। অথচ জলের জন্য হাহাকার। এক ফোঁটা পানীয় জল নেই। পানীয় জলের পরিষেবা স্বাভাবিক করার চেষ্টা হলেও, বাস্তবে পরিস্থিতি অসম্ভব খারাপ। ঘূর্ণিঝড় উম্পুনের (Cyclone Amphan) এক সপ্তাহ হয়ে গেলেও সুন্দরবনের গ্রামে গ্রামে পানীয় জলের সমস্যা এখনও মেটেনি।

Loading videos...

বিশ্বের বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বদ্বীপ (Mangrove Delta) সুন্দরবন বিস্তৃত উত্তর আর দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলা জুড়ে। প্রায় ৪৫ লক্ষ মানুষের বাস এই অঞ্চলে।

সুন্দরবনের গ্রামগুলিতে যে পাইপলাইনে পানীয় জল সরবরাহ হয়, ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে তা ক্ষতিগ্রস্ত। এ ছাড়া সামুদ্রিক জলোচ্ছ্বাসের কারণে বাঁধ ভেঙেছে। গ্রামে গ্রামে যে মিষ্টি জলের পুকুরগুলো রয়েছে সেগুলিও নোনা জলে প্লাবিত। এ ছাড়া শয়ে শয়ে টিউবওয়েল এখনও জলের তলাতেই রয়েছে।

গোসাবার (Gosaba) রাঙাবেলিয়া গ্রামের বাসিন্দা বছর ৩৬-এর স্বপ্না সর্দার বলেন, “এখান থেকে আধ ঘণ্টা হাঁটলে যে টিউবওয়েলটা রয়েছে ওটাই এখন আমাদের একমাত্র ভরসা। আধ ঘণ্টা হেঁটে যাওয়ার পর সেখানে ৫০ মিনিট থেকে এক ঘণ্টা লাইন দিই। তার পর একটি বালতি আর একটি মাটির কলসি ভরতি করার সুযোগ হয় আমার।”

দক্ষিণ ২৪ পরগণার গোসাবা, নামখানা, পাথরপ্রতিমা, কুলতলি, কাকদ্বীপ ব্লক আর উত্তর ২৪ পরগণার মিনাখাঁ, সন্দেশখালি, হিঙ্গলগঞ্জ আর হাসনাবাদ ব্লকের হাজার হাজার গ্রাম এখন পুরোপুরি বিধ্বস্ত।

পানীয় জলের যে সমস্যা রয়েছে সেটা মেনে নিয়েছেন সুন্দরবন উন্নয়ন মন্ত্রী মন্টুরাম পাখিরা। তিনি বলেন, “প্রায় ১৬ কিলোমিটার দীর্ঘ বাঁধ ভেঙে গিয়েছে। এর ফলে নোনা জল গ্রামে গ্রামে ঢুকে পুকুর আর টিউবওয়েগুলোকে ভাসিয়ে দিয়েছে। আমরা পানীয় জলের পাউচ সরবরাহ করছি দুর্গতদের।

স্থানীয়দের অবশ্য দাবি, বহু বছর ধরেই গ্রামের টিউবওয়েলগুলি অকেজো হয়ে পড়ে রয়েছে। ২০০৯-এর আয়লার পর বেশ কিছু টিউবওয়েল খারাপ হয়ে গিয়েছিল। সেগুলি ঠিক করা হয়নি। এর পর গত বছর ঘূর্ণিঝড় বুলবুলেও (Cyclone Bulbul) আরও অসংখ্য টিউবওয়েল অকেজো হয়ে পড়ে।

কাকদ্বীপের গোবিন্দপুর গ্রামের অন্তরা মাহাত বলেন, “আমাদের গ্রামে তিনটে টিউবওয়েল ছিল। এর মধ্যে এখন মাত্র একটা কাজ করে। স্থানীয় বিধায়কের কাছে বারবার আবেদন করেও কোনো লাভ হয়নি।”

নোনা জল ঢুকে মিষ্টি জলের পুকুরগুলোয় এমন অবস্থা হয়েছে তাতে সেগুলি পুরো পরিষ্কার করতে হবে। এর পর শোধন করে আবার পুনরায় জল ভরতি করা যাবে সেখানে। সেটা করতে যে কত সময় লাগবে, তা কার্যত ভাবনারও বাইরে।

গোসাবার বিডিও এস মিত্র বলেন, “বর্ষার আগেই সোডিয়াম আর পোটাশিয়াম পার্মানগানেট দিয়ে পুকুরগুলোকে শোধন করতে হবে। প্লাবিত গ্রামগুলি থেকে জল বের করার জন্য অসংখ্য পাম্প বসানো হয়েছে।”

তবে সুন্দরবনের বাকি সব দ্বীপের থেকে মাত্র একটা দ্বীপের পরিস্থিতি এক্কেবারেই আলাদা। সেটা সাগরদ্বীপ (Sagardwip)। প্রতি বছর গঙ্গাসাগর মেলার জন্য লাখো ভক্তের সমাগম হয় এখানে। ফলে এই সাগরদ্বীপ এমনিতেই পরিকাঠামোগত ভাবে অনেকটাই এগিয়ে অন্যদের থেকে।

সাগরের বিডিও সুদীপ্ত মণ্ডল বলেন, “গঙ্গাসাগর মেলার সময়ে পুণ্যার্থীদের জন্য পানীয় জলের ব্যবস্থা করতেই হয়। যে সব যন্ত্রের সাহায্যে পানীয় জলের পরিষেবা দেওয়া হয়, সেগুলি সাগরদ্বীপেই থাকে। পাশাপাশি প্রচুর সংখ্যক পানীয় জলের ট্যাংকারও সাগরদ্বীপে রয়েছে। ফলে আমাদের অবস্থা অনেকটাই ভালো।”

শুধু কি পানীয় জলের সমস্যা? নোনা জল মিষ্টি জলের সঙ্গে মিশে যাওয়ার ফলে রুই, কাতলা, পাঙ্গাসজাতীয় মাছের মৃত্যু হয়েছে। উম্পুনের দু’দিন পর মরা মাছ ভাসতে দেখেন গোবিন্দপুরের বাসিন্দারা। সেগুলিকে জল থেকে তুলে আলাদা জায়গায় ফেলে দিতে হয়।

এ দিকে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয়েছে যে সুন্দরবনে পানীয় জল পরিষেবার ৭০ শতাংশই স্বাভাবিক করা হয়েছে। দক্ষিণ ২৪ পরগণার জেলাশাসক পি উলগানাথন বলেন, “সুন্দরবনের প্রত্যন্ত গ্রামে আমরা জলের পাউচ পাঠাচ্ছি। সেগুলি সাধারণ মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে। নৌকায় জলের ট্যাংকারও পাঠানো হচ্ছে। ৭০ শতাংশ পরিষেবা স্বাভাবিক করা হয়েছে। কিন্তু এখন সমস্যা হচ্ছে বিদ্যুৎ সরবরাহ। বিদ্যুৎ পরিষেবা স্বাভাবিক হলে বাকি সমস্যাও মিটে যাবে।”

তবে সব কিছু স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে আরও কত দিন সময় লাগবে, সে ব্যাপারে সঠিক করে কিছু বলতে পারেননি জেলাশাসক।

দঃ ২৪ পরগনা

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় সুন্দরবনের কাঁকড়া চাষিরা দিশেহারা

আগেই মুখ ফিরিয়েছে চিন-সহ অন্য়ান্য দেশ। এখন জলের দরে বেচতে হচ্ছে…

Published

on

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সুন্দরবন: করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কায় এ বারে কপালে হাত পড়েছে সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলের কাঁকড়া চাষিদের। করোনার এই প্রকোপ মহামারির আকার নিতেই চিন কাঁকড়া আমদানি বন্ধ করে দিয়েছিল। ফলে সুন্দরবনের আটটি ব্লকের চাষিরা এখন পড়েছেন চরম সমস্যায়।

রফতানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় চাষিদের পাশাপাশি সমস্যায় পড়েছেন খুচরো ও পাইকারি কাঁকড়া ব্যবসায়ীরাও। কাকদ্বীপের শ্যামল গুছাইত, নিমাই মাল-সহ কয়েকজন কাঁকড়া চাষি বলেন, “মরশুমের শুরুতে বিভিন্ন ফিসারিতে সামুদ্রিক কাঁকড়া চাষ ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে। সেগুলি রফতানি না হওয়ায় কী হবে বুঝতে পারছি না”।

Loading videos...

এমনকি আদিবাসী পরিবারগুলিও জঙ্গলে কাঁকড়া সংগ্রহ করতে যেতে পারছে না। যেটুকু সংগ্রহ হচ্ছে, রফতানি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তা স্থানীয় বাজারেই বিক্রি করতে হচ্ছে তাদের। ফলে ঠিকঠাক দাম না পাওয়ায় ক্ষতির মুখে পড়ছেন ব্যবসায়ীরা। কুলতলির মেরিগঞ্জের খাদিজা, সালমা,পারভিনা,খুশবু কিংবা মৈপীঠের সোনালি, রুমাইয়া,কাজল-সহ স্থানীয় কয়েকজন জানালেন, কাঁকড়ার বিক্রি এ ভাবে মার খেলে তাঁদের অন্ন সংস্থান আটকে পড়েছে। কী হবে বুঝতে পারছেন না।

কুলতলির কাঁটামারি বাজারের কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, জেলার সবচেয়ে বেশি কাঁকড়া চাষ হয় পাথর প্রতিমা ব্লকে। এ ছাড়া কুলতলি, নামখানা, কাকদ্বীপ, গোসাবা-সহ সুন্দরবনের আটটি ব্লকে এর চাষ করা হয়। পাথরপ্রতিমা ব্লকের ১৫টি গ্রাম পঞ্চায়েতের মধ্যে বেশির ভাগই নদী প্রধান। কে প্লট, এল প্লট, পাথরপ্রতিমা, জি প্লট, সীতারামপুর, বরদাপুর, ভাগবতপুর, লক্ষ্মীপুর, অচিন্ত্যনগর এলাকায় চাষ হয় কাঁকড়া।

সুন্দরবনের নদীর ধারের বাসিন্দারাই জঙ্গলে পাড়ি দেয় কাঁকড়া ধরতে। সমুদ্র কাঁকড়ার ব্যবসার মরশুম ডিসেম্বর থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত। কিন্তু ওই সময় থেকেই করোনার দ্বিতীয় প্রকোপ দেখা দিতে থাকে। ফলে চিন কাঁকড়া আমদানী বন্ধ করে দেয়। চিনের বাজারে কাঁকড়ার দাম থাকলেও ছোটো, মাঝারি, বড় প্রকার সমুদ্র কাঁকড়া যাচ্ছে না সেখানে। ফলে যে কাঁকড়া ইতিমধ্যেই উৎপাদন হয়েছে সেগুলোই বিক্রি হচ্ছে স্থানীয় বাজারে। যে কাঁকড়ার পাইকারি বাজারদর ১৬০০ থেকে ১৮০০ টাকা। তা এখন ৬০০ টাকাতেও বিক্রি হচ্ছে না। আবার যে কাঁকড়া ৬০০ থেকে ৭০০ টাকায় কিলো প্রতি পাইকারি দরে বিক্রি হওয়ার কথা, সেই কাঁকড়া এখন মাত্র কিলো প্রতি ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

সব মিলিয়ে এই সুন্দরবনের অর্থনীতিতে গতবারের থেকেও খারাপ প্রভাব পড়েছে এই করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে। গত বারের ধাক্কা সামলে ওঠার মাঝেই আবার এ বারের ধাক্কায় বিপুল লোকসানের বোঝা কী ভাবে সামলাবেন? এই চিন্তায় রাতের ঘুম উড়েছে সুন্দরবনের প্রত্যন্ত অঞ্চলের কাঁকড়া চাষি ও ব্যবসায়ীদের।

আরও পড়তে পারেন: দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিস্তৃত পর্যালোচনা বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী, সব থেকে খারাপ অবস্থা ১২টি রাজ্যে

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

বিধায়ক নির্বাচিত হয়েই কোভিড মোকাবিলায় তৎপর অভিনেত্রী লাভলি মৈত্র

রাজপুর সোনারপুর পুরসভার পুরপ্রশাসকের সঙ্গে আলোচনা করে নিলেন একাধিক পরিকল্পনা!

Published

on

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সোনারপুর: জীবনে প্রথম বার বিধায়ক নির্বাচিত হয়েই এ বার কোভিড মোকাবিলার কাজে নেমে পড়লেন সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেসের নবনির্বাচিত প্রার্থী অভিনেত্রী লাভলি মৈত্র।

তিনি কোভিড মোকাবিলায় রাজপুর সোনারপুর পুরসভার পুরপ্রশাসক পল্লব দাস-সহ অন্যান্য দলীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করেন। প্রাথমিক ভাবে ঠিক করা হয়েছে, সোনারপুর দক্ষিণ বিধানসভা এলাকায় কোভিড মোকাবিলায় সেফ হোম তৈরি করা হবে। এর জন্য চারটি জায়গা তাঁরা পরিদর্শন করেছেন।

Loading videos...

বিষয়টি জানানো হয়েছে স্বাস্থ্য দফতরকেও। তারা আগামী দু’-এক দিনের মধ্যে এসে এর পরিকাঠামো ঘুরে দেখবে। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী সেফ হোম তৈরির কাজ শুরু হবে।

এ ছাড়া সাধারণ মানুষকে সাহায্যের জন্য ও অক্সিজেন সরবরাহ করার জন্য বিধায়কের পক্ষ থেকে একটি হেল্প লাইন নম্বরও চালু করা হবে। এই বিধানসভা এলাকার প্রত্যেকে যাতে কোভিডের টিকা পান তারও উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

পাশাপাশি করোনা নমুনা পরীক্ষার পরিকাঠামো কী করে বাড়ানো যায় ও বিভিন্ন জায়গায় গিয়ে কোভিড টেস্ট করা যায় সেটিও দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন এই তারকা বিধায়ক। বিধায়কের এই উদ্যোগে খুশি স্থানীয় বাসিন্দারা। সোনারপুরে ইতিমধ্যে কোভিড আক্রান্ত হয়েছেন বহু মানুষ। এই পরিকাঠামো উন্নয়ন হলে তাঁরা উপকৃত হবেন বলে জানিয়েছেন।

আরও পড়তে পারেন: বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে লোকাল ট্রেন বন্ধ, মেট্রো ও সরকারি বাস অর্ধেক, এক গুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Continue Reading

দঃ ২৪ পরগনা

Bengal Polls 2021: ধর্মীয় ফ্যাসিবাদকে পরাস্ত করার জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভূয়সী প্রশংসা কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়ের

রায়দিঘি কেন্দ্রে তৃতীয় স্থানে থেকে শেষ করেছেন কান্তিবাবু।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রায়দিঘিতে ফের একবার শোচনীয় হারের সম্মুখীন হয়েছেন কান্তি গঙ্গোপাধ্যায়। এর পরেও তৃণমূল নেত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হয়েছেন তিনি। তৃণমূল কংগ্রেসের হ্যাটট্রিককে ধর্মীয় ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর লড়াই হিসেবে দেখছেন কান্তিবাবু।

প্রবীণ এই নেতার বক্তব্য, “ধর্মীয় ফ্যাসিবাদকে রুখে দেওয়ার জন্য তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভুমিকা অত্যন্ত প্রশংসনীয়। একুশের নির্বাচনে বাংলার মানুষ ঐতিহাসিক ভূমিকা পালন করেছেন। আমি বাংলার মানুষকে কুর্নিশ জানাই।”

Loading videos...

বামপন্থীদের যা করা উচিত ছিল, সেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করতে পেরেছেন বলেই মনে করেন কান্তিবাবু। তিনি বলেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আমার নীতিগত পার্থক্য রয়েছে। তবে ফ্যাসিবাদকে রোখার জন্য বামপন্থীদের যা করা উচিত ছিল সেটা মমতা করতে পেরেছেন।”

কান্তিবাবুর কথায় পরিষ্কার, বিজেপিকেই এখন প্রধান শত্রু ভাবা উচিত সবার। তিনি বলেন, “যেটুকু জায়গায় গেরুয়া শিবিরের শিকড় ছড়িয়েছে, তা অবিলম্বে উপড়ে ফেলতে হবে। আগামী দিনে পুরসভা এবং পঞ্চায়েত ভোট রয়েছে। সেখানেও তাদের হারাতে হবে।”

আরও পড়তে পারেন Oath Ceremony: তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
modi rahul pakistan poster boy
দেশ13 seconds ago

Coronavirus Second Wave: ‘সরকারে ব্যর্থতাকে’ দুষে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিলেন রাহুল গান্ধী

দেশ2 hours ago

Tamil Nadu Oath Ceremony: মন্ত্রীসভায় গান্ধী-নেহরু, মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন এমকে স্ট্যালিন

দেশ2 hours ago

Corona Update: দেশের দৈনিক সংক্রমণে আরও কিছুটা বৃদ্ধি, বাড়ল সুস্থতাও

রাজ্য3 hours ago

Bengal Corona Update: গ্রামাঞ্চলেও দাপট বাড়ছে করোনার, মোকাবিলায় বিশেষ পদক্ষেপ স্বাস্থ্য দফতরের

রাজ্য3 hours ago

Bengal Corona Update: থমকে গিয়েছে নিম্নগামী যাত্রা, পর পর পাঁচ দিন রাজ্যের কোভিডমুক্তির হার ঊর্ধ্বমুখী

west bengal lockdown
দেশ4 hours ago

Coronavirus Second Wave: সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউনের শরণাপন্ন একাধিক রাজ্য, দেখে নিন তালিকা

বিদেশ12 hours ago

বিস্ফোরণে জখম হলেন মলদ্বীপের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট, হাসপাতালে ভরতি

দেশ13 hours ago

মুম্বই বিমানবন্দরে পেটে ভর দিয়ে জরুরি অবতরণ এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের, যাত্রীরা নিরাপদ

yogi adityanath
দেশ3 days ago

UP Panchayat Polls: বারাণসী, অযোধ্যা, মথুরায় ধরাশায়ী বিজেপি

ক্রিকেট2 days ago

Corona Crisis In IPL: জৈব বলয় ভেদ করে কী ভাবে ঢুকল করোনা, উঠে এল একাধিক কারণ

শিক্ষা ও কেরিয়ার3 days ago

JEE Main 2021: মে মাসের জয়েন্ট এন্ট্রাস (মেইন‌) ২০২১ পরীক্ষা স্থগিত, জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

রাজ্য2 days ago

Oath Ceremony: তৃতীয় বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

রাজ্য3 days ago

Bengal Corona Update: ঊর্ধ্বমুখী দৈনিক সংক্রমণ, তাল মিলিয়ে বাড়ছে সুস্থতাও

election commission of india
রাজ্য3 days ago

নন্দীগ্রামের সেই রিটার্নিং অফিসারের বাড়তি নিরাপত্তা

রাজ্য2 days ago

কমিশনের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে পুনর্গণনার দাবিতে আদালতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি শুভেন্দু অধিকারীর

রাজ্য2 days ago

বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যে লোকাল ট্রেন বন্ধ, মেট্রো ও সরকারি বাস অর্ধেক, এক গুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

ভিডিও

কেনাকাটা

কেনাকাটা2 months ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা3 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা4 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা4 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা4 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা4 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা4 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে