অগ্নিকাণ্ডের পর ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে এসএসকেএম হাসপাতাল

0

অগ্নিকাণ্ডের পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরছে এসএসকেএম হাসপাতাল। ছন্দে ফিরছে রোনাল্ড রস বিল্ডিং-ও। ওই বিল্ডিং-এর রোগীদের বেডগুলিকে নতুন ভাবে সাজানো হচ্ছে। আগুন লাগার প্রকৃত কারণ খতিয়ে দেখতে ইতিমধ্যেই লালবাজারের পক্ষ থেকে একটি বিশেষ তদন্তকারী দল হাসপাতাল পরিদর্শন করেছে।

দমকল আর ফরেন্সিক দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লাগেনি। তাদের প্রাথমিক অনুমান, রোনাল্ড রস বিল্ডিং-এর ওপর যে দু’টি মোবাইল টাওয়ার রয়েছে সেখান থেকেই আগুন লেগে থাকতে পারে। সেই কারণেই মোবাইল টাওয়ারগুলি সরিয়ে নেওয়ার পরিকল্পনা করছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এসএসকেএমের রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান অরূপ বিশ্বাসকেও এ ব্যাপারে জানানো হয়েছে।

হাসপাতালের ডিরেক্টর মঞ্জু বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “পুলিশ ইতিমধ্যেই আগুন লাগার বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। রোলান্ড রস ব্লিল্ডিং-এ প্লাস্টিক সার্জারির ওটি চালু হয়েছে। হাসপাতালের বাকি কাজকর্মও এখন স্বাভাবিক। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে হাসপাতাল চত্বরে রাখা হয়েছে দমকলের ২টি ইঞ্জন।”

ডিরেক্টর আরও বলেন, হাসপাতালের তরফ থেকেও একটি তদন্তকারী দল তৈরি করা হয়েছে। তারা হাসপাতালে প্লাস্টিক সার্জারি বিভাগ-সহ একাধিক বিভাগে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণের তালিকা তৈরি করবে।

হাসপাতাল সুপার কাবেরী বড়াল বলেন, “হাসপাতালের স্বাভাবিক অবস্থা ফিরতে একটু সময় লাগবে, পরিস্থিতি আস্তে আস্তে স্বাভাবিক হবে। রোনাল্ড রস বিল্ডিং-এ চিকিৎসাধীন রোগীদের আগেই অন্য একটি বিল্ডিং-এ সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল। দ্রুত তাদের রোনাল্ড রস বিল্ডিং-এ ফিরিয়ে আনা হবে।”

তবে রোগীদের অন্যত্র সরানোর ফলে চিকিৎসা পরিষেবা যে কিছুটা ব্যাহত হচ্ছে তা স্বীকার করে নেন কাবেরী দেবী।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন