purulia3

শুভদীপ চৌধুরী, পুরুলিয়া: বছরের পর বছর ধরে রাজনৈতিক দলের নেতারা জল সমস্যা সমাধানের কথা শোনালেও তা অধরাই রয়ে গেছে পুরুলিয়ায়। এই তীব্র গরমে তা বেড়েছে কয়েকগুণ। গোটা জেলা জুড়েই তাপপ্রবাহ পার হয়েছে ৪০ ডিগ্রির পারদ। গত চৈত্রমাসেই জলস্তর নেমে গিয়েছিল অনেকটাই। বৈশাখের শেষবেলায় এসে স্বাভাবিক ভাবেই জেলার শহর থেকে গ্রাম- জলের সংকটে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

তবে এই সংকটের মাঝেও জল অপচয় কিন্তু থেমে নেই। কোথাও জল নষ্ট করছে সাধারণ মানুষ, কোথাও আবার প্রশাসনের অবহেলায় জল নষ্ট হচ্ছে । পুরুলিয়া জেলায় এমনিতেই সবসময় প্রায় জলের সমস্যায় নাজেহাল হতে হয় গোটা জেলাবাসীকে, তার ওপর প্রশাসনিক অবহেলাতেও নষ্ট হচ্ছে জল। পুরুলিয়া জেলার আদ্রার আড়রাহ গ্রাম পঞ্চায়েতে উঠে এল এমনই এক দৃশ্য। জলের সমস্যা থাকলেও কিছু কিছু টাইম কলে সুব্যবস্থা না থাকায় অবহেলায় বয়ে চলেছে জল।

টাইম কলগুলির রক্ষণাবেক্ষণের গাফিলতিতেই এই জলের অপচয়। দীর্ঘদিন এই সমস্যা জানার পরেও আড়রাহ গ্রাম পঞ্চায়েত কোনো রকম ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বলে অভিযোগ। গ্রামের প্রত্যেক জায়গায় জার্মান নলের ব্যবস্থা করার পরেও তা দেখাশোনা প্রায় হয় না বললেই চলে। সারা দিনভর বয়ে চলেছে জল। কোনো কোনো জায়গায় স্থানীয় বাসিন্দাদের অবহেলায় নল খোলা রেখে জল বয়ে যায়, আবার কোথাও নলের ব্যবস্থা না থাকায় এমনিই সারা দিনভর বয়ে চলেছে জল ।

বলা চলে, কোথাও প্রশাসন উদাসীন, কোথাও আবার জনতা। তাই অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে এক গ্রামের জল, অন্য দিকে পিপাসা মিটছে না অন্য এলাকার। স্থানীয় বাসিন্দা জয়ন্ত বাউরি জানান, এমন ভাবে জল অপচয় হতে থাকলে পুরুলিয়ার জলকষ্ট সমস্যায় আরও বাড়বে-বই কমবে না।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here