প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: গত কয়েক দিন যে হারে পারদ নামছিল দক্ষিণবঙ্গে, সোমবার সকাল থেকে তা বন্ধ হয়ে গেল। এমনকি কলকাতা-সহ বিভিন্ন জায়গায় বেশ কিছুটা বেড়ে গিয়েছে পারদ। সোমবার কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৮.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, দমদমে ছিল ১৮.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কলকাতা থেকে কম হলেও, গত কয়েক দিনের তুলনায় বেড়েছে ব্যারাকপুরের পারদও। সেখানে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৬.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শুধু কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলই নয়, তাপমাত্রা বেড়েছে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতেও। ১৩ ডিগ্রির ওপরে উঠে গিয়েছে পানাগড় এবং বোলপুরের তাপমাত্রা। বাঁকুড়া, বর্ধমানে তাপমাত্রা বেড়ে হয়েছে ১৫.৭ ডিগ্রি এবং ১৬.২ ডিগ্রি। তবে জোর ঠান্ডা জারি রয়েছে পুরুলিয়ায়। সেখানে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সোমবার ছিল ১২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরও পড়ুন দূষিত সমুদ্র পরিষ্কার করতে বিশেষ জাহাজ তৈরি করে ফেলল ১২ বছরের এই বালক

তাপমাত্রা যে বাড়বে, সেটা আগে থেকেই আন্দাজ করা গিয়েছিল। বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা জানিয়েছে, এই মুহূর্তে বঙ্গোপসাগরে একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে এবং উত্তর ভারতে রয়েছে একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। বিপরীত ঘূর্ণাবর্তটির ফলে দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে ঢুকছে জলীয় বাষ্প। অন্য দিকে পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ফলে বন্ধ হয়েছে উত্তুরে হাওয়া। এই দুইয়ের প্রভাব কেটে গেলেই দক্ষিণবঙ্গে তাপমাত্রা আবার কমবে বলে জানানো হয়েছে।

সংস্থার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা বলেছেন, বৃহস্পতিবারের পর থেকে তাপমাত্রা ফের কমতে শুরু করবে। কলকাতার পারদ নেমে যেতে পারে ১৫ ডিগ্রির কাছাকাছি। পশ্চিমাঞ্চলেও পারদ ১১ ডিগ্রির কাছাকাছি নেমে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

তবে আসন্ন এই পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ফলে কাশ্মীর এবং হিমাচল প্রদেশে জোর তুষারপাত হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here