injured tmc worker
আহত তৃণমূলকর্মী। নিজস্ব চিত্র।

বাঁকুড়া: এক তৃণমূলকর্মীকে মাথায় অস্ত্র দিয়ে আঘাতের অভিযোগ উঠল অজ্ঞাতপরিচয় দূষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার গভীর রাতে বাঁকুড়ার সিমলাপালের মাচাতোড়া গ্রামপঞ্চায়েত এলাকার বাঁশি গ্রামে। এই ঘটনায় গুরুতর জখম তাপস গরাই বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আরও পড়ুন বিজয় মিছিলে বোমা ফাটাতে গিয়ে হাত উড়ল বিজেপি কর্মীর!

জানা গিয়েছে, অন্যান্য দিনের মতো গরমের জন্য এ দিন রাতেও আরো অনেকের সঙ্গে পাড়ার আটচালায় শুয়েছিলেন ওই তৃণমূলকর্মী। সবাই যখন ঘুমিয়ে পড়েছিলেন তখন হঠাৎই কে বা কারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাপস গরাইয়ের মাথায় আঘাত করে বলে অভিযোগ। তাঁর চিৎকারে আটচালায় শুয়ে থাকা অন্যরা ঘুম থেকে জেগে ওঠেন। কিন্তু তাঁরা জেগে ওঠার আগেই দুষ্কৃতীরা ছুটে পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত তাপসবাবুকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন
গ্রামবাসীরা।

বিজেপির লোকেরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে বলে অভিযোগ স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের। মাচাতোড়া অঞ্চল যুব তৃণমূলের সভাপতি রবিদাস চক্রবর্তী বলেন, ওরা রাজনৈতিক ভাবে আমাদের সঙ্গে পেরে উঠতে না পেরে এই রাস্তা নিয়েছে। এলাকায় অশান্তি সৃষ্টি করার চেষ্টা করছে বিজেপি। মানুষ এই চেষ্টা প্রতিহত করবেন দাবি করে রবিদাসবাবু বলেন, দলে আলোচনা করার পর এই ঘটনার প্রতিবাদে সিমলাপাল ব্লক জুড়ে প্রতিবাদ আন্দোলন সংগঠিত করা হবে।

যদিও বিজেপির পক্ষ থেকে এই ঘটনায় তাদের যুক্ত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে। এ বিষয়ে বিজেপির বাঁকুড়া জেলা সাংগঠনিক সভাপতি বিবেকানন্দ পাত্র বলেন, তৃণমূল এখন সব কিছুতেই বিজেপি দেখছে। তাঁদের দল হিংসার রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। তাঁর দাবি, তৃণমূল এখন সর্বত্রই হেরেছে। এই ঘটনা তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দের বহিঃপ্রকাশ বলে তিনি দাবি করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here