Sunil-Singh
সোমবারের দলবদল

ওয়েবডেস্ক: সোমবার সুনীল সিং। মঙ্গলবার কে?

রবিবার থেকেই জল্পনা ক্রমশ গাঢ় হচ্ছিল উত্তর ২৪ পরগনার নোয়াপাড়ার বিধায়ক সুনীলকে ঘিরে। শোনা যাচ্ছিল, তিনি ‘অফিসিয়ালি’ বিজেপিতে যোগ দিতে চলেছেন খুব শীঘ্রই। গত সোমবারই বিজেপির কেন্দ্র এবং রাজ্য নেতৃত্বের উপস্থিতিতে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন সুনীল। সঙ্গে নিয়ে গিয়েছেন গারুলিয়া পুরসভার ১২ জন কাউন্সিলারকে। যার জেরে কার্যত ভাটপাড়া, হালিশহরের মতো একই হাল হতে চলেছে গারুলিয়া পুরসভারও। তবে সুনীলের দলবদলের রেশ মিটতে না-মিটতেই ফের সংবাদের শিরোনামে উঠে এসেছে রাজ্যের শাসক দলের আরও এক বিধায়কের নাম।

গত রবিবার থেকে জেলার বনগাঁ উত্তর বিধানসভার তৃণমূল বিধায়ক বিশ্বজিত দাসের মোবাইল সুইচ অফ বলে দাবি করছেন তাঁর ঘনিষ্ঠ দলীয় নেতৃত্বরা। তাঁর সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হতে হয়েছে তাঁদের। বর্তমানে কোথায় বিশ্বজিতবাবু?

বিশ্বজিত দাস

[ এই খবরের আপডেট পড়ুন এখানে ক্লিক করে ]

ক’দিন আগেই তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাঁচরাপাড়ার সভায় দেখা গিয়েছিল বিশ্বজিতবাবুকে। জানা গিয়েছে, সেখানে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলাদা ভাবে কথা বলে তিনি বনগাঁ পুরসভার চেয়ারম্যান শংকর আঢ্যকে নিয়ে তৈরি হওয়া জটিলতায় সমাধানের আর্জি জানান। চলতি মাসেই শংকরের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে এসেছেন তৃণমূলের ১৪ জন কাউন্সিলার।

শাসক দলের উচ্চ নেতৃত্ব জানিয়েছেন, গত সোমবারই শংকরকে পদত্যাগের বার্তা পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু গত রবিবার থেকেই প্রায় অদৃশ্য বনগাঁ পুরসভার ১২ জন কাউন্সিলার। জানা গিয়েছে, ওই ১২ জন বিদ্রোহী কাউন্সিলার রবিবার রাত থেকেই দিল্লিতে রয়েছেন। তাঁরা দীর্ঘদিন ধরে পুরসভার চেয়ারম্যানের অপসারণের দাবি তুলে বিফল হওয়ায় তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিলেও অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না বলে জানিয়েছেন তাঁদের ঘনিষ্ঠরা। যদিও স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করেননি। আর বিশ্বজিতবাবু?

সূত্রের খবর, তিনিও বর্তমানে দিল্লিতেই রয়েছেন। খুব সম্ভবত সোমবার সুনীলের পর মঙ্গলবার তিনিও যোগ দিতে পারেন বিজেপিতে!

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here