kolkata high court panchayat

কলকাতা: পঞ্চায়েত ভোট নিয়ে মামলার অন্ত নেই আদালতে। এরই মাঝে আরও দু’টি আবেদন জমা পড়তে চলেছে কলকাতা হাইকোর্টে। একটি করছে বিজেপি, অন্যটি জাতীয় কংগ্রেস।

বিজেপির অভিযোগ, হাইকোর্ট রাজ্য নির্বাচন কমিশনকে নিরাপত্তা সংক্রান্ত যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সঙ্গেই নতুন বিজ্ঞপ্তি জারি করতে বলেছিল। কিন্তু মনোনয়ন জমার বাড়তি দিনেই প্রকাশ হয়ে গিয়েছে, ঠিক কেমন ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে কমিশন। ফলে ভোটের দিন সাধারণ ভোটার থেকে শুরু করে ভোটকর্মী এমনকী ব্যালট বাক্সের নিরাপত্তা সম্পর্কে মোটেই আশ্বস্ত করতে পারছেন না কমিশন-কর্তারা। পাশাপাশি তাদের আরও একটি অভিযোগ, প্রথম বিজ্ঞপ্তিতে কমিশন সারা রাজ্যে তিন দফায় ভোটগ্রহণের কথা জানিয়েছিল। কিন্তু আচমকা কেন এক দফায় ভোটের সিদ্ধান্ত নেওয়া হল, সে প্রশ্নের উত্তরও জানতে চাইবে আদালতের মাধ্যমে। তবে বিজেপির তরফে দাবি করা হয়েছে, আদালতে যাওয়া মানেই এই নয় যে, তারা ভোট পিছিয়ে দিতে চাইছে।

অন্য একটি আবেদন নিয়ে আদালতের শরণাপন্ন হচ্ছে জাতীয় কংগ্রেস। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী জানিয়েছেন, তাঁরা নির্বাচন কমিশন এবং রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে আবেদন জানাবেন হাইকোর্টে। তাঁর বক্তব্য, নির্বাচনের নামে প্রহসন চলছে। শাসক দল পুলিশকে কাজে লাগিয়ে গুন্ডামি করছে। কংগ্রেসের কর্মীরা প্রকাশ্যে শাসক দলের গুন্ডাদের হাতে মার খাচ্ছে, অথচ পুলিশ কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

এ ছাড়া বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির পঞ্চায়েত সংক্রান্ত একাধিক মামলা চলছে হাইকোর্টে। সিপিএমের করা মামলাটিরও শুনানি হবে আগামী সপ্তাহে। সব মিলিয়ে আশঙ্কা করা হচ্ছে, মাত্রাতিরিক্ত মামলার চাপে ফের পঞ্চায়েত ভোট প্রক্রিয়া ব্যাহত না হয়!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here