কলকাতা: সকাল থেকে টানা সাড়ে ৪ ঘণ্টা জেরার পর লোকসভায় তৃণমূলের মুখ্য সচেতক সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেফতার করল সিবিআই।

রোজভ্যালি কাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে তলব করে সিবিআই। মঙ্গলবার সকাল ১০টা বেজে ৫৫ মিনিটে সিজিও কমপ্লেক্সে পৌঁছে যান তৃণমূল সাংসদ। এর পর তাঁকে দু’দফায় জেরা করে সিবিআই আধিকারিকরা। প্রথম দফায় প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ করেন। সূত্রের খবর তাপস পালের মামলার আধিকারিকরাও সুদীপবাবুকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

সূত্রের খবর তদন্তকারী আধিকারিকরা বেশ কিছু নথি তৃণমূল সাংসদের সামনে হাজির করেন। সেই নথিগুলি নিয়ে কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি সুদীপবাবু। সে কারণেই তাঁকে গ্রেফতার করে সিবিআই। তাপস পালের পর দ্বিতীয় তৃণমূল সাংসদ সুদীপবাবু যাঁকে রোজভ্যালি কাণ্ডে গ্রেফতার করল সিবিআই।

সূত্রের খবর, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়কে তাপস পালের মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করতে চায় সিবিআই। সে কারণে তাঁকে ভুবনেশ্বরে নিয়ে যাওয়া হতে পারে।

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘সিপিএমের আমলে চিটফান্ডের বাড়বাড়ন্ত হয়েছে। তা সত্ত্বেও সুজন চক্রবর্তী, রবীন দেবকে সিবিআই ডাকছে না কেন।’ তিনি কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়কেও গ্রেফতারির দাবি তোলেন।  এই গ্রেফতারির বিরুদ্ধে দেশজুড়ে আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। বুধবার থেকে লাগাতার ধরনা আন্দোলন শুরু হবে বলে জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দলীয় সাংসদদের নিয়ে জরুরি বৈঠকেরও ডাক দেন তিনি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here