কলকাতা: শিক্ষক এবং শিক্ষককর্মীদের আপস বদলি ও সাধারণ বদলি এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা মতো নিজের জেলায় বদলির দাবিতে বিকাশ ভবনে গিয়ে ডেপুটেশন কর্মসূচির ডাক দিল ‘অল পোস্ট গ্র‍্যাজুয়েট টিচার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন’।

এ বছরের সরস্বতীপুজোর দিন শিক্ষকদের নিজের জেলায় বদলি প্রক্রিয়া শুরু করার কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তা এখনও শুরু হয়নি বলে অভিযোগ। অন্য দিকে বন্ধ রয়েছে সাধারণ এবং আপস বদলিও।

রাজ্য অবশ্য এর আগেও জানিয়েছে, শিক্ষক বদলির প্রক্রিয়া বন্ধ হয়নি। প্রশাসনিক স্তরে কাজ এগোচ্ছে। তবে শিক্ষক সংগঠনের অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গে সরকারি ও সরকার পোষিত স্কুল এবং মাদ্রাসায় শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের বদলি প্রক্রিয়া বন্ধ রয়েছে।

এ ব্যাপারে অল পোস্ট গ্র‍্যাজুয়েট টিচার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন জানিয়েছে, আগামী ৬ অক্টোবর বিকাশ ভবনে শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষাসচিব এবং কমিশনারের কাছে ডেপুটেশন দেওয়া হবে। এ ছাড়া মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি এবং এসএসসি অফিসেও ওই ডেপুটেশন দেওয়া হবে।

সংগঠন আহ্বান জানিয়েছে, শান্তিপূর্ণ ভাবে ও করোনা পরিস্থিতিতে সমস্ত রকমের স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ডেপুটেশন কর্মসূচি পালন করা হবে। সংগঠন সমস্ত ধরনের শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীকে ওই ডেপুটেশন কর্মসূচিতে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: ‘গুরুপদ সিনহার মৃত্যু পশ্চিমবঙ্গের আলু ব্যবসায়ীদের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি’, শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর

প্রসঙ্গত, মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছিলেন, রাজ্যের স্কুল শিক্ষক-শিক্ষিকারা নিজদের জেলায় শিক্ষকতা করার সুযোগ পাবেন। বাড়ি ছেড়ে দূরবর্তী জেলায় তাঁদের কাজ করতে হবে না। মুখ্যমন্ত্রীর ওই ঘোষণাকেই কার্যকর করার প্রক্রিয়া শুরু করে স্কুলশিক্ষা দফতর। ওই প্রক্রিয়া গত ১ এপ্রিল শুরু হবে বলে জানানো হয়েছিল। কিন্তু করোনা মহামারির জেরে সেই প্রক্রিয়া ব্যাহত হয়েছে বলে জানা যায়। অন্য দিকে সাধারণ এবং আপস বদলি প্রক্রিয়াও দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে বন্ধ রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

সংগঠনের দাবি-

আরও পড়তে পারেন: ‘একশো শতাংশ কাজ চাই, ঢিলেমি নয়’, উত্তরকন্যার প্রশাসনিক বৈঠকে স্পষ্ট বার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন