spring in kolkata
বসন্তের কলকাতা।

ওয়েবডেস্ক: খাতায়-কলমে এখন মাঝ-বসন্ত। অন্য বার এই সময়ে গরমের দাপট শুরু হয়ে যায়। কিন্তু এ বার এখনও পর্যন্ত আবহাওয়া যথেষ্ট মনোরম। ভোরবেলায় শীতের অনুভূতিও হচ্ছে যথেষ্ট। হালকা হলেও বইছে উত্তুরে হাওয়া।

অনেক সময় দেখা গিয়েছে, শেষ ফেব্রুয়ারিতেও কলকাতা পারদ উঠে গিয়েছে ৩৬-৩৭-এ। কিন্তু এ বার ফেব্রুয়ারি তো বটেই, মার্চের প্রথম ন’দিনেও সেটা হল না। আর সেই কারণে এখনও অনেকেই পাখা চালানো শুরু করেননি।

শনিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৯.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই তাপমাত্রাটি স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। কলকাতার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে এখনও তাপমাত্রা বেশ কম। ব্যারাকপুরে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৫.৮।

আরও পড়ুন: ‘নয়া পাকিস্তান’ হতে গেলে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ‘নয়া পদক্ষেপ’ দেখাতে হবে: বিদেশমন্ত্রক

রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চল তো এখনও শীতবস্ত্র ছাড়তে পারেনি। কারণ সে সব অঞ্চলে এখন যা পারদ, কলকাতায় শীতকালে গড়ে সেই পারদ দেখা যায়। যেমন পুরুলিয়ায় এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৩.৪, শ্রীনিকেতনে ১৩.৮ এবং পানাগড়ে ১৩.৯। বাঁকুড়ায় তাপমাত্রা ছিল ১৫.৭। তবে কিছুটা বেশি বর্ধমানের তাপমাত্রা ছিল এ দিন – ১৮.৮। আবার আসানসোলে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৪.৭।

আসলে এ বার উত্তর ভারতে একের পর এক পশ্চিমী ঝঞ্ঝার হানা দেওয়া এবং তার প্রভাবে প্রবল তুষারপাতের জেরে শীতের অনুভূতি এই মার্চেও রয়েছে গেছে রাজ্যে।

তবে আগামী ৪৮ ঘণ্টা পর থেকে ধীরে ধীরে তাপমাত্রা বাড়তে শুরু করে দেবে। গরমের অনুভূতিও পাওয়া শুরু হয়ে যাবে। মধ্য ভারত থেকে গরম হাওয়া ঢুকবে পশ্চিমাঞ্চলের বায়ুমণ্ডলে। অন্য দিকে কলকাতা এবং সংলগ্ন জেলাগুলিতে ঢুকবে জলীয় বাষ্প। ফলে দক্ষিণবঙ্গের সর্বত্রই গরম পড়বে।

সোমবার থেকে কলকাতার তাপমাত্রা ৩৪-৩৫-এর কাছাকাছি চলে যেতে পারে। আরও কিছুটা বেশি থাকবে পশ্চিমাঞ্চলের পারদ। তবে ৩৫ ছুঁলেও, মাত্রাছাড়া গরম যে এখনই পড়বে না, সেটা নিশ্চিত করেই বলে দেওয়া যায়।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here