medical council

কলকাতা:  চিকিৎসায় গাফিলতির অভিযোগ জমা পড়লে তা ছ’মাসের মধ্যে নিস্পত্তি করতে হবে। এই মর্মে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। কিন্তু এই বিজ্ঞপ্তির বিরোধী খোদ রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিল।

যদিও কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের এই বিজ্ঞপ্তির জেরে আশার আলো দেখছে চিকিৎসায় গাফিলতির জেরে মৃত্যু হওয়া বহু রোগীর পরিবারই। আর এবার রাজ্যের যে কোনও হাসপাতালে চিকিৎসায় গাফিলতি থাকলে রোগীর পরিবার রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিলে আবেদন করতে পারবেন। আর ছ’মাসের মধ্যে সেই অভিযোগ নিস্পত্তি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে ওই বিজ্ঞপ্তিতে। আর এই অভিযোগ যেতে পারে এমসিআই-এর এথিক্যাল কমিটিতেও।

কেন এই বিজ্ঞপ্তি জারি করতে হল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রককে?

রাজ্যের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা তথ্য জানার অধিকার (আরটিআই) আইনে রাজ্যের মেডিক্যাল কাউন্সিলে একটি চিঠি পাঠায়। সেই চিঠিতে জানা যায়, চলতি বছরে ২০১৭ সালের জুন মাস অবধি অভিযোগের সংখ্যা ৫২টি। কিন্তু অভিযোগ নিষ্পত্তির সংখ্যা একটিও নয়। ২০১৬ সালে অভিযোগের সংখ্যা ছিল ১০৬টি, নিষ্পত্তি হয়েছে মাত্র তিনটির।  ২০১১-১৭ সাল পর্যন্ত অভিযোগের সংখ্যা ৫৫৭টি, যার মধ্যে নিষ্পত্তি হয়নি ৪৪২টির। যদিও রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিল এই বিষয়ে দায় ঝেড়ে ফেলেছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের এই অভিযোগ উঠিয়ে দিয়ে রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিলের সভাপতি নির্মল মাঝি বলেন, “  বাম জামানায় রাজ্য মেডিক্যাল কাউন্সিলে প্রায় ১ হাজার অভিযোগ ছিল। কিন্ত এখন মাত্র সাতটি মামলা পড়ে রয়েছে। বেশিরভাগ মামলাই সুষ্ঠু ভাবে সমাধান হয়ে গিয়েছে।”

পিপল ফর বেটার ট্রিটমেন্ট নামে চিকিৎসক সংগঠনের এক সদস্য অভিযোগ করেন, “ রাজ্য সরকারের মেডিক্যাল কাউন্সিল এই বিষয়ে কোনও তৎপরতা দেখায় না। যার ফলে মেডিক্যাল কাউন্সিলে ভুরি ভুরি অভিযোগ জমা হচ্ছে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here