প্রতীকী ছবি

কলকাতা: ২০১৬-এর পর থেকে প্রেমিক স্নেহাশিসের কাছছাড়া পায়েল। দু’ বছর পর আবার পুরোনো প্রেমিককে ফিরে পেতে চলেছে সে। আলিপুর চিড়িয়াখানায় বাঘের বংশবৃদ্ধির জন্যই শিলিগুড়ির বেঙ্গল সাফারি পার্ক থেকে নিয়ে আসা হবে স্নেহাশিসকে। তবে এটা স্থায়ী বন্দোবস্ত নয়।

বেঙ্গল সাফারি পার্কে বাঘের সংখ্যা বাড়ানোর জন্য ২০১৬ সালে আলিপুর চিড়িয়াখানা থেকে স্নেহাশিসকে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। এখন পায়েলকে ফের সন্তানসম্ভবা করে তোলার জন্য স্নেহাশিসেরই ডাক পড়েছে চিড়িয়াখানায়।

আরও পড়ুন ছটপুজোয় ‘ঘাট’ বিক্রির অভিযোগ ঘিরে চাঞ্চল্য

এই মুহূর্তে চিড়িয়াখানায় তিনটে স্ত্রী বাঘ রয়েছে। এর মধ্যে পায়েলের প্রজনন সম্ভব। তার বয়স ৬ বছর। এ ছাড়াও রয়েছে ১০ বছরের রানি এবং ১৩ বছরের রূপা। বিশাল ও ঋষি নামে দুই সাদা বাঘ রয়েছে চিড়িয়াখানায়। এ ছাড়া রাজা ও সুন্দরবন নামে দুই রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারও রয়েছে চিড়িয়াখানায়।

আলিপুর চিড়িয়াখানার অধিকর্তা বলেন, “যে তিনটে বাঘিনি রয়েছে তাদের মধ্যে একমাত্র পায়েলেরই প্রজননক্ষমতা রয়েছে। ৫ থেকে ৮ বছর বয়সি বাঘিনিদের প্রজনন ক্ষমতা সব থেকে বেশি থাকে।” আপাতত তাই স্নেহাশিস এবং পায়েলকে দিয়ে চিড়িয়াখানার বাঘের সংখ্যা বাড়ানোর আশায় কর্তৃপক্ষ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here