মেলার নিরাপত্তাকে আঁটোসাঁটো করতে গঙ্গাসাগরে তৈরি হচ্ছে তীর্থসাথী

এই মেগা কন্ট্রোলরুমে বসছে প্রায় ৫৫টি জায়ান্ট স্ক্রিন। এই সব স্ক্রিনেই ধরা পড়বে ওই সিসিটিভির ছবি। মেলা উপলক্ষ্যে কচুবেড়িয়া ঘাট থেকে শুরু করে কপিলমুনির মন্দির, সমুদ্র সৈকত-সহ মেলার প্রায় সব জায়গাই সিসিটিভিতে মুড়ে ফেলা হচ্ছে।

0
gangasagar

ওয়েবডেস্ক: গঙ্গাসাগর মেলায় নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে তৈরি হয়েছে একটি বিশেষ কন্ট্রোলরুম। তীর্থসাথী নামক এই মেগা কন্ট্রোলরুম থেকেই নজরদারি চালানো হবে গোটা মেলা চত্বরের ওপরে।

মেলার নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে আটোসাঁটো করতে মেলা চত্বরে বসছে প্রায় হাজারটি সিসিটিভি। তীর্থসাথী থেকেই এই সিসিটিভিগুলিকে মনিটরিং করা হবে বলে জানিয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলা প্রশাসন।

এই মেগা কন্ট্রোলরুমে বসছে প্রায় ৫৫টি জায়ান্ট স্ক্রিন। এই সব স্ক্রিনেই ধরা পড়বে ওই সিসিটিভির ছবি। মেলা উপলক্ষ্যে কচুবেড়িয়া ঘাট থেকে শুরু করে কপিলমুনির মন্দির, সমুদ্র সৈকত-সহ মেলার প্রায় সব জায়গাই সিসিটিভিতে মুড়ে ফেলা হচ্ছে। কোথাও কোনো রকম বিশৃঙ্খলা ঘটলে, এই কন্ট্রোলরুম থেকে নির্দেশ যাবে পুলিশের কাছে।

আরও পড়ুন পলাশি, মায়াপুর, নবদ্বীপ নিয়ে বিশেষ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

গত বছর মেলাচত্বরে প্রায় ৬০০টি সিসিটিভি লাগানো ছিল। এ বার সেই সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। কোথাও কোনো তীর্থযাত্রী সমস্যায় পড়লে বা কোনো রকম বিশৃঙ্খলা তৈরি হলে সঙ্গে সঙ্গে সেই জায়গার অফিসার ইনচার্জকে নির্দেশ দেওয়া হবে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য।

তীর্থসাথী থেকে জায়ান্ট স্ক্রিনের মাধ্যমে মেলা চত্বরের বিভিন্ন জায়গার সিসিটিভি মনিটরিং করার পাশাপাশি সরাসরি নবান্ন থেকে গঙ্গাসাগর মেলার খুঁটিনাটি মনিটরিং করা যাবে, এমন ব্যবস্থাও করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসনের উচ্চপদস্থ কর্তারা এখান থেকেই মেলা পরিচালনা করতে পারবেন বলে দাবি কর্মরত টেকনিশিয়ানদের।

সব মিলিয়ে গঙ্গাসাগর মেলাকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তা ব্যবস্থা এ বার আরও জোরদার করা হয়েছে।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন