norwester
আগামী কয়েকদিন, একাধিক কালবৈশাখী আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা!

ওয়েবডেস্ক: শনিবার সন্ধ্যায় কোথাও কোথাও হালকা ঝড়বৃষ্টি হতে পারে। তবে রবিবার রাত থেকে পরবর্তী চার দিন ভালো রকম ঝড়বৃষ্টি হতে পারে গোটা পশ্চিমবঙ্গে। একাধিক জোরালো কালবৈশাখী আছড়ে পড়তে পারে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায়। উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের উত্তরাংশে শিলাবৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে বজ্রপাত সঙ্গে নিয়ে হতে পারে কয়েক দফা মুষলধারে বৃষ্টি। তবে তার ছোটোখাটো একটা ট্রেলার শুক্রবার সন্ধ্যাতেও দেখা যাচ্ছে। বাঁকুড়া, বর্ধমান, নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, উত্তর ২৪ পরগণার বেশ কিছু অঞ্চলে ঝড়বৃষ্টি হচ্ছে।

অন্য বারের থেকে এ বার মার্চে এখনও পর্যন্ত স্বাভাবিক রয়েছে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার গণ্ডি। তবে আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তা বেশ কিছুটা বাড়তে পারে। কলকাতায় পারদ ছুঁতে পারে ৩৭ ডিগ্রি। অন্য দিকে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে পারদ আরও কিছুটা বেশি উঠতে পারে। তার পরেই রবিবার রাতের পর থেকেই মনোরম আবহাওয়া হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন নির্বাচনের আগে ধাক্কা খেলেন সদ্য কংগ্রেসে যোগ দেওয়া হার্দিক পটেল

বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার তরফ থেকে জানানো হয়েছে, পরিমণ্ডলে একাধিক অনুঘটক থাকার ফলে এই ঝড়বৃষ্টির পরিস্থিতি তৈরি হবে রাজ্যে। সংস্থার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা জানাচ্ছেন, “উত্তরপূর্ব ভারত এবং লাগোয়া বাংলাদেশের ওপরে ঘূর্ণাবর্ত ও বঙ্গোপসাগরের ওপরে থাকা একটি বিপরীত ঘূর্ণাবর্তের জেরে প্রচুর পরিমাণে জলীয় বাষ্প ঢুকতে শুরু করেছে রাজ্যে। এ ছাড়া উত্তর ভারতের দিক থেকে একটি পশ্চিমী ঝঞ্ঝাও পূর্ব ভারতের দিকে আসছে।” পশ্চিমী ঝঞ্ঝার ঠান্ডা বাতাসের সঙ্গে সংমিশ্রণ ঘটবে এই জলীয় বাষ্পের। সেই সঙ্গে গত কয়েক দিনের গরমে তেতে উঠেছে ছোটোনাগপুর মালভূমি অঞ্চল। সেই গরম হাওয়াও ঢুকে পড়বে ওই সংমিশ্রিত বাতাসের মধ্যে। ফলে তৈরি হবে একটি অক্ষরেখা। এর প্রভাবেই রাজ্য জুড়ে পালা চলবে ঝড়বৃষ্টির। তবে সব জায়গায় একই রকম প্রভাব থাকবে না এই ঝড়ের।

কোথায় কেমন ঝড়বৃষ্টি হতে পারে, বিস্তারিত জেনে নিন-

কলকাতা, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া, পশ্চিম বর্ধমান, হুগলির দক্ষিণাংশ, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম বাঁকুড়া এবং দুই ২৪ পরগণা – এই সব অঞ্চলে রবিবার এবং সোমবার মুষলধারে বৃষ্টি নিয়ে মাঝারি থেকে জোরালো কালবৈশাখী হতে পারে। পাশাপাশি ২ এবং ৩ এপ্রিল হালকা ঝড়বৃষ্টি হতে পারে।

নদিয়া, উত্তর হগলি, পূর্ব বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, মালদহ এবং দুই দিনাজপুর – রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার ৪ এপ্রিল পর্যন্ত প্রবল বজ্রপাতের সঙ্গে একাধিক তীব্র কালবৈশাখী হতে পারে। ভারী বৃষ্টি সঙ্গে নিয়ে হতে পারে শিলাবৃষ্টিও।

দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার কোচবিহার – তরাই, ডুয়ার্স-সহ সমতলে তীব্র কালবৈশাখী হতে পারে। সেই সঙ্গে মাঝেমধ্যে ভারী বৃষ্টি এবং শিলাবৃষ্টি হতে পারে। অন্য দিকে পাহাড়ে হালকা ঝড় সঙ্গে জোর বৃষ্টি হতে পারে। সান্দাকফু অঞ্চলে ফের একবার তুষারপাত হতে পারে।

সব মিলিয়ে রবিবার রাত থেকে আগামী এক সপ্তাহ গরম থেকে বেশ কিছুটা স্বস্তি পাবেন গোটা রাজ্যের মানুষ।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here