উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়,বারুইপুর: এ বার ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে ফেরাতে পোস্টার মারলেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা।

পড়ুয়াদের স্কুলে ফেরাতে অনেক স্কুলেই নেওয়া হচ্ছে একাধিক উদ্যোগ। ব্যতিক্রম নয় বারুইপুরের বেগমপুর জ্ঞানদাপ্রসাদ ইনস্টিউশন। অভিভাবকদের স্কুলে ডেকে বোঝানো হয়েছিল। গ্রামে টোটোয় মাইকিং করে প্রচারও করা হয়েছিল। তাতেও সে ভাবে ছাত্র-ছাত্রীরা হাজির হয়নি স্কুলে। তাই শনিবার দুপুরেই শিক্ষক-শিক্ষিকারা বেরিয়ে পড়লেন নিজেরাই পোস্টার মারতে। উদ্দেশ্য, সামনে পরীক্ষা আসছে, ছাত্র ছাত্রীদের পরীক্ষায় বসার আহ্বান জানাতে।

প্রধান শিক্ষক শক্তিপদ মাইতির নির্দেশে বেশ কয়েকটি বাইক নিয়ে শিক্ষক- শিক্ষিকারা গেলেন কাটাখাল বাজারে। বাইক দাঁড় করিয়ে রাস্তায় আসা অভিভাবকদের সঙ্গে কথাও বললেন তাঁরা। দোকানের দেওয়ালে পোস্টারও মারলেন। পোস্টার মারা হল স্কুলের গেটেও। তাতে স্কুলের প্যাডে বড়ো করে লেখা- স্কুলে পঠনপাঠন নিয়মিত চলছে, ছাত্র-ছাত্রীরা যেন পরীক্ষা দিতে আসে স্কুলে।
কাটাখালের বাসিন্দা তাপস ঘোষ বলেন, “দু’বছর ধরে স্কুল বন্ধ থাকায় ছেলে কলকাতায় দিন মজুরের কাজ করছে। কিন্তু ওকে আবার স্কুলে পাঠাব”।

শিক্ষক-শিক্ষিকাদের এই পোস্টার মারা দেখে অনেকেই সাধুবাদ জানালেন তাঁদের এই প্রয়াসকে। এ ব্যাপারে প্রধান শিক্ষক শক্তিপদ মাইতি বলেন,  “সোমবারই টেস্ট পরীক্ষা। কিন্তু দশম, দ্বাদশ, শ্রেণিতে ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যা খুবই কম। তাই অভিভাবকদের ডেকেছিলাম। অনেকে এসেছেন, আবার অনেকে আসেননি। টোটোয় করে প্রচারও হয়েছে। দেখা গিয়েছে, তাঁদের অনেকে মেয়ের বিয়ে দিয়ে দিয়েছেন, আবার অনেকে ভিন্ন পেশায় চলে গিয়েছে। তবে আমরা এ বার আশাবাদী”।

স্কুলের আশা, এই পোস্টার মারা দেখেই পরীক্ষা দিতে স্কুলে আসবে ছাত্র-ছাত্রীরা। এখন দেখা যাক শিক্ষক-শিক্ষিকারা পড়ুয়াদে স্কুলে ফেরাতে কতখানি সফল হন।

আরও পড়তে পারেন:

গোয়ায় গৃহলক্ষ্মী কার্ডের প্রতিশ্রুতি তৃণমূলের, প্রত্যেক গৃহকর্ত্রীকে মাসে ৫ হাজার টাকা

ওমিক্রন সংক্রামিত সন্দেহে বেলেঘাটা আইডি-তে ভরতি বারাসতের বাসিন্দা

আর অপেক্ষা নয়! হাওড়া পুরসভা সংশোধনী বিল রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানোর হুঁশিয়ারি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখরের

দুবাই থেকে চুরি হয়েছিল দিয়েগো মারাদোনার বহুমূল্যের ঘড়ি, চার মাস পর উদ্ধার অসমে

স্ত্রীর অজান্তে তাঁর কল রেকর্ড করা গোপনীয়তার অধিকার লঙ্ঘন, তাৎপর্যপূর্ণ সিদ্ধান্ত হাইকোর্টের

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন