dilip ghosh west bengal bjp

কলকাতা: একটি গড়িয়াহাটে, অন্যটি হেয়ার স্ট্রিট থানায়। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের বিরুদ্ধে একই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দু’টি এফআরআই দায়ের হল। গত শনিবার বিজেপি যুব মোর্চার প্রতিরোধ সংকল্প অভিযানকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কলকাতা-সহ বেশ কয়েকটি জেলা। বিশেষত, উত্তর কলকাতার জোড়াসাঁকো, পোস্তা, গিরিশ পার্কে ব্যাপক ভাঙচুর চলে। ওই দিন রাজ্যে হিংসা ছড়ানোর অভিযোগে দিলীপবাবুর বিরুদ্ধে পৃথক দু’টি অভিযোগ জমা পড়ল দুই জনৈক ব্যক্তির তরফে।

এফআইআর দায়ের প্রসঙ্গে দিলীপবাবু বলেন, “এগুলি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন অভিযোগ। আমি এমন কোনো মন্তব্য করিনি, যা রাজ্যে হিংসা ছড়াতে পারে। আসলে বিজেপির বিরুদ্ধে তৃণমূলের সস্তা মতলবকে কাজে লাগাতে এই অভিযোগ। বিজেপি বাংলায় যে ভাবে বেড়েই চলেছে, তাতে তৃণমূল ভয় পেয়ে যাচ্ছে।”

তবে তাঁর বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া অভিযোগের নেপথ্য কে রয়েছে, ভালো মতোই জানেন দিলীপবাবু। তিনি জানিয়ে দেন, “রাজনৈতিক লড়াই রাজনীতির মাধ্যমেই করব। আর ওই এফআইআরের জবাব আমাদের আইনজীবীই দেবেন।”

এক অভিযোগকারী লিখেছেন, দিলীপবাবু এক জন বিধায়ক হয়ে যে ভাবে হিংসা ছড়ানোয় মদত দিচ্ছেন, তা অত্যন্ত লজ্জাকর। অন্য দিকে দিলীপবাবু বলেছেন, তিনি এমন কোনো মন্তব্য করেননি বা নির্দেশ দেননি, যা নতুন করে হিংসা ছড়াচ্ছে। তৃণমূলের লোকজন বিজেপি-কে ভয় পেয়েই এ সব করছে।

উল্লেখ্য, দিলীপবাবু বলেছিলেন, পার্থবাবুরা যদি মনে করেন ওঁরা ইট ছুড়লে আমরা নলেন গুড়ের সন্দেশ ছুড়ব, তা হলে ভুল ভাবছেন।ওঁরা মারতে এলে পালটা গেরুয়া ডান্ডা ওঁদের গায়ে পড়বে। তখনই বোঝা যাবে কার ডান্ডার জোর বেশি।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন