সংকট আরও গভীর হল বনগাঁ পুরসভায়

0
Bongaon Municipality

ওয়েবডেস্ক: বর্তমান পুরপ্রধান শংকর আঢ্যর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে গত শুক্রবার অনাস্থা এনেছিলেন বনগাঁ পুরসভার ১১ জন কাউন্সিলার। রাত পোহাতেই আরও তিন জন কাউন্সিলার বিক্ষুব্ধদের দলে যোগ দিলেন। সব মিলিয়ে তৃণমূলের হাতে থাকা বনগাঁ পুরসভায় সংকট আরও গভীর হল বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

এ দিন উপপুরপ্রধান কৃষ্ণা রায়-সহ তিন কাউন্সিলার বিক্ষুব্ধদের দলে যোগ দেন। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত বিক্ষুব্ধদের সংখ্যা দাঁড়াল ১৪। ফলে ২২ ওয়ার্ডের বনগাঁ পুরসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা হারাল তৃণমূলের বর্তমান পুরবোর্ড। বনগাঁ পুরসভার ২২ আসনের মধ্যে তৃণমূলের দখলে ২০, সিপিএম ১ এবং কংগ্রেস ১। কিন্তু ১৪ জন কাউন্সিলার পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে অনাস্থা দেখানোয় পুরবোর্ডের অস্তিত্ব সংকট দেখা দিল। অন্য দিকে বিক্ষুব্ধরা বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ভাবলে, বিষয়টি তারা গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করবে বলে আগাম জানিয়ে রেখেছে গেরুয়া শিবির।

এ ব্যাপারে অবশ্য পুরপ্রধান শংকরবাবু জানান, দল যা নির্দেশ দেবেন, সেটাই তিনি করবেন। তবে বিক্ষুব্ধ কাউন্সিলারদের ঘনিষ্ঠ মহল সূত্রে খবর, শংকরবাবুকে সরিয়ে তাঁরা পরবর্তী পুরপ্রধান করতে চান মনোতোষ নাথকে। যিনি নির্দল হিসাবে জয়ী হওয়ার পর তৃণমূলে যোগ দেন। আপাতত দলবদলের পরিকল্পনা না-থাকলেও মনোতোষবাবুকে সামনে রেখে ঘুঁটি সাজাচ্ছেন বিক্ষুব্ধরা।

যদিও ওই বিক্ষুব্ধ কাউন্সিলাররা গত শুক্রবার জানিয়েছেন, তাঁরা এখনও তৃণমূলেই রয়েছেন। পুরপ্রধানের বিরুদ্ধে সরব হয়ে তাঁরা আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়ার আবেদন জানিয়েছেন। কিন্তু লোকসভা ভোটের ফলাফল প্রকাশের পর থেকেই উত্তর ২৪ পরগনার একাধিক পুরসভায় যে ভাবে কাউন্সিলারদের দলবদল চলছে, তাতে যথেষ্ট অস্বস্তিতে রয়েছে রাজ্যের শাসক দল। সে ক্ষেত্রে বনগাঁর ‘ভাঙন’ তৃণমূল কী ভাবে আটকায়, সেটাই এখন দেখার।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার ভাটপাড়া পুরসভার দখল নিয়েছে বিজেপি। পুরপ্রধান হয়েছেন সৌরভ সিং।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here