খবর অনলাইন ডেস্ক: শনিবার প্রথম দফায় ভোটগ্রহণ চলছে পূর্ব মেদিনীপুরের কাঁথি বিধানসভা কেন্দ্রে। অভিযোগ, প্রায় ৩০ জন দুষ্কৃতী ব্যাপক ভাঙচুর চালায় শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌম্যেন্দুর গাড়িতে। এমনকী, গাড়ির চালককে মারধরও করা হয়। এই ঘটনায় রাজ্যের শাসক দল তৃণমূলকে দায়ী করেছেন সৌম্যেন্দু। উলটো দিকে তৃণমূলের দাবি, বাইরে থেকে লোক এনে গন্ডগোল পাকানোর চেষ্টা করায় সাধারণ মানুষ ক্ষিপ্ত হয়ে গাড়ি ভাঙচুর করেছেন।

জানা গিয়েছে, একটি বুথে ঢোকার সময় সাবাজপুট এলাকায় সৌমেন্দুর পথ আটকায় একদল দুষ্কৃতী। ব্যাপক ভাঙচুর করা হয় তাঁর গাড়িতে। এই ঘটনায় আহত হয়েছেন তাঁর গাড়ির চালক রামগোবিন্দ সিংহ। আঘাত না পেলেও সৌম্যেন্দুর অভিযোগ, ‘‘তৃণমূল রিগিং চালাচ্ছে খবর পেয়ে এখানে এসেছি। তখনই আমার উপর হামলা চালানো হল’’ ।

Loading videos...

এই হামলার ঘটনা প্রসঙ্গে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি রামগোবিন্দ দাস বলেন, “সৌমেন্দুবাবুর এখানে আসার কথা নয়। তিনি বুথ জ্যাম করার চেষ্টা করছিলেন।”

স্থানীয় এক তৃণমূল কর্মী নমিতা রায় সংবাদ মাধ্যমের কাছে বলেছেন, ‘‘বিজেপি বাইরে থেকে লোক এনে সকাল থেকে গণ্ডগোল করছিল। তৃণমূলকর্মীরা বিষয়টি বলতেই বাইরে থেকে আসা বিজেপি-র লোকেরা মারধর করে আমাদের। শান্তিপূর্ণ ভোটে বাধা দেওয়ার জন্যই গ্রামবাসীরা ক্ষিপ্ত হয়ে গাড়িতে হামলা করেছে।’’ তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করেন সৌম্যেন্দু।

এ ব্যাপারে সৌম্যেন্দুর বাবা শিশির অধিকারী সংবাদ মাধ্যমের সামনে বলেন, “যা করছে করুক, ফলাফলই সব বলে দেবে”।

আরও পড়তে পারেন: Bengal Polls Live: ১১টার মধ্যে ভোট পড়ল ৩৬ শতাংশের বেশি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.