cow vigilantes

নয়াদিল্লি: কেউ গোরক্ষার নামে হিংসার ঘটনার শিকার হলে তার ক্ষতিপূরণ করার ব্যাপারে রাজ্য বাধ্য। শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট এই আদেশ দিয়েছে। পাশাপাশি গোরক্ষকদের তাণ্ডব বন্ধ করতে অক্টোবরের ১৩ তারিখের মধ্যে একজন নোডাল অফিসার নিয়োগ করার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

উল্লেখ্য, এ মাসের ৬ তারিখ এই প্রসঙ্গে একটি নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। সেখানে গোরক্ষকদের দাপাদাপি বন্ধ করতে প্রত্যেকটি জেলায় একজন করে নোডাল অফিসার নিয়োগ করার কথা রাজ্যগুলিকে বলেছিল শীর্ষ আদালত। পাশাপাশি রাজ্যের প্রধান সড়কগুলিতেও নিরাপত্তা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছিল আদালত। গাড়ি দাঁড় করিয়ে গোরক্ষকদের তাণ্ডবের ঘটনা মূলত প্রধান সড়কেই ঘটে।

গোরক্ষার বিষয়ে সব রাজ্যের কাছ থেকে রিপোর্ট চেয়েছে শীর্ষ আদালত। আদালত জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত গুজরাত, রাজস্থান, ঝাড়খণ্ড, কর্নাটক আর উত্তরপ্রদেশ এই রিপোর্ট জনা দিয়েছে। বাদ বাকি রাজ্যগুলিকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব রিপোর্ট জমা দিতে বলেছে শীর্ষ আদালত।

মহাত্মা গান্ধীর নাতি, সাংবাদিক তুষার গান্ধীর একটি আবেদনের ভিত্তিতে এই বিষয়ে শুনানি চলছে সুপ্রিম কোর্টে। কিছু দিন আগে এই সংক্রান্ত শুনানিতে কেন্দ্র বলেছিল, তারা গোরক্ষকদের দাপাদাপি সমর্থন করে না। পাশাপাশি আইন রক্ষার দায়িত্ব যে রাজ্যের বিষয়, সে কথাও আদালতকে বলেছিল কেন্দ্র। প্রসঙ্গত ২০১৪-য় কেন্দ্রে এনডিএ সরকার ক্ষমতায় আসার পরেই দাপাদাপি বেড়েছে গোরক্ষকদের। স্বঘোষিত গোরক্ষকদের তাণ্ডবে খুনও হতে হয়েছে অনেক মানুষকে।

এ নিয়ে পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য হয়েছে ৩১ অক্টোবর।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন