সুন্দরবনের জঙ্গল লাগোয়া গ্রামীণ এলাকায় বাঘের আনাগোনা আটকাতে পাকাপোক্ত বেড়ার পরিকল্পনা

0
প্রতীকী ছবি

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, সুন্দরবন: সুন্দরবনের লোকালয়ে হামেশাই বাঘ ঢুকে পড়ছে। আর তাতে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন সুন্দরবনের জঙ্গল লাগোয়া এলাকার মানুষ। তাই এ বার সুন্দরবন বনাঞ্চল লাগোয়া গ্রামে বাঘের প্রবেশ রুখতে উদ্যোগী বন দফতর।

জঙ্গল লাগোয়া গ্রামগুলিকে বাঘের আনাগোনা আটকাতে স্থায়ী বে়ড়া দেওয়ার ভাবনাচিন্তা শুরু করেছে বন দফতর। যদিও সুন্দরবন জৈব সংরক্ষণ অঞ্চলের অর্ন্তগত দু’টি ক্ষেত্র রয়েছে। প্রথমটি সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্প, দ্বিতীয়টি দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভাগীয় বনাঞ্চল। দু’টি ক্ষেত্রের মধ্যে দক্ষিণ ২৪ পরগনা বিভাগে প্রায় ১১০ কিলোমিটার গ্রাম লাগোয়া জঙ্গল রয়েছে। যার মধ্যে ৫০ কিলোমিটার জালের বেড়া দেওয়া রয়েছে। আর ব্যাঘ্র প্রকল্পে প্রায় ১০৫ কিলোমিটার বন লাগোয়া এলাকা রয়েছে। সেখানে আবার পুরোটাই জালের বেড়া দেওয়া।

প্রায়শই প্রাকৃতিক দুর্যোগে সেই জালের বেড়া ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আর সেই সুযোগে বার বার লোকালয়ে এসে পড়ে বাঘ। এ বারে সেই সমস্যা দূর করতে চান রাজ্যের বনমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্প ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভাগীয় বনাঞ্চলে দিতে চান স্থায়ী ও পাকাপোক্ত বেড়া।

রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার যাতে কোনো ভাবেই ভাঙা বেড়ার সুযোগে লোকালয়ে প্রবেশ না করতে পারে, সে বিষয়ে মন্ত্রীর ভাবনায় একটি প্রস্তাব ও তৈরি করেছে বন দফতর। সেই প্রস্তাব কার্যকর করতে বিপুল অর্থের প্রয়োজন। তাই বিকল্প পথ হিসাবে জাপানি সংস্থা ‘জাপান ইন্টার ন্যাশনাল কোঅপারেটিভ এজেন্সি’(জাইকা)-কে সেই প্রস্তাবটি পাঠিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ বন দফতর।
বন দফতর সূত্রে খবর, ৪৭৮ কোটি টাকা খরচ হবে এই স্থায়ী বেড়া দিতে। বনের আইন মেনে বেড়া দেওয়ার কাজে কোনও কংক্রিটের নির্মাণ করা হবে না বলে জানিয়েছে বন দফতর।

Shyamsundar

এ ব্যাপারে সুন্দরবন ব্যাঘ্র প্রকল্পের ক্ষেত্র অধিকর্তা তাপস দাস বলেন, “আমাদের এলাকায় ১০৫ কিলোমিটার গ্রাম লাগোয়া জঙ্গল রয়েছে। পুরোটাই বাঁশের খুঁটি ও নাইলনের জালে ঘেরা। মাঝে মাঝে প্রাকৃতিক দুর্যোগে তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়”।

কুলতলির দেউলবাড়ি এলাকার কয়েক জন বাসিন্দা বলেন, “আমাদের বাড়ির কাছে প্রায় দিন জঙ্গল থেকে বাঘ চলে আসে। হুংকার দেয়। আমরা খুব ভয়ে ভয়ে থাকি। তাই পাকাপোক্ত বেড়া দিলে খুব ভালো হবে আমাদের। জঙ্গলের রাজা জঙ্গলে থাকুক। লোকালয়ে চলে এলে আমরা যাব কোথায়”।

আজকের উল্লেখযোগ্য আরও কিছু খবর পড়তে পারেন এখানে:

৩ কেন্দ্রে ভোটের দিন ছুটি, বেসরকারি কর্মীরাও সবেতন ছুটি পাবেন: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

‘কোভিডে কোনো দেশ যা করতে পারেনি, ভারত তা করেছে’, কেন্দ্রের প্রশংসায় সুপ্রিম কোর্ট

পাড়ার ভিতর পানশালা, বাড়ির জানলা দিয়ে দেখা যাচ্ছে কাণ্ডকারখানা, বন্ধের দাবিতে স্থানীয়দের বিক্ষোভ শিলিগুড়িতে

শুধুমাত্র ভবানীপুরেই কেন উপনির্বাচন, প্রশ্ন তুলে কমিশনের হলফনামা চাইল হাইকোর্ট

কোভিডের পরে স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যা কী ভাবে মোকাবিলা করতে হবে, নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্র

পেগাসাস কেলেঙ্কারির তদন্তে বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করবে সুপ্রিম কোর্ট, আগামী সপ্তাহে রায় ঘোষণার সম্ভাবনা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন