couurt

ওয়েবডেস্ক: সময় মূল্যবান। তাই সময়কে নষ্ট করতে দেওয়া যায় না। এই পর্যবেক্ষণের উপর ভিত্তি করে স্পেশাল এডুকেটর এবং ডিএলএড (স্পেশাল এডুকেশন) পড়ুয়াদের টেট পরীক্ষায় বসার অনুমতি দিল কলকাতা হাইকোর্ট।

২০১৫-১৭ শিক্ষাবর্ষের বিএলএড এবং ডিএলএড কোর্সের প্রায় ২০০ পড়ুয়া টেট পরীক্ষায় বসতে চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। সেই মামলার শুনানিতে কলকাতা হাইকোর্ট শুক্রবার নির্দেশ দিয়েছে, মামলাকারীরা পরীক্ষায় বসতে পারবেন। তবে যারা মামলা করেননি, তাঁদের জন্য এই নির্দেশ বৈধ নয়।

মামলাকারীরা অনলাইনে ফর্ম পূরণ করতে পারবেন। যাঁদের পক্ষে অনলাইনে ফর্ম পূরণ করা সম্ভব হবে না তাঁরা যাতে অফলাইনে ফর্ম পূরণ করতে পারেন সে বিষয়টি পর্ষদকে বিবেচনা করতে হবে।

তবে, আদালতের নির্দেশ ছাড়া মামলাকারী প্রার্থীদের ফলপ্রকাশ করা যাবে না। এর ফলে মামলার চূড়ান্ত শুনানির উপর মামলাকারীদের চাকরির ভবিষ্যৎ নির্ভর করবে।

টেট পরীক্ষার একগুচ্ছ সম্ভাব্য প্রশ্নোত্তর

শুনানিতে আদালত বলে, সুপ্রিম কোর্ট এবং এনসিটিই-র গাইড লাইন অনুযায়ী যারা এই কোর্স করছে তাদের পরীক্ষায় বসার অনুমতি দেওয়া যায়। সেই কারণের আদালত মামলাকারীদের পরীক্ষায় বসার অনুমতি দিচ্ছে।

অন্যদিকে আদালত জানিয়েছে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্পেশাল এডুকেটরাও পরীক্ষায় বসতে পারবেন। উচ্চমাধ্যমিকে ৫০ শতাংশের কম নম্বর পাওয়া এডুকেটরদের পরীক্ষায় বসার নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here