cpim wallmart

কলকাতা: পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর প্রথম রাজ্য কমিটির বৈঠক শেষ হল সিপিএমের। গত বুধবার এবং বৃহস্পতিবার, দু’দিনের এই বৈঠকে মুখ্য আলোচ্য বিষয় ছিলো পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রাথমিক পর্যালোচনা।

পঞ্চায়েত ভোটের মনোনয়ন পর্ব থেকেই বিরোধীদের উপর শাসক দলের আক্রমণের অভিযোগ উঠেছে। সিপিএম-সহ বামপন্থী দলগুলি এর প্রতিবাদে একাধিক সভা-মিছিলের আয়োজন করেছে ভোট-পর্বে। তবে এ বারের নির্বাচনে যে শাসক দলের সন্ত্রাস লাগাম ছাড়িয়েছে। রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র বলেছেন, “সাতের দশকের আধা ফ্যাসিবাদী সন্ত্রাসের থেকেও ভয়াবহ সন্ত্রাসের মোকাবিলা করেই লড়াই হয়েছে। জনগণ ভয়ভীতির পরিবেশ কাটাচ্ছেন। আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে জনগণকে সমবেত করেই প্রতিরোধের এলাকা সম্প্রসারণ করতে হবে, নির্দিষ্ট সাংগঠনিক পদক্ষেপ নিয়ে প্রতিরোধের এলাকাকে দ্বিগুণ-তিনগুণ করতে হবে”।

ওই বৈঠকে বিভিন্ন জেলা কমিটির কাছ থেকে প্রাপ্ত রিপোর্ট নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়। পঞ্চায়েত-পরবর্তী পরিস্থিতিতেও যে ভাবে জেলায় জেলায় দলীয় কর্মী-সমর্থকেরা আক্রান্ত হচ্ছেন, তা প্রতিরোধে যথোপযুক্ত পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়টিকে অগ্রাধিকার দেওয়া হয়।

পাশাপাশি গেরুয়া শিবিরের উত্থান প্রসঙ্গেও বিশদ আলোচনা হয় ওই বৈঠকে। পার্টির সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি বলেন, “নয়া উদারনীতির বিরুদ্ধে জনগণের অসন্তোষকে বামপন্থীদের জোরালো উপস্থিতির অভাবে দক্ষিণপন্থী শক্তি ব্যবহার করছে। এটি বিশ্বব্যাপী প্রবণতা। ভারতে সাম্প্রদায়িকতার ব্যবহার এই প্রবণতারই অংশ। জনগণকে জীবনজীবিকার সমস্যার কথা ভুলিয়ে দিতে যুক্তির বদলে যুক্তিহীনতাকে প্রতিষ্ঠিত করা হচ্ছে। সঙ্ঘ পরিবার- বি জে পি-র প্রচারের অভিমুখই তাই। পশ্চিমবঙ্গেও মতাদর্শের জগতে নিবিড় সংগ্রাম চালিয়ে এই শক্তির উত্থানকে প্রতিহত করতে হবে। তৃণমূল শাসনে সঙ্ঘ পরিবার এই রাজ্যে সংগঠন বিস্তার করেছে। বাংলায় তাই চিন্তার সংগ্রাম তীব্র করতে হবে। গ্রাম স্তরে সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে বড় লড়াই গড়ে তুলতে হবে”।

এ দিনের সভায় রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলী গঠন করা হয়েছে। সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্যরা হলেন বিমান বসু, সূর্যকান্ত মিশ্র, মহম্মদ সেলিম, মৃদুল দে, নৃপেন চৌধুরী, দীপক দাশগুপ্ত, শ্রীদীপ ভট্টাচার্য, মিনতি ঘোষ, রামচন্দ্র ডোম, রবীন দেব, অমিয় পাত্র, সুজন চক্রবর্তী, গৌতম দেব, অশোক ভট্টাচার্য, আভাস রায়চৌধুরী, মানব মুখার্জি। সম্পাদকমণ্ডলীতে স্থায়ী আমন্ত্রিত সদস্য অনাদি সাহু এবং সুমিত দে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here