কলকাতা: শিক্ষক নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার এসএসসি-র প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্য। সোমবার তাঁকে গ্রেফতার করল সিবিআই।

উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সুবীরেশ। বিশ্ববিদ্যালয় এবং তাঁর বাঁশদ্রোণীর বাড়িতে দফায় দফায় অভিযান চালান তদন্তকারীরা। শান্তিপ্রসাদ সিনহা, অশোক সাহা, কল্যাণময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর এ বার তাঁকে গ্রেফতার করল সিবিআই।

এক সময় স্কুল সার্ভিস কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন সুবীরেশ। সেই কারণেই এই দুর্নীতিতে তাঁর ভূমিকা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। কিছু দিন আগেই নিজের কলকাতার ফ্ল্যাটের ছাদে দাঁড়িয়ে সুবীরেশ দাবি করেছিলেন, তাঁর আমলে কোনো নিয়োগ দুর্নীতি হয়নি। পদ্ধতিগত কিছু ত্রুটি থাকতে পারে। তবে ওটুকুই। সোমবার সেই বাঁশদ্রোণীর ফ্ল্যাট থেকেই গ্রেফতার করা হল সুবীরেশকে।

সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, সুবীরেশকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় তাঁর বক্তব্যে অসঙ্গতি পাওয়া গিয়েছে। পাশাপাশি, চাকরি প্রার্থীদের অভিযোগ, সুবীরেশ চেয়ারম্যান পদে থাকাকালীন সুপারিশের ক্ষেত্রে সবথেকে বেশি বেনিয়ম হয়েছে। একটি সূত্রের মতে, একাদশ-দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষক নিয়োগ মামলায় ধৃত শান্তিপ্রসাদকে জেরা করে একাধিক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য মিলেছে। সেই তথ্য নিয়ে এ দিন উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে জেরা করা হয়।

আপাতত এই দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতারির সংখ্যা দাঁড়াল ছয়। নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে নেমে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং তাঁর ঘনিষ্ঠ মডেল-অভিনেত্রী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে গ্রেফতা করে ইডি। তাঁদের বিপুল সম্পত্তির হদিশ মেলে। এর আগে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ তদন্তকারীদের বলেছিলেন তিনি নিজে নিয়োগের বিষয় কিছু জানতেন না। এ ব্যাপারে অধীনস্থ কর্মচারীদের উপর ভরসা করেছিলেন। সুবীরেশ গ্রেফতার হওয়ায় মনে করা হচ্ছে, নিয়োগ পত্র দেওয়া নিয়ে পার্থ এবং সুবীরেশকে মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হতে পারে।

আরও পড়ুন: তাণ্ডব! বিজেপি-র নবান্ন অভিযান নিয়ে ২টি পেনড্রাইভ জমা পড়ল হাইকোর্টে

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন