খবর অনলাইন ডেস্ক: বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষকে এখনই গ্রেফতার করা যাবে না। বিধানসভা ভোটের প্রচার থেকে ভোটগণনা না হওয়া পর্যন্ত তাঁকে রাজ্য পুলিশ গ্রেফতার করতে পারবে না বলে জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট।

আগে ভারতী ঘোষের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে রাজ্য পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে এক ডজনের বেশি মামলা রয়েছে। গ্রেফতারি এড়াতে সর্বোচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হন ডেবরার বিজেপি প্রার্থী ভারতী। সেই আবেদনের শুনানিতেই সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দেয়, পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত গ্রেফতার করা যাবে না তাঁকে।

গত ২০১৮ সালের বিজেপিতে যোগ দেন প্রাক্তন আইপিএস ভারতী ঘোষ। ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে তিনি পদ্মপ্রতীকে প্রার্থী হন। সে বার তাঁকে ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী করে বিজেপি। ওই বছরের ১২ মে তাঁর বিরুদ্ধে কেশপুর থানায় এফআইআর দায়ের হয়।

ভারতীর অভিযোগ, তাঁর বিরুদ্ধে খুনের চেষ্টা-সহ একাধিক ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। কিন্তু সেই সময় ঘাটাল লোকসভা কেন্দের তৃণমূল কংগ্রেসের গুন্ডারা তাণ্ডব চালিয়েছিল। তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাঁর উপরেও হামলা চালিয়েছিল। সে সময় পুরো ঘটনায় নীরব দর্শকের ভূমিকা নিয়েছিল পুলিশ।

এখন বিধানসভা ভোটের আগে কার্যত আচমকাই ওই মামলায় তাঁর বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি হয়। রাজ্য পুলিশের গ্রেফতারির নির্দেশের স্থগিতাদেশ পাওয়ার আবেদন নিয়েই তিনি সর্বোচ্চ আদালতে গিয়েছিলেন। মঙ্গলবার এই মামলায় রায় দেয় সুপ্রিম কোর্ট।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি অশোক ভূষণ, এস আবদুল নাজির এবং হেমন্ত গুপ্তের একটি বেঞ্চ জানিয়েছে, এই মামলায় ভারতীর বিরুদ্ধে আর জোরালো কোনো ব্যবস্থা নেওয়া উচিত নয়। শীর্ষ আদালত এই বিষয়টি দু’মাস পর পরবর্তী শুনানির জন্য তালিকাভুক্ত করেছে।

আরও পড়তে পারেন: ইস্তফা দিলেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়ত

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন