ওয়েবডেস্ক: সর্বনিম্ন তাপমাত্রার নিরিখে পশ্চিমাঞ্চলকে হারিয়ে দিল উপকূল। তবে সামগ্রিক ভাবে সোমবারের থেকে পারদ কিছুটা বাড়ল দক্ষিণবঙ্গে।

মঙ্গলবার রাজ্যের শীতলতম স্থান ছিল ক্যানিং। সেখানে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল সাড়ে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অন্য দিকে পশ্চিমাঞ্চলের পানাগড় এবং শ্রীনিকেতনের পারদ ছিল যথাক্রমে ১০.১ এবং ১০.২ ডিগ্রি।

সোমবার কলকাতার পারদ ছিল ১৩.৮ ডিগ্রি। ২৪ ঘণ্টা পর পারদ কিছুটা বেড়ে হয়েছে ১৫.২। পুরুলিয়ায় এ দিন সর্বনিম্ন পারদ ছিল ১১ ডিগ্রি। বাঁকুড়া, আসানসোল এবং বর্ধমানে পারদ ১২ এবং ১৩ ডিগ্রির মধ্যে ঘোরাফেরা করেছে।

তবে ২৪ ঘণ্টা পর থেকেই আবার বাড়তে শুরু করবে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। সপ্তাহান্তে বৃষ্টি হতে পারে গোটা রাজ্যে।

আরও পড়ুন বহাল রাজ্যের নির্দেশ, সুপ্রিম কোর্টে ধাক্কা খেল বিজেপি

এ বছর একের পর এক শক্তিশালী পশ্চিমী ঝঞ্ঝা আঘাত হানছে উত্তর ভারতে। বুধবার থেকে এমনই একটি ঝঞ্ঝা প্রভাব ফেলতে চলেছে। ঝঞ্ঝাটি এর পর উত্তর ভারত থেকে সরে পূর্ব ভারতে সরে আসবে।

শুক্রবার রাত থেকে তার প্রভাব পড়তে পারে রাজ্যে। শনিবার সারা দিনই দক্ষিণবঙ্গে কমবেশি বৃষ্টি হতে পারে। তবে এ বারও পশ্চিমাঞ্চল এবং উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির দাপট বেশি থাকবে।

সান্দাকফু অঞ্চল এবং সিকিমে তুষারপাতের সম্ভাবনাও রয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here