bjp

ওয়েবডেস্ক: রাজ্য নির্বাচন কমিশনের ঘোষণা মতো আগামী ১৪ মে পঞ্চায়েত ভোট হচ্ছে ধরে নিয়েই প্রচারে নেমেছে শাসক-বিরোধী সব ক’টি রাজনৈতিক দল। আদালতের রায়ের দিকে চেয়ে বসলে থাকলে ভোট প্রচারে খামতি হতে পারে ধরে নিয়েই বিজেপিও দক্ষিণ থেকে উত্তর, গোটা রাজ্য জুড়ে প্রচার প্রক্রিয়া জারি রেখেছে। তবে দক্ষিণে ততটা সুবিধা না হলেও উত্তরে যে দল অন্তত একটি জেলার দখল নিতে চলেছে, সে বিষয়ে আশ্বস্ত গেরুয়া শিবির।

বিজেপির এক রাজ্য নেতৃত্বের কথায়, “জলপাইগুড়ি এবং দক্ষিণ দিনাজপুরের মধ্যে একটি জেলার পরিষদ আমাদের হাতে এলে অবাক হব না”।

কয়েক দিন আগেও দলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে পাঠানো একটি রিপোর্টে রাজ্য বিজেপি দাবি করেছিল, পশ্চিমবঙ্গের আটটি জেলায় তারা যথেষ্ট ভালো ফল করতে চলেছে। সেখানে জেলা দখলের নির্দিষ্ট কোনো তথ্য উল্লেখ ছিল না। পঞ্চায়েতের তিনটি স্তরের মধ্যে জেলা পরিষদে আশাব্যঞ্জক ফল করার নিরিখেই ওই আটটি জেলার কথা উল্লেখ করা হয়েছিল। কিন্তু পঞ্চায়েত ভোটের প্রায় কাছাকাছি এসে দাবি করা হচ্ছে, আস্ত একটি জেলা তারা জিতে নিতে পারে উত্তরবঙ্গ থেকে। ঠিক কী কারণে, এই দুই জেলা নিয়ে এতটা আশাবাদী বিজেপি?

আরও পড়ুন: মহেশতলা উপনির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর নাম চুড়ান্ত করে ফেলল রাজ্য বিজেপি

এ বিষয়ে আশার সঞ্চার হয়েছে তৃণমূল-ত্যাগী বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের পরিকল্পনায়। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর থেকেই এই দুই জেলায় বিক্ষুব্ধ তৃণমূল নেতা-কর্মী-সমর্থকদের সঙ্গে নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ রেখে চলেছেন তিনি। ফলে জেলা পরিষদ থেকে গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রায় সমস্ত আসনেই প্রার্থী দিতে সক্ষম হয়েছে বিজেপি। এ ছাড়া তৃণমূলের প্রতীক না পেয়ে যাঁরা নির্দল হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন, তাঁদের সঙ্গেও নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষার কাজটা করছেন মুকুলবাবু।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here