H S examinees
উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী। ছবি রাজীব বসু।

নিজস্ব প্রতিনিধি: উচ্চশিক্ষা সংসদের কড়া নির্দেশ মানতে গিয়ে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার প্রথম দিনেই সমস্যায় জেরবার হয় পরীক্ষার্থীরা। পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগে পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছে গেলেও সংসদের নির্দেশিকার কারণে অনেক স্কুলই গেট খোলেনি। ফলে মঙ্গলবার সকালের বৃষ্টির জেরে নাজেহাল হয় পরীক্ষার্থীরা। সমস্যায় পড়েন তাদের অভিভাবকরাও। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ সংসদ। তাদের স্পষ্ট বার্তা, পরীক্ষার দিন প্রতিকূল পরিস্থিতি হলে সংশ্লিষ্ট স্কুলগুলোকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে হবে। স্কুলের ভেনু সুপারভাইজার এই সিদ্ধান্ত নেবেন।

এ বিষয়ে সংসদ সচিব তাপস মুখোপাধ্যায় বলেন, “নিরাপত্তার খাতিরেই স্কুলগুলো নিয়ম মানতে বাধ্য হয়েছে। তবে পরীক্ষার্থীদের ব্যাগ রাখার ক্ষেত্রে স্কুলের প্রধান শিক্ষককে ব্যবস্থা নিতে হবে, যাতে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে পড়ুয়াদের কোনো অসুবিধা না হয়।”

আরও পড়ুন ভোরের পর বিকেলে ফের ঝড়বৃষ্টি কলকাতায়, বরফে ঢাকল সান্দাকফু

চলতি বছরে সংসদ নয়া নিয়ম চালু করে জানায়, পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা আগে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষাকেন্দ্রে ঢুকতে হবে। কিন্তু পরীক্ষাকেন্দ্রে ব্যাগ নিয়ে ঢোকা যাবে না, এমন কোনো নির্দেশ পড়ুয়াদের কাছে ছিল না। ফলে বহু জায়গায় বৃষ্টির মধ্যে পরীক্ষাকেন্দ্রে পৌঁছে তারা ব্যাপক হয়রানির শিকার হয়। অনেকেই পরীক্ষাকেন্দ্রের পাশে কোনো দোকান বা বাড়িতে ব্যাগ রাখতে দেওয়ার অনুরোধ জানায়। পরীক্ষাকেন্দ্রের বাইরে ব্যাগ রাখা হলেও তার নিরাপত্তার কোনো ব্যবস্থা ছিল না।

বজবজের প্রাণকৃষ্ণ হাইস্কুলের এক পড়ুয়ার সিট পড়েছে কালীপুর হাইস্কুলে। তার অভিযোগ, কোনো ভাবেই ব্যাগ নিয়ে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। অনুরোধ করেও কোনো ফল হয়নি। ফলে বতাগ রাখতে হয় স্কুলের সামনে বিদ্যাসাগর মূর্তির রেলিংয়ে। ইউনাইটেড মিশনারি গার্লস হাইস্কুলের পড়ুয়ার পরীক্ষাকেন্দ্র রমেশ মিত্র গার্লস হাইস্কুল। ওই পড়ুয়ার অভিযোগ, পরীক্ষাকেন্দ্রে তাদের ব্যাগ রাখার ব্যবস্থা করা হয়নি।

এই পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার ইংরেজি পরীক্ষা। পরীক্ষার্থীদের যাতে কোনো সমস্যা না হয়, সে দিকেই নজর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে সংসদ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here