খবরঅনলাইন ডেস্ক: এক দিনে ১ ডিগ্রিরও বেশি তাপমাত্রার পতন ঘটল কলকাতায়। পশ্চিমাঞ্চলে দখল নিল জোরদার শৈত্যপ্রবাহ। সব মিলিয়ে জানুয়ারির শেষে এসে শীতের দাপট বহু গুণ বাড়ল গোটা রাজ্যে। এখানেই শেষ নয়, ফেব্রুয়ারিতেও রেকর্ড শীতের সম্ভাবনা রাজ্য জুড়ে।

বৃহস্পতিবার পারদ কথায় কেমন

কলকাতায় এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১৩ ডিগ্রি। জানুয়ারির শেষে এই তাপমাত্রাটি এখন স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। শহরের উপকণ্ঠের ব্যারাকপুরে এ দিন পারদ ছিল ১১.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, দমদমে ১১.৬ ডিগ্রি।

Loading videos...

দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে শীতের দাপট বেড়েছে। দক্ষিণবঙ্গে এ দিন শীতলতম স্থান ছিল কাঁথি এবং শান্তিনিকেতন। দুই জায়গাতেই তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৮ ডিগ্রি। আসানসোল, পুরুলিয়া, পানাগড় এবং কৃষ্ণনগরে এ দিন তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ৮.২, ৮.৩, ৯, এবং ৯.৪ ডিগ্রি।

উপকূলবর্তী অঞ্চলের মধ্যে এ দিন দিঘায় তাপমাত্রা ছিল ১২.৫ ডিগ্রি, ডায়মন্ড হারবারে ১২.৪ ডিগ্রি। অন্য দিকে ক্যানিংয়ে তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২ ডিগ্রি।

উত্তরবঙ্গে শীত স্থিতিশীল রয়েছে। দার্জিলিংয়ে এ দিন সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। তবে শিলিগুড়িতে তাপমাত্রা নেমে গিয়েছে ৭.২ ডিগ্রিতে। জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহারে এ দিন তাপমাত্রা ছিল ৮.৮ এবং ৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আরও বাড়বে শীত

শীতের সম্ভবত শেষ এই ইনিংসে তার দাপট ক্রমশ বাড়বে। যদিও মাঝে এক দিনর জন্য তা একটু কমতে পারে। শুক্রবার সকালে কলকাতার তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রির কাছাকাছি নেমে গেলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই। যদিও, শনিবার ফের তা বেড়ে ১৩ ডিগ্রির ঘরে উঠে আসতে পারে। এর পর আরও জোরালো হতে পারে শীত।

রবিবার থেকে ৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত কলকাতার তাপমাত্রা ১০ ডিগ্রি থেকে ১২ ডিগ্রির আশেপাশে ঘোরাফেরা করতে পারে। ৩ তারিখের পরেও সেটা বাড়লেও ১৪-১৫ ডিগ্রির বেশি এখনই উঠবে না। এ দিকে, কলকাতায় শীতের এই দাপট মানে, পশ্চিমাঞ্চলে তাপমাত্রা ফের একবার ৫-৬ ডিগ্রিতে নেমে যেতে পারে। সব মিলিয়ে, শীতের প্রায় শেষ দিকে এসে ফের একবার হাড়কাঁপানো ঠান্ডার চোখরাঙানি গোটা রাজ্যে।

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

দৈনিক সংক্রমণ নামল ১১ হাজারের ঘরে, সুস্থতার হার প্রায় ৯৭ শতাংশ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.