cpim

ওয়েবডেস্ক: পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে মুখ খুললেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। ভোট ঘোষণা হওয়ার পর থেকে রাজ্য জুড়ে সিপিএমের কর্মী-সমর্থকরা যে ভাবে আক্রমণের শিকার হয়ে আসছেন, তাতে দলের মনোবল বৃদ্ধিতে এই বিবৃতি অনেকটাই কার্যকরী বলে ধরে নেওয়া হচ্ছে। হু-বহু তুলে ধরা হল সেই বিবৃতি।

“গত ৬মাস আমি গৃহবন্দি। শারীরিক অসুস্থতার কারণে আমি মাঠে-ময়দানে যেতে অক্ষম। বিগত কয়েকদিন ধরে পার্টি কর্মী, পঞ্চায়েত নির্বাচনের প্রার্থী ও তাঁদের পরিবারগুলির উপর আক্রমণ করে তাঁদের নির্বাচন থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হচ্ছে। এতে আমি উদ্বিগ্ন এবং সেহেতু এই বিবৃতি।

পশ্চিমবাংলায় পঞ্চায়েত নির্বাচন আসন্ন। পঞ্চায়েতী ব্যবস্থা এ রাজ্যে আর্থিক, সামাজিক, রাজনৈতিক সবদিক থেকেই গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে রয়েছে। এই পঞ্চায়েতী ব্যবস্থার পথিকৃৎ ও রূপকার বামফ্রন্ট। এই ব্যবস্থাকে রাজ্যের বর্তমান শাসক অনেকটা কলুষিত করেছে। জনগণের স্বাধীন অধিকার কেড়ে নিয়েছে শাসকদলের কর্মীরা। ভয়ঙ্কর দুর্নীতির আশ্রয় নিয়েছে।

আমরা এই অবস্থার পরিবর্তন চাই-ই। পঞ্চায়েতের উপর জনগণের কর্তৃত্ব পুন:প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এই লক্ষ্যে আমার আবেদন, আমাদের পার্টির সমস্ত কর্মী এবং বাম শিবিরের সমস্ত কর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হন। জনসাধারণের কাছে আমাদের পৌঁছতেই হবে, এবং তা নির্বাচন থেকে সরে এসে নয়। আক্রমণ সন্ত্রাসকে রুখে জনগণকে নিয়েই এগোতে হবে। কারণ পঞ্চায়েত নির্বাচনের লড়াই রুটি-রুজি, জীবন-জীবিকার লড়াই। এর জন্য এ রাজ্যের শাসকদলকে যেমন পরাস্ত করতে হবে তেমনই বিজেপি’র জয়ের কলঙ্ক থেকে পশ্চিমবঙ্গকে মুক্ত রাখতে হবে।

আমার আবেদন প্রতিটি কেন্দ্রে, প্রতিটি বুথে জনসমর্থনকে শক্ত জমির ওপর দাঁড় করান। নির্বাচনী সংগ্রামের শীর্ষে আমরা পৌছেছি। এই সংগ্রামকে সফল লক্ষ্যে নিয়ে চলুন। আমি বামপন্থা ও মানুষের শক্তিতে বিশ্বাসী”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here