TMC And BJP

কলকাতা: আগামী ২৭ জুন রাজ্যে আসছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। তিনি পর দিন যাবেন পুরুলিয়ায়। সেখানে শিমুলিয়া ফুটবল মাঠে জনসভায় উপস্থিত হবেন। তিন দিনের মাথায় ওই একই মাঠে হবে তৃণমূল কংগ্রেসের সভা। যেখানে উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে রাজ্যের পাঁচ মন্ত্রী-সহ জেলার প্রথমসারির নেতৃত্বের।

অমিতের সভা ঘিরে বাড়তি উদ্দিপনা ধরা পড়ছে পুরুলিয়ার বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে। শহর থেকে অনতিদূরে শিমুলিয়া ফুটবল মাঠে চলছে বিজেপির সভার তোড়জোড়। সূত্রের খবর, ওই একই মাঠে সভা করবে তৃণমূল। উপস্থিত থাকার কথা পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী, পুর ও নগরোন্নয়নমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, শিশু ও নারীকল্যাণমন্ত্রী শশী পাঁজা, অনগ্রসর শ্রেণি কল্যাণ দফতরের রাষ্ট্রমন্ত্রী সন্ধ্যারানি টুডু ও পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়নমন্ত্রী শান্তিরাম মাহাতো এবং প্রাক্তন মন্ত্রী সুকুমার হাঁসদা-সহ একাধিক জেলা নেতৃত্বের।

বিজেপি সূত্রে খবর, অমিতের সভায় প্রায় লক্ষাধিক বিজেপি সমর্থক উপস্থিত থাকবেন। এ ছাড়া যাঁরা সভাস্থলে আসতে পারবেন না, তাঁদের কাছে দলের বার্তা  পৌঁছে দিতে নেওয়া হয়েছে একাধিক উদ্যোগ। অন্য দিকে তৃণমূলের তরফে দাবি করা হয়েছে, তাদের জনসভায় বিজেপির দ্বিগুণ শ্রোতা হাজির হবেন। গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে পুরুলিয়া-সহ জঙ্গল মহলে তৃণমূলের ফল আশানুরূপ না হওয়ায় দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একধিক উদ্যোগ নিয়েছেন। দলকে নির্দেশ দিয়েছেন, প্রশাসনিক পরিষেবাগুলি সঠিক ভাবে সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার পাশাপাশি দলীয় সংগঠনকে ঢেলে সাজানোর।

তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, এই সভা থেকেই প্রমাণ হয়ে যাবে সংলগ্ন এলাকায় শাসক দলের প্রতি জনসমর্থন মোটেই কমেনি।সাময়িক ভাবে নির্দিষ্ট কয়েকটি কারণে ভোটের বাক্সে প্রভাব পড়লেও সংগঠন ও সমর্থন অটুট আছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here