সাপে কাটতেই ওঝার শরণাপন্ন, শেষমেশ পুলিশের উদ্যোগে হাসপাতালে গিয়ে প্রাণ বাঁচল যুবকের

0
কালাচ সাপে কামড়ায় এক বছর তিরিশের যুবককে। প্রতীকী ছবি

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: চিকিৎসকের চেষ্টায় এ যাত্রায় বেঁচে গেলেন এক সাপে কাটা যুবক। যদিও সাপে কাটার পর তাঁকে নিয়ে ওঝার শরণাপন্ন হয়েছিলেন তাঁর পরিবার।

স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার সকালে বাড়ির কাছে জমিতে কাজ করতে গিয়ে সাপের কামড় খান জাকির মোল্লা (৩০) নামে এক যুবক। ঘটনাটি ঘটেছে জয়নগর বিধানসভার বকুলতলা থানার বেলে দুর্গানগর গ্রাম পঞ্চায়েতের পূর্ব রঘুনাথপুর এলাকায়। বাড়ির লোকেরা তৎক্ষণাৎ চিকিৎসকের কাছে না গিয়ে এক ওঝার শরণাপন্ন হন।

কাজ হয়নি ঝাড়ফুঁকে

ওঝা ওই সাপে কাটা যুবককে নিয়ে ঝাড়ফুঁক করেও কিছু করতে না পারায় গ্রামবাসীদের উদ্যোগে কুলতলি ব্লক হাসপাতালে ভরতি করানো হয় ওই যুবককে। কিন্তু সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় কুলতলি থানার এসআই সুখময় দাসের মাধ্যমে ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এই হাসপাতালে সাপে কাটা রোগীদের জন্য বিশেষ চিকিৎসা ব্যবস্থা আছে। বুধবার সন্ধ্যায় এই হাসপাতালের চিকিৎসক ও সর্প বিশেষজ্ঞ সমরেন্দ্রনাথ রায় বলেন, ওই যুবককে কালাচ সাপ কামড়েছিল। তবে এখন উনি ভালো আছেন। পুরোপুরি বিপদমুক্ত। ওঝার ভরসায় এই রোগীকে আরও কিছুটা সময় ফেলে রাখলে বাঁচানো কঠিন হয়ে যেত।

Shyamsundar

সচেতনতার অভাব

সাপে কামড়ালে যত দ্রুত সম্ভব চিকিৎসক বা হাসপাতালে যাওয়া নিয়ে এখনও পর্যন্ত অনীহা রয়েছে একাংশের মধ্যে। প্রথমেই তাঁরা দৌড়োন ওঝার কাছে। এর মূল কারণ সচেতনতার অভাব। এমন ঘটনায় প্রাণহানি পর্যন্ত ঘটার উদাহরণ রয়েছে।

এ বিষয়ে বিজ্ঞানকর্মী সন্তোষ সেন বলেন, “সাপে কামড়ালে ওঝার কাছে কোনো চিকিৎসাই নেই। যখন কোনো বিষহীন সাপে কাটে, তখন হয়তো কিছু বুজরুকি করে সারানোর ভান করে মাত্র। কিন্তু বিষধর সাপে কাটলে কোনো কিছুই করার থাকে না ওঝার। ফলে ওঝার কাছে যাওয়ার কোনো প্রশ্নই ওঠে না”।

তবে প্রশাসনের তরফে এ বিষয়ে প্রচারের দরকার রয়েছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, “গ্রামে-গঞ্জে এ ব্যাপারে আরও প্রচারের প্রয়োজন রয়েছে। সচেতনতা, শিক্ষার অভাবে এখনও অনেকে ওঝার কাছে ছুটে যান। ক’দিন আগেও সাপে কাটা এক জনকে ভেলায় ভাসিয়ে দেওয়ার ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছিল। এক বিংশ শতাব্দীতে এটা বেমানান। সাপে কাটলে বাঁচানোর এক মাত্র চিকিৎসা অ্যান্টি-ভেনাম প্রয়োগ। সেটা না করলে দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা ঘটতেই থাকবে। এই ঘটনার ক্ষেত্রে গ্রামবাসী এবং কুলতলি থানার এসআই যে উদ্যোগ নিয়েছেন, তা সাধুবাদ যোগ্য”।

আরও পড়তে পারেন: কাকভোরে বেসরকারি বাস থেকে ১৫টি কচ্ছপ সহ ১ যুবককে আটক করল বৈঠকুণ্ঠপুর বনবিভাগ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন