water crisis
স্থানীয় বাসিন্দাদের পথ অবরোধ। ছবি: নিজস্ব
সমীর মাহাত

ঝাড়গ্রাম: পানীয় জলের দাবিতে পথ অবরোধ ঝাড়গ্রামে। বুধবার ঝাড়গ্রামের বিনপুর ব্লকের হাড়দা অঞ্চলের আউলিয়া গ্রামের বাসিন্দারা পানীয় জলের জন্য রাস্তা অবরোধ করেন। অভিযোগ, গত তিন দিন ধরে তাঁরা জল পাননি।

এক দিকে যখন জঙ্গল মহলে উন্নয়নের বাস্তবায়ন নিয়ে প্রশ্ন ক্রমশ জোরালো হচ্ছে অন্য দিকে পানীয় জল নিয়েও স্বজনপোষণের অভিযোগ উঠেছে। ঝাড়গ্রামের বিধায়ক সুকুমার হাঁসদা পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়নমন্ত্রী থাকাকালীন গ্রামে গ্রামে পানীয় জলের সাব মার্সিবল তৈরি হয়। ইতিমধ্যেই বিভিন্ন গ্রামে মেশিন খারাপ বা মেশিন চালানোর লোক নেই এমনই অভিযোগ।

এ দিনের পথ অবরোধ এমনই একটি ঘটনার বহিঃপ্রকাশ। কল খারাপ তাই জল সরবরাহ বন্ধ। প্রশাসনের এই সাফাইয়ে সন্তুষ্ট না হয়ে বাসিন্দারা আজ অবরোধে শামিল হয়। বিনপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে জল সরবরাহের আশ্বাস দিলে অবরোধ উঠে। পাশাপাশি, যেখানে জেলার শীর্ষ প্রশাসনিক কর্তারা বসে আছেন, সেই ঝাড়গ্রাম পুর এলাকার ১ নম্বর ওয়ার্ডে পানীয়জলের পরিষেবা কার্যত স্তব্ধ। দু’-একটি জলের ট্যাঙ্ক পাঠানো হলেও তাতে সংকট মিটছে না।

এলাকার দারিদ্র্য আদিবাসী মানুষরাই এই দুর্ভোগের স্বীকার হচ্ছেন। কেন না শহরের বিত্তশালীরা বেশিরভাগই বাড়ির নিজস্ব জলের কল বানিয়ে নিয়েছেন। ফলে জল সংকট নিয়ে গ্রাম থেকে শহর এলাকায় ক্ষোভ বাড়ছে।

আউলিয়ার পাশের গ্রাম মাগুরা। সেখানেই ঝাড়খণ্ড নরেন দলের প্রাক্তন বিধায়ক চুনিবালা হাঁসদার গ্রামের বাড়ি। তিনি বলেন, “তিন-চারদিন ধরে সেখানে কল খারাপ। তৃণমূল আমলে পানীয় জল নিয়েও ‘রাজনীতি’ হচ্ছে। আমাদের মাগুরা গ্রামের আদিবাসী পাড়ায় একটিও জলের কল তৈরি হয়নি। অথচ পাশের তেঁতুলা গ্রামে কল হয়েছে। আজ এখন সবাই প্রতিবাদ করছে”।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন