kultali

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়, কুলতলি: পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিন কুলতলির মেরিগঞ্জ-১ পঞ্চায়েতের  মেরিগঞ্জ-১-এর ৯/১০ বুথের লাইনে গুলিতে আরিফ আলি গাজি(৩৫) নামে এক তৃণমূল কর্মী খুন হন। ওই ঘটনায় পুলিশ ৩০জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছিল। তবে ঘটনার পর থেকে মূল অভিযুক্ত কুতুবউদ্দিন ঘরামিকে পুলিশ খুঁজছিল। মঙ্গলবার অভিযুক্তকে আদালতে তোলা হয়।

গত সোমবার বারুইপুর থানার পদ্মপুকুর মোড় থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে মেরিগঞ্জ-১ পঞ্চায়েতের বাসিন্দা কুতুবউদ্দিন ঘরামিকে। তাঁর বিরুদ্ধে খুন, অস্ত্র আইন-সহ একাধিক কেস রুজু করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার কুতুবউদ্দিনকে বারুইপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক ১৪ দিনের জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় নেতৃত্বের দাবি, অভিযুক্ত সিপিএম আশ্রিত দুষ্কৃতী। ভোটের দিন নিহতের ভাই আসিফ গাজিও দাবি করেন, “দাদাকে সিপিএম এবং এসইউসির লোকেরা খুন করেছে”।

এ বিষয়ে কুলতলির বিধায়ক সিপিএমের রামশংকর হালদার অভিযুক্তকে নিজেদের দলের কর্মী নয় বলেই দাবি করেছেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here