মন্দির, চার্চ ও মসজিদে প্রার্থনা জানিয়ে বাঁকুড়ায় প্রচার শুরু সুব্রতর

0
subrata mukherjee offering puja
পুজো দিচ্ছেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাঁকুড়া: “আমাদের দল ধর্ম নিয়ে রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। আমরা সর্বধর্মে বিশ্বাসী। সে কারণেই মন্দির, চার্চ ও মসজিদে গিয়ে ঈশ্বর, প্রভু যিশু ও আল্লার কাছে প্রার্থনা জানালাম। বাঁকুড়া সব সময়ই পছন্দের জায়গা। বাঁকুড়ার মানুষকে ভালোবাসি তাই বালিগঞ্জে না লড়ে এখানে ছুটে এলাম” – ২০১৯ লোকসভা ভোটে বাঁকুড়া কেন্দ্রের প্রচারে এই কথাই বললেন তৃণমূল নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায় ।

আরও পড়ুন অভিনব নির্বাচনী প্রচার শুরু করলেন প্রিয়ঙ্কা গান্ধী

রবিবার বিকেল নাগাদ বাঁকুড়ায় পৌঁছোনোর পরই সোমবার বাঁকুড়ার মন্দির, চার্চ ও মসজিদে গিয়ে ঈশ্বর, যিশু ও আল্লার কাছে আশীর্বাদ নিয়ে প্রচার শুরু করলেন ‘হেভিওয়েট’ তৃণমূল প্রার্থী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। রবিবার বিকেল নাগাদ বাঁকুড়া শহরে পৌঁছে সোমবার সকালে মহামায়া মন্দির, ভৈরবস্থানে পূজো দেন। পরে কলেজ রোডের খ্রিস্টান মিশনারি চার্চ ও মাচানতলার মসজিদেও যান তিনি।

subrata mukherjee in church
চার্চে সুব্রত মুখোপাধ্যায়। নিজস্ব চিত্র।

সর্বধর্ম সমন্বয়ের কথা উল্লেখ করে নিজের বাড়ির ব্যাক্তিগত ঠাকুরঘরের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “আমার বাড়ির ঠাকুর ঘরে গঙ্গাজলের পাশাপাশি জর্ডন আর মক্কার জলও রয়েছে। প্রথম থেকেই রাজনৈতিক ও সামাজিক জীবনে সর্বধর্ম সমন্বয়ে বিশ্বাসী। তাই ভোটপ্রচারের প্রথম দিনে মন্দির, মসজিদ ও চার্চে পুজো, দোয়া ও প্রার্থনা। বিজেপি শুধু রামমন্দির করতে চায় আর আমরা রাম, রহিম আর যিশুর মন্দির করতে চাই” – ২০০৯ সালে বাঁকুড়া থেকে ‘শূন্য’ হাতে ফিরে যাওয়া সুব্রত মুখোপাধ্যায় এ বার জেতার ব্যাপারে আত্মবিশ্বাসী।

জেলা তৃণমূল সূত্রে খবর, সোমবার বাঁকুড়া শহরে দলের যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে একটি কর্মীসভায় যোগ দিচ্ছেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তার পরেই আগামী দিনের প্রচার কর্মসূচি ঠিক করা হবে বলে খবর।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here