আন্দোলন চলছে। ছবি: ফেসবুক

ওয়েবডেস্ক: হোস্টেল ফিরে পাওয়ার দাবিতে গত চার দিন ধরে আন্দোলন করে চলেছেন প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা। কিন্তু শতাব্দী প্রাচীন হিন্দু হোস্টেলটি এখন যে অবস্থায় রয়েছে তাতে সেটা কোনো ভাবেই ফিরিয়ে দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়া।

তিনি বলেন, “হোস্টেলের মেরামতির কাজের দায়িত্বে রয়েছে পূর্ত দফতর। তাদের বিষয়টি ইতিমধ্যেই জানানো হয়েছে। এখনও কাজ শেষ হয়নি। এর মধ্যে পড়ুয়াদের থাকার ব্যবস্থা করা যাবে না।” হোস্টেল পুরোপুরি তৈরি হতে এখনও আরও চার-পাঁচ মাস সময় লেগে যেতে পারে বলে পূর্ত দফতর জানিয়েছে।

আরও পড়ুন বাঁকুড়ায় জলের তোড়ে ভেসে গেল আস্ত দু’তলা বাড়ি, দেখুন ভিডিও

সোমবার বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের তরফে আন্দোলন তুলে নেওয়ার অনুরোধ জানানো হয়। এ দিনও পড়ুয়ারা তাঁদের দাবি থেকে সরে আসতে রাজি হননি।

উল্লেখ্য, সংস্কারের জন্য ২০১৫ সালে খালি করা হয়েছিল শতাব্দী প্রাচীন এই হোস্টেল। তিন বছর হয়ে গেলেও এখন সংস্কার শেষ হয়নি ঐতিহ্যবাহী হিন্দু হস্টেলের। গত ১৫ জুলাইয়ের মধ্যে কাজ শেষ হওয়ার কথা ছিল। সময়ে কাজ শেষ না হওয়াতেই গত শুক্রবার বেলা ৩টে থেকে প্রেসিডেন্সি কলেজের প্রশাসনিক ভবনে ডিন অব স্টুডেন্ট-সহ অন্য আধিকারিকদের ঘেরাও করেন পড়ুয়ারা। অবস্থান চলছে উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারের অফিসের সামনেও।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here