খবরঅনলাইন ডেস্ক: কলকাতার শীতপ্রত্যাশীদের আশা ছিল সোমবার আরও কমবে শহরের তাপমাত্রা। কিন্তু সেটা হল না। বরং তা কিছুটা বেড়েই গেল। তবে দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় শীতের দাপট আরও বেড়ে গিয়েছে। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সামান্য বাড়লেও শীতের এই রকম দাপট নতুন বছরের ২ তারিখ পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।

কলকাতা এবং পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের তাপমাত্রা

কলকাতায় সোমবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১১.৬ ডিগ্রি। রবিবার (১১.২ ডিগ্রি) থেকে ০.৪ ডিগ্রি বেড়েছে তাপমাত্রাটি। এই নিয়ে এখনও পর্যন্ত ডিসেম্বরে তিনটে দিন কলকাতার পারদ থাকল ১১ ডিগ্রির ঘরে।

তবে চমক দিয়েছে দমদমের তাপমাত্রা। গত কয়েকদিন ধরেই দমদমে পারদ ছিল কলকাতার থেকে বেশি। এ বার সেটা কমে গিয়েছে। দমদমে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.৮ ডিগ্রি রেকর্ড করা হয়। ব্যারাকপুরে তাপমাত্রা এ দিনও ৮.৮ ডিগ্রি ছিল।

উপকূলবর্তী অঞ্চলেও ঠান্ডা বেশ জমিয়ে পড়েছে। কাঁথি এবং ক্যানিং দুই শহরেই সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি রেকর্ড করা হয়। দিঘায় তাপমাত্রা ছিল ১১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ডায়মন্ড হারবারে পারদ ১২ ডিগ্রি।

পশ্চিমাঞ্চলে জমিয়ে ঠান্ডা

রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে কিন্তু জমিয়ে ঠান্ডা চলছে। কিছু কিছু জায়গায় ঠান্ডার দাপট বেড়েছে। যেমন শ্রীনিকেতনে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে এসেছে ৭.৯ ডিগ্রিতে। তবে সামান্য বেড়েছে পানাগড়ের তাপমাত্রা (৭.৬ ডিগ্রি)।

বাঁকুড়ায় এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৯.৯ ডিগ্রি, আসানসোলে ১০ ডিগ্রি। উত্তরবঙ্গে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বেশ অনেকটাই কমেছে দার্জিলিংয়ে (৩.৪ ডিগ্রি) যদিও সমতলে এখনও সে ভাবে শীতের দেখা নেই। সর্বত্রই তাপমাত্রা ৮ ডিগ্রি থেকে ১০ ডিগ্রির মধ্যে ঘোরাফেরা করছে।

শীতের দাপট একটু কমবে

আগামী ৪৮ ঘণ্টায় শীতের দাপট একটু কমবে, পূর্বাভাস এমনই। উত্তর ভারতে একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা হানা দেওয়ায় কিছুটা বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে উত্তুরে হাওয়া। এর ফলে তাপমাত্রা সামান্য বাড়বে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বেড়ে ১৩ ডিগ্রির ঘরে চলে যেতে পারে। তবে বছর শেষের সময়ে, অর্থাৎ ৩১ ডিসেম্বর এবং ১ জানুয়ারি তাপমাত্রা ফের ১১ ডিগ্রির নীচে চলে যেতে পারে।

তবে নতুন বছর শুরু হলেই ফের বাড়তে শুরু করবে তাপমাত্রা। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে কলকাতার তাপমাত্রা বাড়তে বাড়তে ১৬-১৭ ডিগ্রির ঘরে উঠে যেতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

শৈত্যপ্রবাহে কাঁপছে বাংলাদেশ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন