ভবানীপুর উপনির্বাচনে তৃণমূলের নতুন স্লোগান

0
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: সেপ্টেম্বরের মধ্যেই রাজ্যের পাঁচ বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হওয়ার কথা। এগুলির মধ্যেই রয়েছে ভবানীপুর। নন্দীগ্রামে পরাজিত হওয়ার পর এই কেন্দ্র থেকেই উপনির্বাচনে প্রার্থী হতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। উপনির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষিত না হলেও তাঁর হয়ে জোরকদমে প্রচার শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল।

এ বারের বিধানসভা ভোটে তৃণমূলের স্লোগান ছিল ‘বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়’। যা তৈরি করেছিল ভোট-কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা আইপ্যাক। ২০২১ বিধানসভা ভোটের আগে গত ২০ ফেব্রুয়ারি আনুষ্ঠানিক ভাবে ওই স্লোগান প্রকাশ্যে এনেছিল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। ২০২১-এর ভোট রণাঙ্গনে ওই স্লোগান তৃণমূলের তৃতীয় বার বঙ্গবিজয়ে যথেষ্ট কার্যকরী ভূমিকা নিয়েছিল।

তবে ভবানীপুরের উপনির্বাচনে সেই স্লোগানে নয়, নতুন স্লোগান নিয়ে নেটমাধ্যম থেকে পোস্টার, ব্যানারে প্রচার শুরু করেছেন তৃণমূল কর্মীরা।

ভবানীপুর উপনির্বাচনে তৃণমূলের নতুন স্লোগান ‘উন্নয়ন ঘরে ঘরে, ঘরের মেয়ে ভবানীপুরে’। যা তৈরি হয়েছে তৃণমূলের শাখা সংগঠন জয়হিন্দ বাহিনীর উদ্যোগে। ভোটের তারিখ ঘোষণা না হলেও এই স্লোগান নিয়েই তৃণমূল শিবিরের নীচুতলার কর্মীরা প্রচার শুরু করে দিয়েছেন।

অন্য দিকে, ভোটের নির্ঘণ্ট প্রকাশিত না হলেও ইভিএম, ভিভিপ্যাটের ফার্স্ট লেভেল চেকিং শুরু করে দিয়েছে কমিশন। তৃণমূল নেতৃত্বের ধারণা, আগস্ট মাসের শেষ সপ্তাহে উপনির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হয়ে যেতে পারে। পুজোর আগে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে হতে পারে ভোট। তাই হাতে সময় থাকতেই প্রচারে নেমেছে দল।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের উপনির্বাচন ও ২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটে ভবানীপুর থেকে জয়ী হয়েছিলেন মমতা। এ বার তিনি নন্দীগ্রামে প্রার্থী হওয়ায় এই কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হয়ে জয়ী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। তবে ফলাফল ঘোষণার দিন কুড়ি পর তিনি বিধানসভা আসন থেকে পদত্যাগ করেন। মুখ্যমন্ত্রী এই কেন্দ্র থেকেই উপনির্বাচনে লড়বেন, তেমন জল্পনা তার পর থেকেই চলছে।

খবর অনলাইন-এর অন্যান্য প্রতিবেদন পড়তে পারেন এখানে: khaboronline.com

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন