Arjun Singh and Taritbaran Topder
তড়িৎবরণ তোপদার এবং অর্জুন সিং। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: সদ্য তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া অর্জুন সিং ২০০৪-এ সিপিএম প্রার্থী তড়িৎবরণ তোপদারের বিরুদ্ধেই হেরেছিলেন। তবে এ বার বিজেপির টিকিটে ব্যারাকপুর কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হওয়ার পর সটান হাজির হয়েছিলেন এক সময়ের প্রতিদ্বন্দ্বীর বাড়িতে। সেখানে তাঁদের কী কথা হয়েছিল, সাংবাদিকদের এমন সাধারণ প্রশ্নেই মেজাজ হারালেন এক সময়ের দাপুটে সিপিএম নেতা।

ব্যারাকপুরে ছ’বার সাংসদ থাকার পর ২০০৯ লোকসভা ভোটে তৃণমূলের দীনেশ ত্রিবেদীর কাছে পরাস্ত হন তড়িৎ তোপদার। এহেন তুখোড় সিপিএম নেতার বাড়িতে বিজেপি প্রার্থীর যাওয়া নিয়ে কৌতূহলের সৃষ্টি হয় বইকি! একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে ফোনে তড়িৎবাবু অবশ্য সে সময়ই স্বীকার করেছিলেন, ”ওঁ শুধু আর্শীবাদ নিতেই আমার কাছে এসেছিলেন। আমি কুড়ি বছর সাংসদ ছিলাম, আমার কাছে যে কেউ আসতে পারে।”

Loading videos...

এ বিষয়ে বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং বলেছিলেন, “তড়িৎবাবু দীর্ঘজীবনের সাংসদ। ওঁর কাছ থেকে অনেক কিছু শেখার রয়েছে। আমি ভারতীয় জনতা পার্টির প্রার্থী হিসাবে ওঁর কাছে আর্শীবাদ নিতে গিয়েছিলাম।”

[ এখানে ক্লিক করে দেখুন সেই ভিডিও ]

এমনটাও জানা যায়, তাঁদের মধ্যে প্রায় আড়াই ঘণ্টা কথোপকথন হয়েছিল। স্বাভাবিক ভাবেই সাংবাদিকরা জানতে চান, এর মধ্যে কি কোনো রাজনৈতিক আলোচনা ছিল?

প্রশ্ন শুনে যারপরনাই উত্তেজিত হয়ে ওঠেন তড়িৎবাবু। শোনা যায়, তিনি না কি তৎক্ষণাৎ রেগে গিয়ে বলেন, “কোন শুয়োরের বাচ্চা বলেছে”?‌

[ আরও পড়ুন: সিপিএমকে ফের বার্তা দিলেন রাহুল গান্ধী ]

এখানেই থেমে না থেকে তিনি বলেন, “এ ভাবে যা খুশি তাই প্রশ্ন করা যায় না। আমি করব তোমাকে যা খুশি প্রশ্ন? তোমার বাপ, মা তুলে আমি প্রশ্ন করব? ভাল লাগবে”?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.