বরফ দেখতে পাহাড়ে, বেমরশুমেও পর্যটকদের ভিড় দার্জিলিংয়ে

0
darjeeling
মাঝেমধ্যেই এই ছবি দেখা যাচ্ছে দার্জিলিংয়ে।

দার্জিলিং: এগারো বছর পর দার্জিলিং শহরে বরফ-ভাগ্য খুলেছে। আর এই ভাগ্য যখন খুলেইছে, তখন তিন বার বরফ দেখেছে দার্জিলিং শহর। এ ছাড়া মাঝেমধ্যেই শিলাবৃষ্টিতে ঢেকেছে দার্জিলিং। সব মিলিয়ে দার্জিলিংয়ের বিভিন্ন প্রান্তে এখনও ছড়িয়ে ছিটিয়ে জমে থাকা বরফের দেখা পাওয়া যাচ্ছে। এই সব কারণেই এ বার বেমরশুমেও দার্জিলিং পাহাড় গমগম করছে পর্যটকদের ভিড়ে।

শীতের ছুটির পর দার্জিলিংয়ে আবার পর্যটক মরশুম শুরু হয় মে মাস থেকে, অর্থাৎ গরমের ছুটির পর থেকেই। কিন্তু এ বার যে ভাবে পর্যটকদের ভিড় পাহাড়ে এখনও রয়েছে তার জন্য খুশি পাহাড়ের হোটেল-হোমস্টে মালিক এবং গাড়িচালকরা।

শুক্রবারও গমগম করেছে দার্জিলিংয়ের ম্যাল। আপাতত শনি-রবিবার পাহাড়ের বেশির ভাগ হোটেলই বুক বলে জানিয়েছেন হোটেল মালিকরা।

আরও পড়ুন উত্তপ্ত পরস্থিতির মধ্যেই তুষারপাতে স্নিগ্ধ কাশ্মীর উপত্যকা, দিল্লিতে ৪০ বছরে শীতলতম মার্চ

এই বেমরশুমে এত ভিড়ের জন্য আবহাওয়াই কারণ বলে জানিয়েছেন হোটেল-মালিকরা। এ বার ২৮ ডিসেম্বর বরফ পড়েছিল দার্জিলিংয়ে। তার আগেই সান্দাকফু রুটে বরফ পড়া শুরু হয়ে যায়। এর পর ২৯ জানুয়ারি এবং ১৫ ফেব্রুয়ারি দার্জিলিং শহরে বরফ পড়ে। বুধ-বৃহস্পতিবার দার্জিলিংয়ে শিলাবৃষ্টি হওয়ার পাশাপাশি নতুন করে বরফ পড়ে সান্দাকফু অঞ্চলে। সব মিলিয়ে পাহাড়ে এখন ইতিউতি বরফ চোখে পড়ছে। যে ছবিটা দেখতে পর্যটকদের সিকিম যেতে হত, সেটাই হাতের কাছে পেয়ে পর্যটকদের এখন বাড়তি আনন্দ। এ ছাড়া পরিষ্কার আকাশে ঝকঝকে কাঞ্চনজঙ্ঘার রূপ তো আছেই। সব মিলিয়ে পশ্চিমবঙ্গের পাহাড় পর্যটকদের কাছে বোনাস উপহার দিচ্ছে।

আগামী কয়েক মাসে কয়েকটি বড়ো উইকএন্ড আছে, দোল, নববর্ষ এবং গুড-ফ্রাইডে। সব মিলিয়ে পাহাড়ে পর্যটকদের আনাগোনা লেগেই থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.