মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৫! যোগীর রাজ্যে যাচ্ছে তৃণমূল

0
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: নাগরিকত্ব (সংশোধনী) আইন (সিএএ) ২০১৯ নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ। উত্তর-পূর্ব ভারত থেকে বিক্ষোভের আগুন ছড়িয়েছে বিভিন্ন রাজ্যে। গত ১০ ডিসেম্বর থেকে থেকে উত্তরপ্রদেশে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষে ১৫ বিক্ষোভকারীর। এমন পরিস্থিতিতে সে রাজ্য যাচ্ছে তৃণমূলের প্রতিনিধি দল।

তৃণমূল সূত্রে খবর, আগামী রবিবার লখনউ যাচ্ছে প্রাক্তন সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদীর নেতৃত্বে চার সদস্যের প্রতিনিধি দল। ওই প্রতিনিধি দলে দীনেশ ছাড়াও থাকবেন সাংসদ প্রতিমা মণ্ডল, নাদিমুল হক এবং আবিররঞ্জন বিশ্বাস। তাঁরা লখনউ গিয়ে নিহত এবং আহতদের পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করবেন।

এর আগে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি (এনআরসি) নিয়ে উত্তাল অসমে প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গের শাসক দল। কিন্তু তাঁদের শহরে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হয়নি। বিমানবন্দরে বেশ কয়েকঘণ্টা বসিয়ে রাখার পর তৃণমূল প্রতিনিধি দলকে কলকাতায় ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

এ ক্ষেত্রেও উত্তরপ্রদেশে গিয়ে তাঁরা লখনউয়ে ঢোকার অনুমতি পাবেন কি না, সে বিষয়ে সংশয় রয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, উত্তরপ্রদেশের বেশ কিছু এলাকায় দীর্ঘমেয়াদি ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। আগামী ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত লখনউ-সহ বেশ কিছু জায়গায় বলবৎ হয়েছে ১৪৪ ধারা। বাতিল করা হয়েছে রাজ্যের টেট পরীক্ষা। যা আগামী রবিবার হওয়ার কথা ছিল। স্বাভাবিক ভাবেই তৃণমূল প্রতিনিধি দলের প্রবেশাধিকার নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

[ আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে হিংসায় মৃত বেড়ে ১৫, পুলিশের দাবি গুলি তারা চালায়নি ]

এখনও পর্যন্ত যা খবর, উত্তরপ্রদেশে ১৫ জন বিক্ষোভকারীর মৃত্যু হয়েছে। আহতের সংখ্যা কয়েকশো। প্রায় ৪০ জনকে হিংসা ছড়ানো এবং অশান্তি পাকানোর অভিযোগে আটক করা হয়েছে।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.