Connect with us

রাজ্য

উত্তুরে হাওয়ায় হালকা শিরশিরানি, কলকাতায় পারদ একুশে, সমতলে শীতলতম পুরুলিয়া

কলকাতার উপকণ্ঠেই পারদ কুড়ি ডিগ্রির নীচে নেমে গিয়েছে। এ দিন ব্যারাকপুরে পারদ রেকর্ড করা হয়েছে ১৯.৯ ডিগ্রি।

Published

on

winter 2020

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের অধিকাংশ জায়গা থেকেই বিদায় নিয়েছে বর্ষা (Monsoon 2020)। মঙ্গলবার দুপুরে কলকাতা-সহ বাকি অল্প অংশ থেকেও বিদায় নিয়ে নেবে সে। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের বায়ুমণ্ডলে ঢুকে পড়েছে উত্তুরে হাওয়া। সেই হাওয়ায় হালকা শিরশিরানিও ধরছে।

উত্তুরে হাওয়ার টানেই বড়ো রকম পতন হয়েছে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার। মঙ্গলবার কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ২১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সোমবারের (২৪.১ ডিগ্রি) থেকে পারদ কমেছে পাক্কা তিন ডিগ্রি। তাপমাত্রাটি স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি সেলসিয়াস কম।

কলকাতার উপকণ্ঠেই পারদ কুড়ি ডিগ্রির নীচে নেমে গিয়েছে। এ দিন ব্যারাকপুরে পারদ রেকর্ড করা হয়েছে ১৯.৯ ডিগ্রি।

Loading videos...

উত্তরবঙ্গের পাহাড়ি এলাকা বাদ দিলে এ দিন গোটা রাজ্যের মধ্যে শীতলতম জায়গা ছিল পুরুলিয়া। সেখানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৬ ডিগ্রিতে নেমে গিয়েছে। অর্থাৎ পুরুলিয়ার বাসিন্দাদের ভোর এবং সকালবেলায় শীতবস্ত্র গায়ে চাপাতে হচ্ছে।

পশ্চিমাঞ্চলের বাকি জায়গাতেও তাপমাত্রা ক্রমশ কমছে। পানাগড়ে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৭ ডিগ্রি। শীত শীত ভাব অনুভূত হয়েছে শ্রীনিকেতন (১৮.৬ দিগ্রি), আসানসোল (১৮.৯ ডিগ্রি), বাঁকুড়া (১৯.৭ ডিগ্রি)। পড়শি ঝাড়খণ্ডে ঠান্ডা পড়ে গিয়েছে ভালোই। তার প্রভাবেই পশ্চিমাঞ্চলে ক্রমশ কমছে পারদ।

তুলনায় উত্তরবঙ্গে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা খুব একটা কমেনি এখনও। দার্জিলিং (১০.৬ দিগ্রি) বা কালিম্পংয়ে (১৩ ডিগ্রি) উচ্চতার প্রভাবে ঠান্ডা পড়লেও এখনও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা খুব একটা নামেনি শিলিগুড়ি (১৯.৬ ডিগ্রি) জলপাইগুড়ি (২০.৬ ডিগ্রি) এবং কোচবিহারে (১৯.৬ ডিগ্রি)।

উত্তুরে হাওয়ার প্রভাব আগামী দু’ দিন রাজ্যে থাকবে। ফলে আরও সামান্য কমতে পারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। তবে এই সপ্তাহের শেষে ফের বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তখন ফের স্যাঁতস্যাঁতে ভাব ফিরে আসতে পারে রাজ্যে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

নীতীশ কুমারের থেকে দূরত্ব বাড়াচ্ছে বিজেপি? বিভিন্ন ঘটনায় জল্পনা

দঃ ২৪ পরগনা

কৈলাস বিজয়বর্গীয়র ‘হরি বোল’, এক গুচ্ছ প্রতিশ্রুতি

জয়নগরে ‘হরি বোল’-এ মজলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

Published

on

কৈলাস বিজয়বর্গীয়। ছবি: প্রতিবেদক

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, জয়নগর: রাজ্য সরকার বাংলার মানুষকে কেন্দ্রীয় সরকারি প্রকল্প থেকে বঞ্চিত করে রেখেছে বলে জোরালো অভিযোগ করলেন কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya)।

এ দিন মঙ্গলবার দুপুরে জয়নগর থানার বহড়ু হাইস্কুলের মাঠে ঢাক-ঢোল বাজিয়ে কীর্তন শিল্পীরা স্বাগত জানান বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতাকে। কীর্তনও করেন তিনি। ‘হরি বোল’-এ মেতে ওঠেন কৈলাস।

ভিড়ে ঠাসা সভায় দর্শকদের সামনে বিজেপির সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় বলেন, “রাজ্য সরকারের অহংকারে আজ পশ্চিমবঙ্গের মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত। মমতার সরকারের জন্য আজ বাংলার কৃষক, লোকশিল্পী থেকে শুরু করে উম্পুনে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ দুর্দাশায় ভুগছে। রাজ্য সরকারের অসহযোগিতায় বাংলার লোক শিল্পীরা আজ পেনশন থেকে বঞ্চিত। মোদী সরকার তবুও ১২০০ জন বয়স্ক শিল্পীকে পেনশনের ব্যবস্থা করেছে। রাজ্য আমরা ক্ষমতায় এলে সব বয়স্ক শিল্পীরা এই পেনশন পাবেন। কেন্দ্রকে মমতার সরকার কোনো কৃষকের তালিকা দিচ্ছে না। ১০ হাজার কোটি টাকা পড়ে রয়েছে। তালিকা পেলেই তাদের কাছে টাকা পৌঁছে যাবে”।

Loading videos...

দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা শিল্পী সংসদ আয়োজিত এক শিল্পী সমাবেশের অনুষ্ঠানে এসে তিনি রাজ্য সরকারের সমালোচনা করে বলেন, “মোদী সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পগুলো নিজেদের নাম করে চালিয়ে দিচ্ছে মমতার সরকার। উম্পুৱে এক হাজার কোটি টাকা কেন্দ্র দিয়েছে এখনো রাজ্য সরকার তার হিসাব দিতে পারেনি। সারা দেশের মধ্যে সব থেকে বেশি নারীদের প্রতি অত্যাচার, ধর্ষণের মতন ঘটনা ঘটছে পশ্চিমবঙ্গে। এখনও সময় আছে, আমাদের একবার রাজ্যে আনুন”।

এ দিন এই সমাবেশে বাউল, ঝুমুর, লোকনৃত্য, গাজন,পল্লিগীতি,ঢোল, কীর্তন-সহ বিভিন্ন ধরনের অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়। এ দিনের অনুষ্ঠানে কৈলাস ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন শিল্পী সংসদের সর্বভারতীয় সম্পাদক ও সাংসদ সিদ্ধার্থশেখর নস্কর, ডা. অশোক কান্ডারি, সুকদেব প্রামানিক-সহ আরও অনেকে।

আরও পড়তে পারেন: খেজুরি থেকে ‘এক সঙ্গে ভালো থাকা’র বার্তা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

Continue Reading

পূর্ব মেদিনীপুর

খেজুরি থেকে ‘এক সঙ্গে ভালো থাকা’র বার্তা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

তৃণমূলের পূর্বঘোষিত সভা বাতিল!

Published

on

পদযাত্রায় শুভেন্দু অধিকারী। ছবি: সোশ্যাল মিডিয়া থেকে

খবর অনলাইন ডেস্ক: খেজুরিতে ‘হার্মাদ মুক্তি দিবস’ উপলক্ষ্যে আয়োজিত একটি মিছিলে মঙ্গলবার অরাজনৈতিক ব্যানারেই মিছিলে হাঁটলেন শুভেন্দু অধিকারী। কিন্তু এই মিছিলের সূচনা এবং সমাপ্তিস্থলে চোখে পড়ল তৃণমূলের পতাকা এবং ব্যানার।

মিছিলে হাঁটতে হাঁটতেই শুভেন্দু বলেন, “জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাজনীতি করেছি। প্রতিরোধ গড়ে তুলেছি। হার্মাদদের তাড়া করেছি। গণতন্ত্র স্থায়ী হোক। বাক্‌-স্বাধীনতা স্থায়ী হোক। আমরা সবাই এক সঙ্গে থাকি, ভালো থাকি, সেই কামনাই করি”।

মিছিল শেষে কামারদার সভায় বক্তব্য রাখেন শুভেন্দু। নিজের বক্তব্যে রাজনৈতিক প্রসঙ্গ না টেনেই তিনি বলেন, “আমরা মানুষের মঙ্গলের জন্য কাজ করি। আমি ২০১০-এ এসেছিলাম। ২০১১ থেকে ২০১৯-এও এসেছিলাম। আমি আপনাদের পাশে সর্বদা এভাবেই থাকতে চাই”। সভাস্থলের পাশে শুভেন্দুর একটি বিশালাকার কাটআউট ছাড়া মঞ্চের কোথাও কোনও পতাকা, পোস্টার, ব্যানার লাগানো হয়নি।

Loading videos...

তবে এ দিনের মিছিলে রাস্তার দু’ধারে শুভেন্দু এবং মমতার ছবি আর দলীয় প্রতীক চিহ্ন আঁকা কাট আউট বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।

অন্যদিকে খেজুরি দিবস-এ তৃণমূলের পূর্বঘোষিত সভা বাতিলের ঘটনাও অন্যমাত্রা যোগ করেছে। নন্দীগ্রাম দিসবে পাল্টা সভা করেছিল তৃণমূলের ব্যানারে। এ দিনেও সে রকম একটি সভা করার কথা থাকলেও সেই সভা শেষমেশ বাতিল হয়ে যায়। এর মাধ্যমে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব তাঁর কাছে বার্তা পৌঁছে দিলেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

সোমবার শুভেন্দুর সঙ্গে তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়ের দীর্ঘ আলোচনা থেকেও কোনো ‘সমাধান সূত্র’ উঠে আসেনি বলে জানা যায়। তবে মঙ্গলবার তৃণমূল ভবনের সাংবাদিক বৈঠকে সৌগত বলেন, “শুভেন্দু এখনও দলেই রয়েছেন। অন্য কোনো কথা তো তিনি বলেননি”।

একই সঙ্গে এ দিন তিনি বলেন, “খেজুরিতে ও যা বলেছে, তাতেই ওর ইচ্ছেটা স্পষ্ট। দলবিরোধী কিছু বলতে ও ইচ্ছুক নয়”। আরও পড়ুন এখানে: “এক দল, এক ভাষা আনতে চাইছে বিজেপি”, কেন্দ্রের শাসক দলকে নিশানা সৌগত রায়ের

Continue Reading

রাজ্য

“এক দল, এক ভাষা আনতে চাইছে বিজেপি”, কেন্দ্রের শাসক দলকে নিশানা সৌগত রায়ের

“মমতাই পারেন ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে এক করতে”, বললেন সৌগত রায়।

Published

on

সৌগত রায়

কলকাতা: ঘোষণা মতোই মঙ্গলবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠক করলেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়। গত কয়েক দিন ধরেই লাগাতার সাংবাদিক বৈঠক করে রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল নিশানা করে চলেছে বিজেপিকে।

দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি প্রসঙ্গে সৌগত বলেন, “দেশে যেটা ঘটছে, সেটা আমাদের জন্য চিন্তার বিষয়। বিজেপি সারা দেশে এক দল, এক ভাষা করতে চাইছে। সমালোচনা নয়, এ বিষয়ে আমরা ইতিবাচক বার্তা দিতে চাই। যা ভয়ঙ্কর চিন্তাভাবনা। আমাদের দেশের স্বশাসিত সংস্থাগুলি ধীরে ধীরে ভেঙে পড়ছে। দেশের মানুষ এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান”।

একুশের নির্বাচন

সারা দেশ জুড়ে বিজেপির ক্ষমতা দখলের রাজনীতি প্রসঙ্গে দমদমের তৃণমূল সাংসদ বলেন, “বিজেপি দেশের অনেক রাজ্যে ক্ষমতায় রয়েছে। আবার যেখানে ক্ষমতায় ছিল না, সেখানে দলত্যাগে উৎসাহ দিয়ে বিজেপি-বিরোধী রাজ্য সরকারকে ফেলে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি এটা করতে পারবে না। অন্য রাজ্য়ে বিজেপি যেটা করছে, এখানে সেটা করতে পারবে না”।

Loading videos...

আসন্ন বিধানসভা ভোটের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, “আমাদের রাজ্যে একুশের নির্বাচন গুরুত্বপূর্ণ। মমতাই পারেন ধর্মনিরপেক্ষ শক্তিকে এক করতে”।

নিজের রাজনৈতিক জীবনে রাজনীতির মান এতটা নীচে নামতে দেখেননি বলে দাবি করে সৌগত বলেন, “রাজ্য বিজেপি অন্তর্কলহে ক্লান্ত। বিজেপি মমতার সমান্তরাল মুখ তৈরি করতে পারছে না, যে কারণে ভিন রাজ্য থেকে বিজেপি নেতাদের নিয়ে আসছে। আমাদের আশঙ্কা তাঁরা এখানে বিভাজনের রাজনীতি করতে আসছেন। যাতে আমাদের রাজ্যের শান্তির পরিবেশ বিঘ্নিত হতে পারে”।

রাজ্যপালের কড়া সমালোচনা

রাজ্যপালের সমালোচনা করে তিনি বলেন, “আমাদের রাজ্যে এমন একজন রাজ্যপাল রয়েছেন, যিনি বিজেপি নেতার মতো কাজ করছেন। আমাদের বিরুদ্ধে তিনি কী বললেন, সেটা বিষয় নয়। কিন্তু প্রতিষ্ঠানের সম্মানহানি হচ্ছে, রাজ্যপালপদের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হচ্ছে”।

কেন্দ্রীয় সরকার কৃষকদের নিয়ে দেওয়া প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করে তিনি বলেন, “রাজ্য সরকার কৃষকদের পাশে রয়েছে। কেন্দ্র কৃষকদের কথা ভাবে না। এমনিতে কেন্দ্রের কাছে রাজ্যের প্রাপ্যের পরিমাণ ৫০ হাজার কোটি টাকা। সেই টাকা মেটানো হচ্ছে না। এই সংকটের মধ্যে দিয়ে চলেও রাজ্য সরকার নিজের দায়িত্ব পালন করে চলেছে”।

আর শুভেন্দু অধিকারী?

রাজ্যের পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী সম্পর্কে সৌগত বলেন, “শুভেন্দু এখনও দলেই রয়েছেন। অন্য কোনো কথা তো তিনি বলেননি”।

দলের একাংশের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন কোচবিহার দক্ষিণের তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। এ দিন তাঁর বাড়িতে যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। অন্য দিকে গত সোমবার শুভেন্দুর সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনার পরেও কোনো সমাধান সূত্র মেলেনি বলে জানা যায়। এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে সৌগত বলেন, “হিমালয়, হিমাচল, হিমবাহ অনেক বড়ো ব্যাপার। আমরা দলের মধ্যে সব রকমের আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছি। এটা বলার বিষয় নয়, দল সকলকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ ভাবে এগিয়ে যাবে। আমি শুভেন্দু অধিকারী সম্পর্কে পৃথক ভাবে কোনো মন্তব্য করব না। শুভেন্দু দলেই রয়েছেন, এতে কিছু বলার নেই”।

আরও পড়তে পারেন: টিকাকরণে এক সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রাজ্য, প্রধানমন্ত্রীকে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading
Advertisement
Uncategorized10 mins ago

‘লভ জিহাদ’ রুখতে অধ্যাদেশ অনুমোদন করল উত্তরপ্রদেশ

দঃ ২৪ পরগনা39 mins ago

কৈলাস বিজয়বর্গীয়র ‘হরি বোল’, এক গুচ্ছ প্রতিশ্রুতি

virat kohli
ক্রিকেট1 hour ago

দশকের সেরা ক্রিকেটার হওয়ার দৌড়ে বিরাট কোহলি ও আরও এক ভারতীয়

ফুটবল2 hours ago

পিকে-চুণী স্মরণে ডার্বি শুরুর আগে নীরবতা পালন হোক, আইএসএল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাল ইস্টবেঙ্গল

প্রযুক্তি2 hours ago

আরও ৪৩টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করল ভারত

পূর্ব মেদিনীপুর2 hours ago

খেজুরি থেকে ‘এক সঙ্গে ভালো থাকা’র বার্তা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

দেশ2 hours ago

১৪৫ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে পারে ‘নীবর’, তামিলনাড়ু-পুদুচেরিতে বুধবার সরকারি ছুটি

শিল্প-বাণিজ্য3 hours ago

৫০০তম ‘ওয়ার্ল্ড অব টাইটান’ স্টোর খুলল কলকাতায়

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 days ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা6 days ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা3 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা2 months ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা2 months ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

নজরে