যে দু’টি কারণে বঙ্গোপসাগরের আসন্ন নিম্নচাপ ঘুরতে পারে বাংলার দিকে

1

ওয়েবডেস্ক: নিম্নচাপ যে তৈরি হচ্ছে সেটা নিশ্চিত। সেটা শক্তি বাড়িয়ে অতি গভীর নিম্নচাপ হবে, সেটাও বলে দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিতে পারে নিম্নচাপ, সেই ব্যাপারে ইতিমধ্যেই মতামত দিচ্ছে বেশ কিছু আবহাওয়া সংস্থা। আপাতত তার সম্ভাব্য গতিপথ অন্ধ্রপ্রদেশের দিকে।

আবহাওয়া দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, আগামী সপ্তাহে সেটি অন্ধপ্রদেশ উপকূলের দিকে এগিয়ে যাবে। কিন্তু অন্ধ্রে আঘাত হানবে কি না, সেটা বলা হয়নি।

এখানেই রয়েছে একটি মোচড়। ওই নিম্নচাপটি ভারতীয় ভূখণ্ডের দিকে এগিয়ে আসার সময়ে এমন দু’টি ঘটনা ঘটতে পারে যার ফলে তার অভিমুখ বদলে যেতে পারে বাংলার দিকে।

তার মধ্যে একটি হল উত্তর ভারত থেকে আসা একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। আগামী সপ্তাহে একটি শক্তিশালী ঝঞ্ঝা উত্তর ভারতে চলে আসতে পারে। সাধারণত বঙ্গোপসাগরের কোনো কোনো নিম্নচাপ ভারতীয় উপকূলের দিকে আসার সময়ে যদি উত্তর দিক থেকে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা আসে, তা হলে তার অভিমুখ ঘুরে যায়। এ বারও তেমনই কিছু হতে পারে।

আরও পড়ুন শিবসেনার সঙ্গে জোট করে সরকার গঠন মহারাষ্ট্রে? মুখ খুললেন শরদ পওয়ার

আরও একটি ঘটনা হল, আরব সাগরে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘মহা।’ বর্তমানে ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের পশ্চিম উপকূল থেকে দূরে সরে যাওয়ার ইঙ্গিত দিলেও, আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন সেটি আবার গুজরাত উপকূলের দিকে ঘুরে যাবে।

আগামী ৬-৭ সেপ্টেম্বর, ঘূর্ণিঝড়টি গুজরাতের পোরবন্দরে আছড়ে পড়তে পারে বলে জানানো হয়েছে। ওই ঘূর্ণিঝড়েরটির ওপরেও বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপটি নির্ভর করছে। ‘মহা’ই বঙ্গোপসাগরের নিম্নচাপকে বাংলার দিকে ঘোরাতে পারে।

তবে আরও একটি মত হল, নিম্নচাপটি শক্তি বাড়িয়ে ঘূর্ণিঝড়ে রূপান্তরিত হলেও, বাংলার উপকূলের আসার আগেই তা দুর্বল হয়ে যেতে পারে।

তবে নিম্নচাপের আচার আচরণ যেমনই হোক, আগামী ৮ থেকে ১০ নভেম্বর দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে কমবেশি ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা ক্রমশ জোরালো হচ্ছে।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.