Connect with us

রাজ্য

মুকুলের গেমপ্ল্যান ভেস্তে দিয়ে অভিষেকের মাস্টারস্ট্রোক?

Abhishek Banerjee and Mukul Roy

ওয়েবডেস্ক: তারকেশ্বর বিধানসভা কেন্দ্রের অন্তর্গত দু’টি গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল তৃণমূলের হাতে থেকে বিজেপির হাতে চলে এসেছে বলে দাবি করেছিলেন মুকুল রায়। গত মঙ্গলবার রাজ্য সদর দফতরে তিনি বেশ কয়েকজনকে হাজির করে দাবি করেন, তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যরা বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। কিন্তু পর দিনই ছবিটা আমূল বদলে গেল তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাংবাদিক বৈঠকের পর। এ দিন তিনি চাঁপাডাঙা এবং তালপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যদের সঙ্গে নিয়েই তৃণমূল ভবন থেকে সাংবাদিক বৈঠক করেন।

এ দিন অভিষেক সাংবাদিক বৈঠকে স্পষ্টতই জানিয়ে দেন, তালপুর ও চাঁপাডাঙা গ্রাম পঞ্চায়েত তৃণমূল কংগ্রেসের দখলেই রয়েছেন। চাঁপাডাঙা গ্রাম পঞ্চায়েতের ২৭ জন সদস্য তৃণমূলেই আছেন। তিনি বলেন, “এখানে দলবদলের কোনো বিষয় নেই। এঁরা তৃণমূলেই ছিলেন, জানিয়েছেন তাঁরা তৃণমূলেই আছেন। তবে বেশ কয়েক দিন বন্দুকের নলের সামনে দাঁড় করিয়ে দল বদল করছে বিজেপি। কেই আবার টাকার লোভে এ সব করছে। তৃণমূলের সঙ্গে যাঁরা ছিলেন, তাঁরা আছেন। যাঁরা ভুল বুঝে চলে গিয়েছিলেন, তাঁদেরও স্বাগত। কিন্তু যাঁরা টাকার লোভে দলবদল করেছেন, তাঁদের জন্য তৃণমূলের দরজা বন্ধ”।

এ দিন অভিষেক কড়াভাষায় সমালোচনা করেন মুকুলের। তিনি বলেন, “এখন নারদা-সারদা থেকে পিঠ বাঁচাতে আর দিল্লির নেতাদের কাছে নম্বর বাড়ানোর জন্য মুকুল রায় বলছেন, সিঙ্গুর আন্দোলন ভুল ছিল। ওই আন্দোলন সঠিক না থাকলে সুপ্রিম কোর্ট কৃষকের জমি ফেরতের নির্দেশ দিল কেন? এমন মন্তব্য করে তিনি আদতে সুপ্রিম কোর্টেকে অবমাননা করছেন। আর এতই যদি মনে হয় সিঙ্গুর আন্দোলন ভুল ছিল, তা হলে তখন দল ছাড়লেন না কেন”?

মঙ্গলবারের দলবদল প্রসঙ্গে অভিষেকের কটাক্ষ, “চারটে লোককে ধরে নিয়ে এসে বলছে, পুরো গ্রাম পঞ্চায়েতের দখল নিয়ে নিয়েছে বিজেপি। সাংবাদিকদের তো প্রশ্ন করা উচিত ছিল, আপনার পিছনে মাত্র চারটে লোক, পুরো গ্রাম পঞ্চায়েত কী ভাবে দখল করলেন? আসলে কিছু মিডিয়া বিজেপির মতো করেই চলছে। কোনো তথ্য সঠিক কি না, তা সংবাদ মাধ্যমের যাচাই করে খবর পরিবেশন করা প্রয়োজন”।

রাজ্য

প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফলাফল, ভরতি কবে এবং কী ভাবে?

দীর্ঘ ১৩৯ দিন পর ফল ঘোষণার পর স্বাভাবিক ভাবেই এ বার চলে আসে একাদশ শ্রেণীতে ভরতি হওয়ার পালা।

কলকাতা: বুধবার প্রকাশিত হয়েছে রাজ্যের মাধ্যমিক পরীক্ষার (Madhyamik Examination) ফলাফল। দীর্ঘ ১৩৯ দিন পর ফল ঘোষণার পর স্বাভাবিক ভাবেই এ বার চলে আসে একাদশ শ্রেণীতে ভরতি হওয়ার পালা।

চলতি বছরে পাশের হার আগের বছরের তুলনায় সামান্য বেড়ে হয়েছে ৮৬.৩৪ শতাংশ। ছাত্রদের মধ্যে পাশের হার ৮৯.৮৭ শতাংশ। ছাত্রীদের মধ্যে পাশের হার ৮৩.৪৭ শতাংশ।

ভরতি কবে?

এ দিন ফল প্রকাশ হলেও মার্কশিট হাতে পাওয়া যাবে আগামী ২২ জুলাই থেকে। তার পরই শুরু হবে ভরতি প্রক্রিয়া।

রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee) জানিয়েছেন, আগামী ১-১০ আগস্টের মধ্যে পড়ুয়ারা স্কুলে ভরতি হতে পারেব। আবার যারা অন্য স্কুলে ভরতি হবে, তারা ১১-১৩ আগস্ট পর্যন্ত সময় পাবে।

ভরতি কী ভাবে?

আগামী ২২ এবং ২৩ জুলাই নিজের নিজের স্কুল থেকে মার্কশিট সংগ্রহ করা যাবে। তার আগে স্কুলগুলিকে ভালো করে স্যানিটাইজ করা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে গিয়ে মার্কশিট আনার বদলে তাঁদের অভিভাবকদের হাতে মার্কশিট তুলে দেবেন স্কুল কর্তৃপক্ষ। দিনক্ষণও তাঁরাই জানিয়ে দেবেন।

একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন, ভরতির সময় অভিভাবকরা স্কুলে গেলেই চলবে। পড়ুয়াদের থাকার কোনো প্রয়োজন নেই।

পঠনপাঠন কবে?

করোনাভাইরাস লকডাউনের (Coronavirus lockdown) জেরে গত মার্চ থেকেই বন্ধ সমস্ত স্কুল-কলেজ এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। গত ২৪ মার্চ দেশব্যাপী লকডাউন জারির আগে থেকেই বন্ধ রয়েছে প্রতিষ্ঠানগুলি।

লকডাউন পার করে আনলক পর্যায়ে বেশ কিছু ক্ষেত্রে কড়াকড়ি শিথিল করা হলেও স্কুল খোলা নিয়ে কোনো রকমের সিদ্ধান্ত এখনও গৃহীত হয়নি। এ দিন শিক্ষামন্ত্রী জানান, পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার পর পঠনপাঠন শুরু হবে।

পড়তে পারেন: মাধ্যমিকে বাড়ল পাশের হার,পূর্ব বর্ধমানের অরিত্র পাল প্রথম স্থানাধিকারী

Continue Reading

রাজ্য

কলকাতার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গের দুই জেলার করোনা-পরিস্থিতি

খবরঅনলাইন ডেস্ক: এখনও পর্যন্ত রাজ্যে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা রেকর্ড তৈরি হল বুধবার। তবে কলকাতায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা অনেকটাই কমেছে। যদিও উত্তরবঙ্গের দুই জেলায় করোনা-আক্রান্তের সংখ্যায় উদ্বেগজনক বৃদ্ধি এসেছে। তবে স্বস্তির খবর, সুস্থতার সংখ্যায় রেকর্ড তৈরি হয়েছে আর মৃত্যুহার আরও অনেকটাই কমে গিয়েছে।

রাজ্যের করোনা-তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১,৫৮৯ জন। এর ফলে রাজ্যে এখন মোট করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৪,৪২৭। কুড়ি জনের মৃত্যু হওয়ায় রাজ্যে মৃতের সংখ্যা এক হাজার ছুঁয়েছে।

তবে এক দিনে ৭৪৯ জন করোনামুক্ত হয়েছেন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২০,৬৮০ জন। রাজ্যে সুস্থতার হার এখন রয়েছে ৬০.০৬ শতাংশে। মৃত্যুহারে কমে এসেছে ২.৯০ শতাংশে।

কলকাতায় কমল নতুন আক্রান্তের সংখ্যা

কলকাতায় করোনায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা বেশ কিছুটা কমেছে। এ দিন নতুন করে ৪২৫ জন আক্রান্ত হওয়ায় শহরে মোট করোনারোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১০,৯৭৫। তবে শহরে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬,১৪৬ জন, মৃত্যু হয়েছে ৫২৫ জনের। কলকাতায় এখন সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৪,৩০৪ জন।

উত্তর ২৪ পরগণা আর দক্ষিণ ২৪ পরগণায় নতুন করা করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪৭ আর ১৭৪ জন। এই দুই জেলা মিলিয়ে এক দিনে সুস্থ হয়েছেন ২১৩ জন। দক্ষিণ ২৪ পরগণায় কারও মৃত্যু না হলেও উত্তরে ৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এ ছাড়া হাওড়ায় ১৫১ আর হুগলিতে ৭৪ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

পূর্ব মেদিনীপুরে উদ্বেগের ছবি

পূর্ব মেদিনীপুরে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬০ জন। এ ছাড়া দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় করোনা-পরিস্থিতির বিশেষ কোনো পরিবর্তন হয়নি। ঝাড়গ্রাম এখনও করোনামুক্ত রয়েছে।

মুর্শিদাবাদ (১৭) আর নদিয়া (১০) ছাড়া দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলায় নতুন আক্রান্তের সংখ্যা দশের কম।

মালদায় আক্রান্ত শতাধিক

মালদা আর দার্জিলিং এখন উত্তরবঙ্গের মূল মাথাব্যাথার কারণ। মালদায় গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ১২১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, এখনও পর্যন্ত যা সর্বোচ্চ। এই জেলায় সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৫৩৬ জন।

দার্জিলিংয়ে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৪ জন, যার সিংহভাগই শিলিগুড়ি শহরের বাসিন্দা। এই জেলাতেও মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক হাজার পেরিয়ে গেল। দার্জিলিংয়ে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩৭০ জন। এর পাশাপাশি দক্ষিণ দিনাজপুরে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৪ জন। উত্তরবঙ্গের বাকি জেলায় অবশ্য পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে।

নমুনা পরীক্ষার তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ১২ হাজারের কাছাকাছি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট ৬ লক্ষ ৪৯ হাজার ৯২৮টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। রাজ্যে এখন প্রতি এক হাজার মানুষে ৭,২২১ জনের নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে।

Continue Reading

রাজ্য

মৃত কোভিড-যোদ্ধাদের পরিবারের সদস্যকে চাকরি দেবে রাজ্য, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

মৃত কোভিড-যোদ্ধাদের পরিবারের এক জন করে সদস্যকে চাকরি দেবে রাজ্য।

কলকাতা: নবান্ন সভাঘর থেকে কোভিড-যোদ্ধাদের (Covid warriors) সম্মান জানিয়ে বড়োসড়ো সিদ্ধান্ত ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

বুধবার মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আপনারা জানেন আমরা আগেই ঘোষণা করেছি, কোভিড-যোদ্ধাদের মধ্যে যাঁদের মৃত্যু হয়েছে তাঁদের পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা এবং যাঁরা আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের জন্য ১ লক্ষ টাকার আর্থিক সহযোগিতা দেওয়া হবে”।

তিনি বলেন, “এ ছাড়াও এ দিনের মন্ত্রিসভার বৈঠকে একটি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মৃত করোনা-যোদ্ধাদের পরিবারের সদস্যকে চাকরি দেবে রাজ্য। যাঁরা কোভিড-যোদ্ধা, তাঁদের সম্মান এবং শ্রদ্ধা জানাই। চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, পুলিশ, পুরসভাকর্মী, আশাকর্মীদের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ৪১৫ জন করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন। এঁদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪০৩ জন। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক ভাবে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখনও পর্যন্ত ২৬৮ জন পুলিশকর্মী আক্রান্ত হয়েছে। ৩০ জন চিকিৎসক আক্রান্ত হয়েছেন। ৪৩ জন নার্স আক্রান্ত হয়েছেন। এ ছাড়া ৬২ জন সরকারি কর্মী আক্রান্ত হয়েছেন”।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “এখনও পর্যন্ত ২৮৪ জন আক্রান্তকে এক লক্ষ টাকা করে দেওয়া হয়েছে। প্রক্রিয়াধীন রয়েছেন ১১৯ জন। তাঁরাও শীঘ্রই এই আর্থিক সহযোগিতা পাবেন। অন্য দিকে যে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে, তাঁদের পরিবারকে ১০ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হয়ে গিয়েছে। এই খাতে ৫.২৩ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে”।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, টাকাটা বড়ো কথা নয়, “তাঁদের যে ভাবে নিজের জীবন্ন বিপন্ন করে আক্রান্তদের পরিষেবা দিচ্ছেন, তাতে তাঁদের সম্মান জানাতেই হবে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, মৃত কোভিড-যোদ্ধাদের পরিবারের এক জন করে সদস্যকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে। সব কিছু খতিয়ে দেখেই পরিবারের এক জনকে কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেওয়া হবে। প্রশাসন ক্ষমতা অনুযায়ী পদক্ষেপ নেবে”।

তিনি বলেন, “আজ রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রকল্পটি অনুমোদন হয়েছে। রূপরেখা তৈরি করবে প্রশাসন। এ ছাড়া জেলায় জেলায় যে সমস্ত কোভিড-যোদ্ধা রয়েছেন, তাঁদের জন্য একটি করে মানপত্র তুলে দিচ্ছে রাজ্য”।

Continue Reading
Advertisement
দেশ32 seconds ago

বুলডোজারে নষ্ট করা হচ্ছে ফসল, অপমানে বিষ খেলেন দলিত দম্পতি

বিজ্ঞান7 hours ago

সূর্যাস্তের পর অন্তত ২০ মিনিট দেখুন উত্তর-পশ্চিম আকাশে ধূমকেতু ‘নিওওয়াইজ’, চলবে মাসভর

বাংলাদেশ9 hours ago

বাবা-মায়ের পাশে চিরনিদ্রায় প্লে-ব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর

রাজ্য11 hours ago

প্রকাশিত হয়েছে মাধ্যমিকের ফলাফল, ভরতি কবে এবং কী ভাবে?

প্রযুক্তি12 hours ago

রিলায়েন্সের নতুন ‘জিও গ্লাস’, চশমাটি কী কাজে লাগবে?

রাজ্য13 hours ago

কলকাতার পাশাপাশি চিন্তা বাড়াচ্ছে উত্তরবঙ্গের দুই জেলার করোনা-পরিস্থিতি

Amit Shah
দেশ14 hours ago

মোদী সরকারের অগ্রাধিকারের তালিকায় নারী ও শিশুদের নিরাপত্তা: অমিত শাহ

গান-বাজনা14 hours ago

১২ বছরের পথচলায় ‘মুক্তধারা’র মুকুটে আরও একটি পালক, চালু হল ইউটিউব চ্যানেল

কেনাকাটা

laptop laptop
কেনাকাটা14 hours ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

কেনাকাটা4 days ago

হ্যান্ডওয়াশ কিনবেন? নামী ব্র্যান্ডগুলিতে ৩৮% ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনাভাইরাস বা কোভিড ১৯ এর সঙ্গে লড়াই এখনও জারি আছে। তাই অবশ্যই চাই মাস্ক, স্যানিটাইজার ও হ্যান্ডওয়াশ।...

কেনাকাটা6 days ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা1 week ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

নজরে