kolkata temperature falls
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: মূল কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২০-এর নিচে না নামলেও, পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে নেমেছে। উত্তুরে হাওয়ার ছোঁয়ায় দক্ষিণবঙ্গের বিস্তীর্ণ অঞ্চলেই নামল পারদ। পারদ পতনে রেকর্ড করে ফেলেছে পুরুলিয়া।

বুধবার দুপুরে হঠাৎ মেঘাচ্ছন্ন হয়ে যায় কলকাতার আকাশ। বইতে শুরু করে দমকা হাওয়া। কোথাও কোথাও বৃষ্টিও হয়। আকাশ পরিষ্কার হওয়ার পরেই হুহু করে ঢুকতে শুরু করে উত্তুরে হাওয়া। তার প্রভাবেই এ দিন এতটা নেমেছে পারদ।

আলিপুরে এ দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২০.৯ ডিগ্রি, স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। দমদমে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৯.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বলা যেতে পারে, মরশুমে এই প্রথমবার ২০-র নিচে নেমেছে কলকাতার পারদ। কলকাতার উপকণ্ঠে ব্যারাকপুরে তাপমাত্রা ছিল আরও কম, ১৮.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ২০১২-তে শেষবার অক্টোবরেই ২০-র নিচে নেমেছিল কলকাতার তাপমাত্রা।

তবে পশ্চিমাঞ্চলের আবহাওয়ার পরিস্থিতি দেখে এটাই মনে হচ্ছে যে সেখানে শীত কার্যত এসেই গিয়েছে। পুরুলিয়ায় বৃহস্পতিবার ভোরে তাপমাত্রা ছিল ১৪.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মজার ব্যাপারে ঝাড়খণ্ডের রাজধানী রাঁচির তাপমাত্রা ছিল পুরুলিয়ার থেকে ০.৫ ডিগ্রি বেশি।

আরও পড়ুন উঁকিঝুঁকি মারার দায়ে অলোক বর্মার বাড়ির সামনে থেকে চার ব্যক্তি আটক

অন্যদিকে আসানসোল, বাঁকুড়া, খড়গপুর, বোলপুর, পানাগড়ে পারদ ছিল যথাক্রমে ১৮.২, ১৭.৬, ১৭, ১৬.৭ এবং ১৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। উত্তর ভারত থেকে বিরামহীন উত্তুরে হাওয়া আসার ফলেই আবহাওয়ার এ রকম রূপ বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

তবে শীত এখনই পড়ে গেল, এটা বলা যাবে না। কারণ সামনের সপ্তাহের শুরু থেকেই ফের বাড়তে শুরু করবে পারদ। কলকাতা তথা দক্ষিণবঙ্গে ফের একদফা বৃষ্টির সম্ভাবনাও রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here