heat wave bengal

ওয়েবডেস্ক: গত কয়েকদিনের মতোই সকাল থেকেই ছড়ি ঘোরাতে শুরু করেছিল সূর্য। মনে হচ্ছিল মঙ্গলবারও চল্লিশ পেরিয়ে একচল্লিশ ছুঁয়ে ফেলবে কলকাতার পারদ। কিন্তু দুপুরের পর স্থানীয় ভাবে তৈরি হওয়া মেঘে শহরে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ায় কিছুটা স্বস্তি পাওয়া গেল। তবে এই স্বস্তি সাময়িক। ৪৮ ঘণ্টা পর থেকে স্বস্তি ফিরবে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর এবং বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমা।

দহন দাপট চললেও এদিন শহরের তাপমাত্রা সোমবারের থেকে এক ডিগ্রি কম ছিল। এর মূল কারণ অবশ্য দুপুরের দিকে ঝোড়ো হাওয়া। সেই হাওয়া না থাকলে তাপমাত্রা আরও চড়তে পারত।

দেখে নেব মঙ্গলবার সর্বোচ্চ পারদ কতো ছিল-

কলকাতা (আলিপুর)- ৩৯.৬, বাঁকুড়া, ৪১.৮, বর্ধমান- ৪০.৯, বহরমপুর ৩৯.২, ডায়মন্ড হারবার ৩৯, দিঘা- ৩৮.৭, হলদিয়া-৩৮, বোলপুর- ৪১, আসানসোল- ৪০.৪, কৃষ্ণনগর- ৩৯.৬, মেদিনীপুর- ৪০.৪।

তবে কলকাতার আলিপুর এবং দমদমে পারদ এখনও চল্লিশ না পেরোলেও, শহরের কিছু অঞ্চলে পারদ ৪০ পেরিয়ে যায়। তবে দুপুরের ঝোড়ো হাওয়ার পর এক ধাক্কায় পারদ ৬-৭ ডিগ্রি করে কমেও যায়। এবার দেখে নেব শহরের কিছু অঞ্চলের সর্বোচ্চ পারদ-

উলটোডাঙা- ৪১, বরাহনগর- ৩৮.৭, এসপ্ল্যানেড- ৪২.৩, বালিগঞ্জ- ৪১.৪, জোকা- ৪০.৭, পাটুলি ৪০.৯।

আগামী ২৪ ঘণ্টায় এই পারদ-দাপট জারি থাকবে কলকাতা-সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গে। তবে বুধবার হয়তো এক ডিগ্রি কমতে পারে পারদ। বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ পারদ অনেকটা কমবে বলে মনে করছেন বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা।

তাঁর মতে, মঙ্গলবার এবং বুধবারই রাজ্যের কিছু অঞ্চলে স্থানীয় ভাবে বজ্রগর্ভ মেঘ থেকে বৃষ্টি হলেও তার থেকে স্বস্তি কিছুই মিলবে না। বৃহস্পতিবারই স্বস্তির ঝড়বৃষ্টি হতে পারে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন অঞ্চলে। সেই স্বস্তির স্বাদ পেতে পারে কলকাতাও।

তবে সপ্তাহান্ত থেকেই বৃষ্টির পরিস্থিতি অনেকটাই অনুকূল হয়ে উঠবে বলে মনে করছে আবহাওয়া দফতর। এমনটা জানিয়েছে ওয়েদার আল্টিমাও।

একটা ব্যাপারে নিশ্চিত, গরমের দিক থেকে সব থেকে খারাপ সময়টা পেরিয়ে যাচ্ছে দক্ষিণবঙ্গ। এবার শুধু পারদ নামার অপেক্ষা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here