একগুচ্ছ প্রকল্পে রাজ্যে কয়েক লক্ষ কর্মসংস্থানের আশ্বাস দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

0

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একগুচ্ছ প্রকল্পে ‘লক্ষ-লক্ষ’ কর্মসংস্থানের আশ্বাস দিলেন তৃণমূলনেত্রী এবং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসে ভার্চুয়াল সভা থেকে বেশ কয়েকটি প্রকল্পের উল্লেখ করে তরুণ প্রজন্মের জন্য ‘খুশির খবর’ শোনান মমতা।

তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, “চাকরি নিয়ে কাউকে দুশ্চিন্তা করতে হবে না। বাংলায় লক্ষ-লক্ষ কর্মসংস্থান হবে”। এ বিষয়েই তিনি একাধিক প্রকল্পের কথা জানান।

তিনি বলেন, “রাজারহাটে সিলিকন হাব হচ্ছে। দেউচা-পাচামিতে খনিপ্রকল্পের কাজ শুরু হচ্ছে। দিঘায় ল্যান্ডিং স্টেশন তৈরি হবে। রিলায়েন্স সেখানে লগ্নি করবে। এগুলো ছাড়াও আরও বেশ কয়েকটি প্রকল্প হবে। ফলে কর্মসংস্থান নিয়ে দুশ্চিন্তার শেষ হবে”।

একই সঙ্গে তিনি এ দিন জানান, প্রতি বছর দু’শো পড়ুয়াকে মুখ্যমন্ত্রীর দফতরে (CMO) নেওয়া হবে। পাশাপাশি, মানুষের পাশে দাঁড়াতে পড়ুয়াদের ইন্টার্নশিপও করানো হবে।

সপ্তাহ দুয়েক আগেই মুখ্যমন্ত্রী দাবি করেন, “রাজ্যে বেকারত্বের হার এখন ৪০ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। দেশ যখন সর্বকালের সর্বোচ্চ ২৪ শতাংশ বেকারত্বের মুখোমুখি, তখন রাজ্যের এই হ্রাস যথেষ্ট আশাব্যঞ্জক”।

সেই সূত্র ধরেই এ দিন তিনি জানান, “আমরা কাজ করি, হাতে-কলমে কাজ করাই। বিভিন্ন প্রকল্পে যুক্ত রয়েছেন বহু মানুষ। যে কারণে সারা দেশে বেকারত্ব ৪২ শতাংশ বাড়লেও পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্ব কমেছে ৪০ শতাংশ”।

মমতা বলেন, “দারিদ্র দূরীকরণে পশ্চিমবঙ্গ এক নম্বরে রয়েছে। একশো দিনের কাজেও দেশের মধ্যে শীর্ষে বাংলা। করোনা লকডাউনে রাজ্যে প্রায় ১০ লক্ষ অভিবাসী শ্রমিক ফিরে এসেছেন। তার মধ্যে সাত লক্ষ অভিবাসী শ্রমিককে আমরা একশো দিনের কাজে অন্তর্ভুক্ত করেছি। এমএসএমই ট্রেনিং, সংখ্যালঘু স্কলারশিপ, স্কিল ডেভেলপমেন্ট-সহ অন্যান্য উন্নয়নমূলক কর্মসূচিতেও আমরা এক নম্বরে। কয়েক দিনের মধ্যেই ১২ লক্ষ কিষান ক্রেডিট কার্ড দেওয়া হয়েছে”।

সম্প্রতি রাজ্য সরকার ‘কর্মসাথী প্রকল্প’ (Karma Sathi Prakapla) নামে একটি বিশেষ প্রকল্প চালু করেছে। এই প্রকল্প থেকে বেকার যুবক-যুবতীরা সহজ ঋণ নিয়ে ছোটো মাপের ব্যবসা শুরু করে স্বনির্ভর হতে পারবেন।

‘ বাংলা সহায়তা কেন্দ্র ’ প্রকল্পে সাড়ে ৫ হাজার কর্মী নিয়োগ

রাজ্য বাজেটে ঘোষণা মতো সারা রাজ্যে মোট ২হাজার ৭১১টি ‘ বাংলা সহায়তা কেন্দ্র’ চালু হবে। জানা গিয়েছে প্রতিটি কেন্দ্রে দু’জন করে ডাটা এন্ট্রি অপারেটর নিয়োগ করা হবে। বিস্তারিত দেখে নিন এখানে ক্লিক করে: চাকরির খবর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন