সামুদ্রিক জলোচ্ছ্বাসে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে ‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’, সঙ্গে একঝাঁক টলি তারকা

0

নিজস্ব প্রতিনিধি: কোভিডের দ্বিতীয় ঢেউয়ের আতঙ্কের মধ্যেই ঘূর্ণিঝড় ‘ইয়াস’-এর আবির্ভাব। ভরা পূর্ণিমায় ঘুর্ণিঝড়ের প্রভাবে দেখা দিল জলোচ্ছ্বাস। বাংলার উপকূলবর্তী এলাকা ব্যাপক ভাবে বিভিন্ন ক্ষতিগ্রস্ত। বাঁধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা জলমগ্ন। নোনা জল ঢুকে গেছে চাষের জমিতে।

ও দিকে সামুদ্রিক জলোচ্ছ্বাসে পাকা বাড়িরও ক্ষতি হয়েছে প্রচুর। পূর্ব মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণা জেলার বহু অঞ্চলে এখন বেসামাল অবস্থা। একেবারে লণ্ডভণ্ড সব কিছু। এই পরিস্থিতিতে এগিয়ে এলেন দমদমের ‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’-র তরুণ ছেলেমেয়েরা। তাঁদের সঙ্গে রয়েছেন টলিপাড়ার বেশ কিছু অভিনেতা।

Loading videos...

চাঁদপুর-শঙ্করপুর থেকে বকখালি

কথা হল ‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’-র সভাপতি তনয় দাসের সঙ্গে। তিনি জানান, প্রথমে তাঁরা চাঁদপুর ও শঙ্করপুর অঞ্চলে গিয়েছিলেন। সেখানে তাঁরা প্রায় ২৫০ জন মানুষের হাতে তুলে দেন প্রয়োজনীয় জিনিস – মুড়ি, বাতাসা, চানাচুর, বিস্কুট, হরলিক্স, দুধের পাউডার, ওষুধ আর জল ইত্যাদি। পরের দিন তাঁরা পৌঁছে গেলেন দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার বকখালিতে। সেখানেও বহু মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়েছেন খাবার ও কিছু ব্যবহার্য জিনিস।

তনয় আরও জানান, এই বিশাল কর্মকাণ্ডে তাঁকে সাহায্য করেছেন ‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’-র কৃশাণু, দেবেশ, কৌশিক, রাজদীপ, কৃতিশমিতা, বিশ্বজিৎ, সোহিনী, সৌভিক-সহ আরও অনেক সদস্য।

বিভিন্ন অঞ্চলের ভয়াবহ পরিস্থিতি দেখে দমদমের এই এনজিও আরও অন্যান্য এলাকায় পৌঁছোনোর চেষ্টা করছে। কথায় কথায় জানা গেল এ বার তাঁদের গন্তব্য সুন্দরবন। তবে শুধু তাঁরাই নন, এগিয়ে এসেছেন টলিজগতের এক ঝাঁক তারকাও। ছিলেন স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘মহাপীঠ তারাপীঠ’-এর একাধিক অভিনেতা। অভিনেতা সব্যসাচী চৌধুরী (বামদেব), দিগন্ত সাহা (গদাই), বাপী দাস (হরিহর পাণ্ডা) ও রুপম সিং (লগেন কাকা)। এ ছাড়াও রয়েছেন অভিনেতা সাগ্নিক কোলে।

আরও পড়ুন: Covid Crisis: মানুষকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে তরুণ প্রজন্মের তৈরি ‘রেড ফ্ল্যাশ কলকাতা’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.