Connect with us

রাজ্য

পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল তৃণমূল

২৯১টি আসনে প্রার্থী দিচ্ছে তৃণমূল। কোন আসনে প্রার্থী কে?

Published

on

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

খবর অনলাইন ডেস্ক: শুক্রবার পূর্ণাঙ্গ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। আগামী ২৭ মার্চ শুরু রাজ্যের আট দফার বিধানসভা নির্বাচন। এ দিন রাজ্যের ২৯৪টি আসনের মধ্যে ২৯১টির প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে তৃণমূল। বাকি তিনটি আসন ছেড়ে দেওয়া হয়েছে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চাকে।

দুপুর ২টোয় সাংবাদিক বৈঠক করেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কালীঘাটে দলীয় কার্যালয় থেকে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে মমতা বলেন-

Loading videos...

*আজকের এই গুরুত্বপূর্ণ সময়ে নির্বাচন কমিটিকে নিয়ে ২৯৪ আসনে তৃণমূলের প্রার্থীতালিকা ঘোষণা করছি। আজ ২৯১ আসনের প্রার্থীতালিকা ঘোষণা করছি। বাকি ৩টি আসন পাহাড়ের। বন্ধুদের ছাড়া হচ্ছে। তাঁরা আমাদের সঙ্গেই

*তফসিলি জাতি ৯৭ এবং তফসিলি উপজাতির ১৭ প্রার্থী রয়েছেন। এ বারের ভোটে ৮০-র ঊর্ধ্বে কেউ তৃণমূলের প্রার্থী হচ্ছেন না।

*ভবানীপুরে প্রার্থী হচ্ছেন না মমতা। তিনি নন্দীগ্রাম থেকে লড়ছেন। শারীরিক অসুস্থতার জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন না অমিত মিত্র এবং সিঙ্গুরের রবীন্দ্রনাথ ভট্টাচার্য। সিঙ্গুরে রবীন্দ্রনাথের পরিবর্তে প্রার্থী হচ্ছেন বেচারাম মান্না।

*ভবানীপুরে প্রার্থী হচ্ছেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়। সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায় বাঁকুড়ায়, কাঞ্চন মল্লিক উত্তরপাড়া, মনোজ তিওয়ারি শিবপুর, অদিতি মুন্সি রাজারহাট, রাজ চক্রবর্তী ব্যারাকপুর থেকে প্রার্থী হচ্ছেন।

*রত্না চট্টোপাধ্যায় প্রার্থী হচ্ছেন বেহালা পূর্বে। মন্তেশ্বরে সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী, ঝাড়গ্রামে প্রার্থী হচ্ছেন বীরবাহা।

*চণ্ডীপুর থেকে প্রার্থী হচ্ছেন সোহম চক্রবর্তী, আসানসোল দক্ষিণে সায়নী ঘোষ। কৃষ্ণনগর উত্তরে তৃণমূলের প্রার্থী কৌশানী মুখোপাধ্যায়।

তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা

১. মেখলিগঞ্জ: পরেশচন্দ্র অধিকারী
২. মাথাভাঙা: গিরিন্দ্রনাথ বর্মন
৩. কোচবিহার উত্তর: বিনয়কৃষ্ণ বর্মন
৪. কোচবিহার দক্ষিণ: অভিজিৎ দে ভৌমিক
৫. শীতলকুচি: পার্থপ্রতীম রায়
৬. সিতাই: জগদীশচন্দ্র বর্মা বাসুনিয়া
৭. দিনহাটা: উদয়ন গুহ
৮. নাটাবাড়ি: রবীন্দ্রনাথ ঘোষ
৯. তুফানগঞ্জ: প্রণবকুমার দে
১০. কুমারগ্রাম: লিউস কুজু
১১. কালচিনি : প্রশং লামা
১২. আলিপুরদুয়ার: সৌরভ চক্রবর্তী
১৩. ফালাকাটা:সুভাষ রায়
১৪. মাদারিহাট: রাজেশ লাকড়া
১৫. ধুপগুড়ি : মিতালি রায়
১৬. ময়নাগুড়ি: মনোজ রায়
১৭. জলপাইগুড়ি: ডা. প্রদীপ কুমার বর্মা
১৮. রাজগঞ্জ: খগেশ্বর রায়
১৯.ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি: গৌতম দেব
২০. মাল: বুলুচিক বারিক
২১. নাগরাকাটা: জোসেফ মুণ্ডা
২২. কালিম্পং:
২৩. দার্জিলিং:
২৪. কার্শিয়ং:
২৫. মাটিগাড়া-নকশালবাড়ি: ক্যাপ্টেন নলিনীরঞ্জন রায়
২৬. শিলিগুড়ি: ওমপ্রকাশ মিশ্র
২৭. ফাঁসিদেওয়া: ছোটন কিস্কু
২৮. চোপড়া: হামিদুল রহমান
২৯.ইসলামপুর: করিম চৌধুরী
৩০.গোয়ালপোখর: গুলাম রব্বানি
৩১.চাকুলিয়া: আরবিন আজাদ
৩২.করণদিঘি: গৌতম পাল
৩৩.হেমতাবাদ: সত্যজিৎ বর্মন
৩৪.কালিয়াগঞ্জ: তপনদেব সিনা
৩৫.রায়গঞ্জ: কানইয়ালাল আগরওয়াল
৩৬.ইটাহার: মোশারফ হোসেন
৩৭.কুশমান্ডি: রেখা রায়
৩৮.কুমারগঞ্জ: তোরফ হোসেন মণ্ডল
৩৯.বালুরঘাট: শেখর দাসগুপ্ত
৪০.তপন: কল্পনা কিস্কু
৪১.গঙ্গারামপুর: গৌতম দাস
৪২.হরিরামপুর: বিপ্লব মিত্র
৪৩.হাবিবপুর: সরলা মুর্মু
৪৪.গাজোল: বাসন্তী বর্মন
৪৫.চাঁচোল: নীহাররঞ্জন ঘোষ
৪৬.হরিশ্চন্দ্রপুর: তেজমুল হোসেন
৪৭.মালতীপুর: আবদুর রহিম বকসি
৪৮.রতুয়া: সমর মুখোপাধ্যায়
৪৯.মানিকচক: সাবিত্রী মিত্র
৫০.মালদহ: উজ্জ্বল চৌধুরী
৫১.ইংরেজবাজার: কৃষ্ণেন্দুনারায়ণ চৌধুরী
৫২.মোথাবাড়ি: সাবিনা ইয়াসমিন
৫৩.সুজাপুর: মহম্মদ আবদুল গনি
৫৪.বৈষ্ণবনগর: চন্দনা সরকার
৫৫.ফারাক্কা: মনিরুল ইসলাম
৫৬.শামসেরগঞ্জ: আমিরুল ইসলাম
৫৭.সুতি: ইমানি বিশ্বাস
৫৮.জঙ্গিপুর: জাকির হোসেন
৫৯.রঘুনাথগঞ্জ: আকরুজ্জামান
৬০.সাগরদিঘি: সুব্রত সাহা
৬১.লালগোলা: মহম্মদ আলি
৬২.ভগবানগোলা: ইদ্রিশ আলি
৬৩.রানিনগর: শমীক হোসেন
৬৪.মুর্শিদাবাদ: শাঁওনি সিংরায়
৬৫.নবগ্রাম: কানাইচন্দ্র মণ্ডল
৬৬.খড়গ্রাম: আশিস মার্জিত
৬৭.বারোয়ান: জীবনকৃষ্ণ সাহা
৬৮.কান্দি: অপূর্ব সরকার
৬৯.ভরতপুর: হুমায়ুন কবীর
৭০.রেজিনগর: রবিউল আলম চৌধুরী
৭১.বেলডাঙা: হানসুজ্জামান শেখ
৭২.বহরমপুর: নাড়ুগোপাল মুখোপাধ্যায়
৭৩.হরিহরপাড়া: নিয়ামত শেখ
৭৪.নওদা: সাহিনা মমতাজ বেগম
৭৫.ডোমকল: জফিকুল ইসলাম
৭৬.জলঙ্গী: আবদুল রেজ্জাক
৭৭.করিমপুর: বিমলেন্দু সিনহা রায়
৭৮.তেহট্ট: তাপসকুমার সাহা
৭৯.পলাশীপাড়া: মানিক ভট্টাচার্য
৮০.কালীগঞ্জ: নাসিরুদ্দিন আহমেদ
৮১.নাকাশিপাড়া: কল্লোল খান
৮২.চাপড়া: রুকবানুর রহমান
৮৩.কৃষ্ণনগর উত্তর: কৌশানী মুখোপাধ্যায়
৮৪.নবদ্বীপ: পুণ্ডরীকাক্ষ সাহা
৮৫.কৃষ্ণনগর দক্ষিণ: উজ্জ্বল বিশ্বাস
৮৬.শান্তিপুর: অজয় দে
৮৭.রানাঘাট উত্তর-পশ্চিম: শংকর সিং
৮৮.কৃষ্ণগঞ্জ: ডা. তাপস মণ্ডল
৮৯.রানাঘাট উত্তর-পূর্ব: সমীরকুমার পোদ্দার
৯০.রানাঘাট দক্ষিণ: বর্ণালী দে
৯১.চাকদহ: শুভঙ্কর সিংহ
৯২.কল্যাণী: রমেন্দ্রনাথ বিশ্বাস
৯৩.হরিণঘাটা: নীলিমা নাগ
৯৪.বাগদা: পরিতোষকুমার সাহা
৯৫.বনগাঁ উত্তর: শ্যামল রায়
৯৬.বনগাঁ দক্ষিণ: আলোরানি সরকার
৯৭.গাইঘাটা: নরোত্তম বিশ্বাস
৯৮.স্বরূপনগর: হিনা মণ্ডল
৯৯.বাদুড়িয়া: কাজি আবদুর রহিম
১০০.হাবড়া: জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক
১০১.অশোকনগর : ধীমান রায়
১০২.আমডাঙা: মোস্তাক মোর্তাজা
১০৩.বীজপুর: সুবোধ অধিকারী
১০৪.নৈহাটি: পার্থ ভৌমিক
১০৫.ভাটপাড়া: জিতেন্দ্র সাউ
১০৬.জগদ্দল: সোমনাথ শ্যাম
১০৭.নোয়াপাড়া: মঞ্জু বসু
১০৮.ব্যারাকপুর: রাজ চক্রবর্তী
১০৯.খড়দহ: কাজল সিনহা
১১০.দমদম উত্তর: চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য
১১১.পানিহাটি: নির্মল ঘোষ
১১২.কামারহাটি: মদন মিত্র
১১৩.বরানগর: তাপস রায়
১১৪. দমদম: ব্রাত্য বসু
১১৫.রাজারহাট নিউটাউন: তাপস চট্টোপাধ্যায়
১১৬.বিধাননগর: সুজিত বসু
১১৭.রাজারহাট গোপালপুর: অদিতি মুন্সি
১১৮.মধ্যমগ্রাম: রথীন ঘোষ
১১৯.বারাসাত: চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তী
১২০.দেগঙ্গা: রহিমা মণ্ডল
১২১.হাড়োয়া: শেখ নরুল ইসলাম
১২২.মিনাখাঁ: উষারানি মণ্ডল
১২৩.সন্দেশখালি: সুকুমার মাহাত
১২৪.বসিরহাট দক্ষিণ: ডা. সপ্তর্ষি বন্দ্যোপাধ্যায়
১২৫.বসিরহাট উত্তর: রফিকুল ইসলাম মণ্ডল
১২৬.হিঙ্গলগঞ্জ: দেবেশ মণ্ডল
১২৭.গোসাবা: জয়ন্ত নস্কর
১২৮.বাসন্তী: শ্যামল মণ্ডল
১২৯.কুলতলি: গণেশচন্দ্র মণ্ডল
১৩০.পাথরপ্রতিমা: সমীরকুমার জানা
১৩১.কাকদ্বীপ: মন্টুরাম পাখিরা
১৩২.সাগর: বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা
১৩৩.কুলপি: যোগরঞ্জন হালদার
১৩৪.রায়দিঘি: অলোক জলদাতা
১৩৫.মন্দিরবাজার: জয়দেব হালদার
১৩৬.জয়নগর: বিশ্বনাথ দাস
১৩৭.বারুইপুর পূর্ব: বিভাস সরকার
১৩৮.ক্যানিং পশ্চিম: পরেশরাম দাস
১৩৯.ক্যানিং পূর্ব: সওকত মোল্লা
১৪০.বারুইপুর পশ্চিম: বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়
১৪১.মগরাহাট পূর্ব: নমিতা সাহা
১৪২.মহরাহাট পশ্চিম: গিয়াসউদ্দিন মোল্লা
১৪৩.ডায়মন্ড হারবার: পান্নালাল হালদার
১৪৪.ফলতা: শংকরকুমার নস্কর
১৪৫.সাতগাছিয়া: মোহনচন্দ্র নস্কর
১৪৬.বিষ্ণুপুর পশ্চিম: দিলীপ মণ্ডল
১৪৭.সোনারপুর দক্ষিণ: লাভলি মিত্র
১৪৮.ভাঙড়: মহম্মদ রেজাউল করিম
১৪৯.কসবা: জাভেদ অহমেদ খান
১৫০.যাদবপুর: মলয় মজুমদার
১৫১.সোনারপুর উত্তর: ফৌরদৌসী বেগম
১৫২.টালিগঞ্জ: অরূপ বিশ্বাস
১৫৩.বেহালা পূর্ব: রত্না চট্টোপাধ্যায়
১৫৪.বেহালা পশ্চিম: পার্থ চট্টোপাধ্যায়
১৫৫.মহেশতলা: দুলালচন্দ্র দাস
১৫৬.বজবজ: অশোক দেব
১৫৭.মেটিয়াবুরুজ: আবদুল খালেক মোল্লা
১৫৮.কলকাতা বন্দর: ফিরহাদ হাকিম
১৫৯.ভবানীপুর: শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়
১৬০.রাসবিহারী: দেবাশিস কুমার
১৬১.বালিগঞ্জ: সুব্রত মুখোপাধ্যায়
১৬২.চৌরঙ্গি: নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়
১৬৩.এন্টালি: স্বর্ণকমল সাহা
১৬৪.বেলেঘাটা: পরেশ পাল
১৬৫.জোড়াসাঁকো: বিবেক গুপ্ত
১৬৬.শ্যামপুকুর: শশী পাঁজা
১৬৭.মানিকতলা: সাধন পাণ্ডে
১৬৮.কাশীপুর-বেলগাছিয়া: অতীন ঘোষ
১৬৯. বালি: রানা চট্টোপাধ্যায়
১৭০.হাওড়া উত্তর: গৌতম চৌধুরী
১৭১.হাওড়া মধ্য:  অরূপ রায়
১৭২.শিবপুর: মনোজ তিওয়ারি
১৭৩.হাওড়া দক্ষিণ: নন্দিতা চৌধুরী
১৭৪.সাঁকরাইল: প্রিয়া পাল
১৭৫.পাঁচলা: গুলশন মল্লিক
১৭৬.উলুবেড়িয়া পূর্ব: বিদেশ বসু
১৭৭.উলুবেড়িয়া উত্তর: ডা. নির্মল মাজি
১৭৮.উলুবেড়িয়া দক্ষিণ: পুলক রায়
১৭৯.শ্যামপুর: কালীপদ মণ্ডল
১৮০. বাগনান: অরুণাভ সেন
১৮১.আমতা: সুশান্ত পাল
১৮২.উদয়নারায়ণপুর: সমীরকুমার পাঁজা
১৮৩.জগৎবল্লভপুর: সীতানাথ ঘোষ
১৮৪.ডোমজুড়: কল্যাণ ঘোষ
১৮৫.উত্তরপাড়া: কাঞ্চন মল্লিক
১৮৬.শ্রীরামপুর: সুদীপ্ত রায়
১৮৭.চাঁপদানি: অরিন্দম গুঁই
১৮৮.সিঙ্গুর: বেচারাম মান্না
১৮৯.চন্দননগর:  ইন্দ্রনীল সেন
১৯০.চুঁচুড়া: অসিত মজুমদার
১৯১.বলাগড়: মনোরঞ্জ বেপারি
১৯২.পান্ডুয়া: রত্না দে নাগ
১৯৩.সপ্তগ্রাম: তপন দাশগুপ্ত
১৯৪.চণ্ডীতলা: স্বাতী খোন্দকর
১৯৫.জাঙ্গিপাড়া: স্নেহাশিস চক্রবর্তী
১৯৬.হরিপাল: করবী মান্না
১৯৭.ধনেখালি: অসিত পাত্র
১৯৮.তারকেশ্বর: রমেন্দু সিংহ রায়
১৯৯.পুড়শুড়া: দিলীপ যাদব
২০০.আরামবাগ: সুজাতা মণ্ডল খাঁ
২০১.গোঘাট: মানস মজুমদার
২০২.খানাকুল: মুন্সি নাজিবুল করিম
২০৩.তমলুক: ডা. সৌমেনকুমার মহাপাত্র
২০৪.পাঁশকুড়া পূর্ব : বিপ্লব রায়চৌধুরী
২০৫.পাঁশকুড়া পশ্চিম: ফিরোজা বিবি
২০৬.ময়না: সংগ্রামকুমার দোলুই
২০৭.নন্দকুমার: সুকুমার দে
২০৮.মহিষাদল: তিলক চক্রবর্তী
২০৯.হলদিয়া: স্বপন নস্কর
২১০.নন্দীগ্রাম: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
২১১.চণ্ডীপুর: সোহম চক্রবর্তী
২১২.পটাশপুর: উত্তম বারিক
২১৩.কাঁথি উত্তর: তরুণকুমার জানা
২১৪.ভগবানপুর: অর্ধেন্দু মাইতি
২১৫.খেজুরি: পার্থপ্রতীম দাস
২১৬.কাঁথি দক্ষিণ: জ্যোতির্ময় কর
২১৭.রামনগর: অখিল গিরি
২১৮.এগরা: তরুণ মাইতি
২১৯.দাঁতন: বিক্রমচন্দ্র প্রধান
২২০.নয়াগ্রাম: দুলাল মুর্মু
২২১.গোপীবল্লভপুর: ডা. খগেন্দ্রনাথ মাহাত
২২২.ঝাড়গ্রাম: বীরবাহা হাঁসদা
২২৩.কেশিয়াড়ি: পরেশ মুর্মু
২২৪.খড়গপুর সদর: প্রদীপ সরকার
২২৫.নারায়ণগড়: সূর্যকান্ত আটা
২২৬.সবং: মানস ভুঁইয়া
২২৭.পিংলা: অজিত মাইতি
২২৮.খড়গপুর: দীনেন রায়
২২৯.ডেবরা: হুময়ুন কবীর
২৩০.দাসপুর: মমতা ভুঁইয়া
২৩১.ঘাটাল: শংকর দোলুই
২৩২.চন্দ্রকোণা: অরূপ ধাড়া
২৩৩.গড়বেতা: উত্তরা সিংহ (হাজরা)
২৩৪.শালবনি: শ্রীকান্ত মাহাত
২৩৫.কেশপুর: শিউলি সাহা
২৩৬.মেদিনীপুর: জুন মাল্য
২৩৭.বিনপুর: দেবনাথ হাঁসদা
২৩৮.বান্দোয়ান: রাজীবলোচন সোরেন
২৩৯.বলরামপুর: শান্তিরাম মাহাত
২৪০.বাগমুন্ডি: সুশান্ত মাহাত
২৪১.জয়পুর: উজ্জ্বল কুমার
২৪২.পুরুলিয়া: সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায়
২৪৩.মানবাজার: সন্ধ্যারানি টুডু
২৪৪.কাশীপুর: স্বপনকুমার বেলথরিয়া
২৪৫.পাড়া: উমাপদ বাউড়ি
২৪৬.রঘুনাথপুর: হাজারি বাউড়ি
২৪৭.শালতোড়া: সন্তোষ মণ্ডল
২৪৮.ছাতনা: শুভাশিস বটব্যাল
২৪৯.রানিবাঁধ: জ্যোৎস্না মাণ্ডি
২৫০.রায়পুর: মৃত্যুঞ্জয় মুর্মু
২৫১.তালডাঙরা: অরূপ চক্রবর্তী
২৫২.বাঁকুড়া: সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়
২৫৩.বরজোড়া: অলোক মুখোপাধ্যায়
২৫৪.ওন্দা: অরূপকুমার খাঁ
২৫৫.বিষ্ণুপুর: অর্চিতা বিদ
২৫৬.কোতুলপুর: সংগীতা মালিক
২৫৭.ইন্দাস: রুনু মেটে
২৫৮.সোনামুখী: শ্যামল সাঁতরা
২৫৯.খণ্ডঘোষ: নবীনচন্দ্র বাগ
২৬০.বর্ধমান দক্ষিণ: খোকন দাস
২৬১.রায়না: শম্পা ধাড়া
২৬২.জামালপুর: অলোককুমার মাঝি
২৬৩.মন্তেশ্বর: সিদ্দিকুল্লা চৌধুরি
২৬৪.কালনা: দেবপ্রসাদ বাগ
২৬৫.মেমারি: মধুসূদন ভট্টাচার্য
২৬৬..বর্ধমান উত্তর: তপন চট্টোপাধ্যায়
২৬৭.ভাতার: মনগোবিন্দ অধিকারী
২৬৮.পূর্বস্থলী দক্ষিণ: স্বপন দেবনাথ
২৬৯.পূর্বস্থলী উত্তর: তপন চট্টোপাধ্যায়
২৭০.কাটোয়া: রবীন্দ্রনাথ চট্টোপাধ্যায়
২৭১.কেতুগ্রাম: শেখ শাহনওয়াজ
২৭২.মঙ্গলকোট: অপূর্ব চৌধুরী
২৭৩.আউশগ্রাম: অভেদানন্দ থান্ডের
২৭৪.গলসি: নেপাল ঘোড়ুই
২৭৫.পাণ্ডবেশ্বর: নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী
২৭৬.দুর্গাপুর পূর্ব: প্রদীপ মজুমদার
২৭৭.দুর্গাপুর পশ্চিম: বিশ্বনাথ পারিয়াল
২৭৮.রানিগঞ্জ: তাপস বন্দ্যোপাধ্যায়
২৭৯.জামুরিয়া: হরেরাম সিং
২৮০.আসানসোল দক্ষিণ:  সায়নী ঘোষ
২৮১.আসানসোল উত্তর: মলয় ঘটক
২৮২.কুলটি: উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়
২৮৩.বরাবনি: বিধান উপাধ্যায়
২৮৪.দুবরাজপুর: অসীমা ধীবর
২৮৫.সিউড়ি: বিকাশ রায়চৌধুরী
২৮৬.বোলপুর:  চন্দ্রনাথ সিনহা
২৮৭..নানুর: বিধানচন্দ্র মাঝি
২৮৮.লাভপুর: অভিজিৎ সিংহ
২৮৯.সাঁইথিয়া: নীলাবতী সাহা
২৯০.ময়ূরেশ্বর: অভিজিৎ রায়
২৯১.রামপুরহাট: ডা. আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়
২৯২..হাঁসন: অশোককুমার চট্টোপাধ্যায়
২৯৩.নলহাটি: রাজেন্দ্রপ্রসাদ সিং
২৯৪. মুরারই: আবদুর রহমান

আপডেট পেতে দেখুন: খবর অনলাইন

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

রাজ্য

Bengal Polls 2021: পঞ্চম দফায় ভোটগ্রহণ শনিবার, দেখে নিন ৪৫ কেন্দ্রে কোন দলের প্রার্থী কে

১৭ এপ্রিল রাজ্যের ৪৫টি কেন্দ্রে ভোট, এক নজরে দেখে নিন সেখানকার প্রার্থীতালিকা-

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনের (West Bengal Assembly Elections) পঞ্চম ধাপে ৪৫টি আসনে ভোটগ্রহণ শনিবার। এই পর্বে রাজ্যের ৬টি জেলায় ভোটগ্রহণ হবে। এর আগে, চার ধাপের ভোটে ২৯৪টি বিধানসভা আসনের মধ্যে ১৩৫টিতে প্রার্থীদের ভাগ্য নির্ধারণ করেছেন ভোটাররা।

পঞ্চম দফা (১৭ এপ্রিল)

তৃণমূল, বিজেপি এবং সংযুক্ত মোর্চার (বামফ্রন্ট, কংগ্রেস, আইএসএফ জোট) প্রার্থী ছাড়া অন্য দল এবং নির্দল প্রার্থীও রয়েছেন। নীচে শুধু মাত্র তিনটি* দলের প্রার্থীর নামের তালিকা উল্লেখ করা হল।

Loading videos...

১. ধুপগুড়ি: মিতালী রায় (তৃণমূল), বিষ্ণুপদ রায় (বিজেপি), প্রদীপকুমার রায় (সিপিএম)

২. ময়নাগুড়ি: মনোজ রায় (তৃণমূল), কৌশিক রায় (বিজেপি), নরেশচন্দ্র রায় (আরএসপি)

৩. জলপাইগুড়ি: প্রদীপকুমার বর্মা (তৃণমূল), সুজিত সিংহ (বিজেপি), সুখবিলাস বর্মা (কংগ্রেস)

৪. রাজগঞ্জ: খগেশ্বর রায় (তৃণমূল), সুপেন রায় (বিজেপি), রতন রায় (সিপিএম)

৫. ডাবগ্রাম-ফুলবাড়ি: গৌতম দেব (তৃণমূল), শিখা চট্টোপাধ্যায় (বিজেপি), দিলীপ সিং (সিপিএম)

৬. মাল: বুলুচিক বড়াইক (তৃণমূল), মহেশ বাগে (বিজেপি), মনু ওরাওঁ (সিপিএম)

৭. নাগরাকাটা: জোসেফ মুন্ডা (তৃণমূল), পুনা ভেংরা (বিজেপি), সুখবীর সুব্বা (কংগ্রেস)

৮. কালিম্পং*: রাম বাহাদুর ভুজেল (জিজেএম/ গুরুং), রুডেন সদা লেপচা (জিজেএম/তামাং), সুভ প্রধান (বিজেপি), দিলীপ প্রধান (কংগ্রেস)

৯. দার্জিলিং*: প্রেম্বা শেরিং (জিজেএম/ গুরুং), কেশবরাজ শর্মা (জিজেএম/তামাং), নীরজ জিম্বা (বিজেপি), গৌতম রাজ রাই (সিপিএম)

১০. কার্শিয়াং*: নরবু লামা (জিজেএম/ গুরুং), শেরিং লামা দাহাল (জিজেএম/তামাং), বিষ্ণুপ্রসাদ শর্মা (বিজেপি), উত্তম ব্রাহ্মণ (সিপিএম)

১১. মাটিগাড়া-নকশালবাড়ি: রজন সুনদাস (তৃণমূল), আনন্দময় বর্মন (বিজেপি), শঙ্কর মালাকার (কংগ্রেস)

১২. শিলিগুড়ি: ওমপ্রকাশ মিশ্র (তৃণমূল), শঙ্কর ঘোষ (বিজেপি), অশোক ভট্টাচার্য (সিপিএম)

১৩. ফাঁসিদেওয়া: ছোটন কিস্কু (তৃণমূল), দুর্গা মুর্মু (বিজেপি), সুনীলচন্দ্র তিরকে (কংগ্রেস)

১৪. শান্তিপুর: অজয় দে (তৃণমূল), জগন্নাথ সরকার (বিজেপি), ঋজু ঘোষাল (কংগ্রেস)

১৫. রানাঘাট উত্তর পশ্চিম: শঙ্কর সিংহ (তৃণমূল), পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায় (বিজেপি), বিজয়েন্দু বিশ্বাস (কংগ্রেস)

১৬. কৃষ্ণগঞ্জ: তাপস মণ্ডল (তৃণমূল), আশিসকুমার বিশ্বাস (বিজেপি), অনুপ মণ্ডল (আরএসএমপি)

১৭. রানাঘাট উত্তর পূর্ব: সমীরকুমার পোদ্দার (তৃণমূল), অসীম বিশ্বাস (বিজেপি), দীনেশচন্দ্র বিশ্বাস (আরএসএমপি)

১৮. রানাঘাট দক্ষিণ: বর্ণালী দে (তৃণমূল), মুকুটমণি অধিকারী (বিজেপি), রমা বিশ্বাস (সিপিএম)

১৯. চাকদহ: শুভঙ্কর সিংহ (তৃণমূল), বঙ্কিমচন্দ্র ঘোষ (বিজেপি), নারায়ণ দাশগুপ্ত (সিপিএম)

২০. কল্যাণী: অনিরুদ্ধ বিশ্বাস (তৃণমূল), অম্বিকা রায় (বিজেপি), সবুজ দাস (সিপিএম)

২১. হরিণঘাটা: নীলিমা নাগ মল্লিক (তৃণমূল), অসীম সরকার (বিজেপি), অলোকেশ দাস (সিপিএম)

২২. পানিহাটি: নির্মল ঘোষ (তৃণমূল), সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় (বিজেপি), তাপস মজুমদার (কংগ্রেস)

২৩. কামারহাটি: মদন মিত্র (তৃণমূল), অনিন্দ্য রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় (বিজেপি), সায়নদীপ মিত্র (সিপিএম)

২৪. বরানগর: তাপস রায় (তৃণমূল), পার্নো মিত্র (বিজেপি), অমলকুমার মুখোপাধ্যায় (কংগ্রেস)

২৫. দমদম: ব্রাত্য বসু (তৃণমূল), বিমলশঙ্কর নন্দ (বিজেপি), পলাশ দাস (সিপিএম)

২৬. রাজারহাট নিউটাউন: তাপস চট্টোপাধ্যায় (তৃণমূল), ভাস্কর রায় (বিজেপি), সপ্তর্ষি দেব (সিপিএম)

২৭. বিধাননগর: সুজিত বসু (তৃণমূল), সব্যসাচী দত্ত (বিজেপি), অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (কংগ্রেস)

২৮. রাজারহাট গোপালপুর: অদিতি মুন্সি (তৃণমূল), শমীক ভট্টাচার্য (বিজেপি), শুভজিৎ দাশগুপ্ত (সিপিএম)

২৯. মধ্যমগ্রাম: রথীন ঘোষ (তৃণমূল), রাজশ্রী রাজবংশী (বিজেপি), বিশ্বজিৎ মাইতি (আরএসএমপি)

৩০. বারাসত: চিরঞ্জিৎ চক্রবর্তী (তৃণমূল), শঙ্কর চট্টোপাধ্যায় (বিজেপি), সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় (ফব)

৩১. দেগঙ্গা: রহিমা মণ্ডল (তৃণমূল), দিপীকা চট্টোপাধ্যায় (বিজেপি), করিম আলি (আরএসএমপি)

৩২. হাড়োয়া: হাজি শেখ নুরুল ইসলাম (তৃণমূল), রাজেন্দ্র সাহা (বিজেপি), কুতুবুদ্দিন ফতেহি (আরএসএমপি)

৩৩. মিনাখাঁ: ঊষারানি মণ্ডল (তৃণমূল), জয়ন্ত মণ্ডল (বিজেপি), প্রদ্যোৎ রায় (সিপিএম)

৩৪. সন্দেশখালি: সুকুমার মাহাতো (তৃণমূল), ভাস্কর সরদার (বিজেপি), বরুণ মাহাতো (আরএসএমপি)

৩৫. বসিরহাট দক্ষিণ: সপ্তর্ষি বন্দ্যোপাধ্যায় (তৃণমূল), তারকনাথ ঘোষ (বিজেপি), অমিত মজুমদার (কংগ্রেস)

৩৬. বসিরহাট উত্তর: রফিকুল ইসলাম মণ্ডল (তৃণমূল), নারায়ণ মণ্ডল (বিজেপি), বাইজিদ আমিন (আরএসএমপি)

৩৭. হিঙ্গলগঞ্জ: দেবেশ মণ্ডল (তৃণমূল), নিমাই দাস (বিজেপি), রঞ্জন মণ্ডল (সিপিআই)

৩৮. খণ্ডঘোষ: নবীনচন্দ্র বাগ (তৃণমূল), বিজন মণ্ডল (বিজেপি). অসীমা রায় (সিপিএম)

৩৯. বর্ধমান দক্ষিণ: খোকন দাস (তৃণমূল), সন্দীপ নন্দী (বিজেপি), পৃথা তা (সিপিএম)

৪০. রায়না: শম্পা ধাড়া (তৃণমূল), মানিক রায় (বিজেপি), বাসুদেব খাঁ (সিপিএম)

৪১. জামালপুর: অলোককুমার মাঝি (তৃণমূল), বলরাম ব্যাপারী (বিজেপি), সমর হাজরা (এমএফবি)

৪২. মন্তেশ্বর: সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী (তৃণমূল), সৈতক পাঁজা (বিজেপি), অনুপম ঘোষ (সিপিএম)

৪৩. কালনা: দেবপ্রসাদ বাগ (তৃণমূল), বিশ্বজিৎ কুণ্ডু (বিজেপি), নীরব খাঁ (সিপিএম)

৪৪. মেমারি: মধুসূদন ভট্টাচার্য (তৃণমূল), ভীষ্মদেব ভট্টাচার্য (বিজেপি), সনৎ বন্দ্যোপাধ্যায় (সিপিএম)

৪৫. বর্ধমান উত্তর: নিশীথকুমার মালিক (তৃণমূল), রাধাকান্ত রায় (বিজেপি), চণ্ডীচরণ লেট (সিপিএম)

আরও পড়তে পারেন: Bengal Polls 2021: চতুর্থ দফায় ভোটগ্রহণ শনিবার, দেখে নিন ৪৪ কেন্দ্রে কোন দলের প্রার্থী কে

Continue Reading

রাজ্য

নজরে কোভিড পরিস্থিতি, ভোটের প্রচারে বড়ো জমায়েত নিয়ে বামফ্রন্টের নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত

আপাতত বড়োসড়ো জমায়েত বা রোড শো নয়।

Published

on

খবর অনলাইন ডেস্ক: ক্রমবর্ধমান করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে শেষ তিন দফার ভোটের প্রচার নিয়ে নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত নিল সিপিএম নেতৃত্বাধীন বামফ্রন্ট। বুধবার আলিমুদ্দিন ষ্ট্রিটে সাংবাদিক বৈঠকে এই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দিলেন সিপিএমের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম।

বর্তমান পরিস্থিতির জন্য কেন্দ্র ও রাজ্যকে তোপ দেগে সেলিম এ দিন জানান, “বামফ্রন্ট সিদ্ধান্ত নিয়েছে, আপাতত বড়োসড়ো জমায়েত বা রোড শো করা হবে না। অল্প সংখ্যক কর্মী-সমর্থককে নিয়ে ছোটো ছোটো সভা করা হবে। প্রার্থী-সহ হাতে গোনা কয়েক জন যাবেন বাড়ি বাড়ি প্রচারে”।

Loading videos...

পাশাপাশি নেটমাধ্যম ব্যবহার করেও প্রচারে আরও জোর দেবে বামফ্রন্ট। যেখানে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার কোনো সমস্যা থাকছে না। সেলিম বলেন, “যেখানে যেখানে ভোট হয়ে গিয়েছে অথবা হবে সেই সমস্ত জায়গায় আমরা গত এক বছর ধরে আমরা পরিষেবা দিয়ে আসছি। এখন একই ভাবে আমরা তা চালিয়ে যাব। আক্রান্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানো, বাস্তব পরিস্থিতি মেনে সবাইকে সচেতন করা এবং অসহায় মানুষের কাছে যাওয়া, মানুষের হক নিয়ে লড়াই করা। রেশন ও খাদ্য পৌঁছে দেওয়ার মতো কাজ করব”।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করা নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য সরকারকে নিশানায় রেখে সেলিম বলেন, “প্রধানমন্ত্রী ও মুখ্যমন্ত্রীর করোনা মোকাবিলায় জোর দেওয়া উচিত। কিন্তু দু’ জনই এখন মেরুকরণের রাজনীতিতে ব্যস্ত। ভোট রাজনীতি করতে মানুষে মানুষে বিভেদ তৈরি করছেন। এমনকি ভ্যাকসিন নিয়েও দুই সরকার উদাসীন”।

আগামী শনিবার রাজ্যের পঞ্চম দফার ভোট। ৭২ ঘণ্টা আগে ভোটপ্রচার বন্ধ হয়েছে বুধবার। বাকি তিন দফার প্রচারে সামাজিক দূরত্ব মেনে, নেটমাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে এবং ছোটো ছোটো বৈঠক করেও প্রচারের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে বলে জানান বাম নেতৃত্ব।

আরও পড়তে পারেন: ফের লকডাউনের আশঙ্কায় ভীত-সন্ত্রস্ত অভিবাসী শ্রমিকরা, কন্ট্রোল রুমে ফোনের পর ফোন ঝাড়খণ্ডে

Continue Reading

রাজ্য

Bengal Corona: ভয়াবহ পরিস্থিতি! একদিনেই আক্রান্ত প্রায় ছ’হাজার

সাধারণ মানুষের একটা বড়ো অংশ নির্লজ্জের মতো সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন যে কোনো ভাবেই তাঁরা মাস্ক পরবেন না। ফলে বাংলাকে আগামী দিনে আরও ভুগতেই হবে।

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রাজ্যের করোনা-পরিস্থিতি ক্রমে হাতের বাইরে বেরিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা তৈরি করছে। রাজ্যে প্রথম বার দৈনিক সংক্রমণ ৫ হাজার ছাড়াল, কিন্তু সেটা এক ধাক্কায় ৬ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছে গেল। আরও ভয়ংকর ব্যাপার হল এক দিনে রাজ্যে সক্রিয় রোগী বেড়েছে সাড়ে ৩ হাজারেরও বেশি। অন্যান্য দিন রাজ্যের কোভিডতথ্যে খুঁজে পেতে তাও কিছু ইতিবাচক ব্যাপার দেখা যায়। কিন্তু বুধবারের রিপোর্টে সে সব কিছুই দেখা গেল না।

রাজ্যের কোভিড-তথ্য

গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে কোভিডে (Covid 19) আক্রান্ত হয়েছেন ৫,৮৬২ জন। এর ফলে রাজ্যে মোট কোভিডরোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬ লক্ষ ৩০ হাজার ১১৬।

Loading videos...

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২,২৯৭ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ লক্ষ ৮৭ হাজার ৩৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। ফলত এ দিন মৃত্যুহার ছিল ০.৪০ শতাংশ। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ১০ হাজার ৪৫৮ জন।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৩২ হাজার ৬২১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩,৫৭১ জন সক্রিয় রোগী বেড়েছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার বর্তমানে ৯৩.১৬ শতাংশ।

দৈনিক সংক্রমণের হার সাড়ে ১৩ শতাংশ

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৪৩ হাজার ৪৬৩টি। ফলে এ দিন সংক্রমণের হার ছিল ১৩.৫৫ শতাংশ। গত বছর জুলাইয়ে একটা সময়ে রাজ্যে সংক্রমণের হার ১৭ শতাংশে উঠে গিয়েছিল। এ বার করোনার ঢেউ সেই রেকর্ডকে ভেঙে দেয় কি না, সেটাই দেখার।

রাজ্যের সামগ্রিক সংক্রমণের হার বর্তমানে রয়েছে ৬.৫৪ শতাংশ। শনিবার পর্যন্ত মোট ৯৬ লক্ষ ৩২ হাজার ৮৪১টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

হাসপাতাল শয্যা-তথ্য

কিছুটা নিশ্চিন্তের ব্যাপার হল গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যের হাসপাতালগুলিতে কোভিডরোগীদের জন্য নির্ধারিত বেডের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। ৫,৬০৪ থেকে বর্তমানে রাজ্যে কোভিড-শয্যার সংখ্যা ৭,৪২৮। স্বাভাবিক ভাবেই ভরতি হওয়া বেডের শতাংশও কিছুটা কমেছে। বর্তমানে ৩২.১৫ শতাংশ বেড ভরতি রয়েছে।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণার পরিস্থিতি

কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণায় দৈনিক সংক্রমণ রেকর্ড করেই চলেছে। কলকাতায় নতুন করে আক্রান্ত ১,৬০১ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ১,২৭৭ জন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ৬২০ এবং ৫৪৬ জন। দুই জেলাতেই ৭ জন করে কোভিডরোগীর মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১ লক্ষ ৪৫ হাজার ৩৪৩, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ১ লক্ষ ৩৫ হাজার ৯৮৭। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৯,৩৮০ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ৭,২৭০। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৩,১৭৫ এবং ২,৫৬৭ জনের।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

গত ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণচিত্র দেখে মনে হচ্ছে কয়েকটি জেলার পরিস্থিতি কলকাতার থেকেও খারাপ। কারণ স্বাভাবিক ভাবেই রাজ্যের জেলাগুলিতে বেশি পরিমাণে টেস্ট হয় না। সব থেকে বেশি টেস্ট কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণাতেই হয়। কিন্তু বেশি টেস্ট না হওয়া সত্ত্বেও ওই কয়েকটি জেলায় সংক্রমণের যা তথ্য সামনে এসেছে, তা রীতিমতো ভয়ের।

রাজ্যে বাকি ২১টি জেলায় সংক্রমণ কেমন ছিল, তার তালিকা দেওয়া হল নীচে। সংশ্লিষ্ট জেলাগুলিতে এ দিন কত জন আক্রান্ত হয়েছেন, সেই তথ্য দেওয়া হল ব্র্যাকেটে।

১) দক্ষিণ ২৪ পরগণা (৩৩৭)

২) হাওড়া (৩৩০)

৩) বীরভূম (৩২৯)

৪) হুগলি (২৮৯)

৫) পশ্চিম বর্ধমান (২৫৩)

৬) মালদা (২৪৯)

৭) মুর্শিদাবাদ (১৭০)

৮) নদিয়া (১৬৮)

৯) পূর্ব বর্ধমান (১৬২)

১০) পুরুলিয়া (১২৫)

১১) দার্জিলিং (১০৯)

১২) জলপাইগুড়ি (৯৮)

১৩) পূর্ব মেদিনীপুর (৮৫)

১৪) পশ্চিম মেদিনীপুর (৮১)

১৫) উত্তর দিনাজপুর (৮০)

১৬) বাঁকুড়া (৪৯)

১৭) দক্ষিণ দিনাজপুর (৪০)

১৮) কোচবিহার (২২)

১৯) কালিম্পং (১৪)

২০) ঝাড়গ্রাম (১২)

২১) আলিপুরদুয়ার (১২)

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
বাংলাদেশ1 hour ago

Bangladesh: বাংলা একাডেমির সভাপতি শামসুজ্জামান খান ও সাবেক আইনমন্ত্রী আবদুল মতিন খসরুর প্রয়াণ

বাংলাদেশ2 hours ago

Bangladesh Lockdown: দেশ জুড়ে কঠোর লকডাউন, পথে পথে তল্লাশি চৌকি, মুভমেন্ট পাশ ছাড়া চলাচল বন্ধ

ক্রিকেট2 hours ago

IPL 2021: আরসিবির হয়ে জ্বলে উঠলেন বাংলার শাহবাজ, তীরে এসে তরী ডোবাল হায়দরাবাদ

রাজ্য3 hours ago

Bengal Polls 2021: পঞ্চম দফায় ভোটগ্রহণ শনিবার, দেখে নিন ৪৫ কেন্দ্রে কোন দলের প্রার্থী কে

AstraZeneca-twiter
বিদেশ4 hours ago

অ্যাস্ট্রাজেনেকা কোভিড ভ্যাকসিনের ব্যবহার স্থায়ী ভাবে বন্ধ করল ডেনমার্ক

রাজ্য5 hours ago

নজরে কোভিড পরিস্থিতি, ভোটের প্রচারে বড়ো জমায়েত নিয়ে বামফ্রন্টের নজিরবিহীন সিদ্ধান্ত

রাজ্য5 hours ago

Bengal Corona: ভয়াবহ পরিস্থিতি! একদিনেই আক্রান্ত প্রায় ছ’হাজার

দেশ6 hours ago

ফের লকডাউনের আশঙ্কায় ভীত-সন্ত্রস্ত অভিবাসী শ্রমিকরা, কন্ট্রোল রুমে ফোনের পর ফোন ঝাড়খণ্ডে

ক্রিকেট2 days ago

IPL 2021: কাজে এল না সঞ্জু স্যামসনের মহাকাব্যিক শতরান, পঞ্জাবের কাছে হারল রাজস্থান

প্রবন্ধ2 days ago

First Man In Space: ইউরি গাগারিনের মহাকাশ বিজয়ের ৬০ বছর আজ, জেনে নিন কিছু আকর্ষণীয় তথ্য

দেশ3 days ago

Kumbh Mela 2021: করোনাবিধিকে শিকেয় তুলে এক লক্ষ মানুষের সমাগম, আজ কুম্ভের প্রথম শাহি স্নান হরিদ্বারে

ক্রিকেট3 days ago

IPL 2021: সাড়ে ৭টায় খেলা শুরু হওয়া নিয়ে তীব্র অসন্তুষ্ট মহেন্দ্র সিংহ ধোনি

দেশ2 days ago

Vaccination Drive: এসে গেল তৃতীয় টিকা, স্পুটনিক ফাইভে অনুমোদন দিয়ে দিল কেন্দ্র

দেশ3 days ago

Corona Update: এক ধাক্কায় সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় প্রায় ১ লক্ষের বৃদ্ধি, তবে দৈনিক মৃত্যুহার ০.৫৩ শতাংশ

দেশ2 days ago

Election Commission of India: নতুন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুশীল চন্দ্র, মঙ্গলবার থেকে দায়িত্ব নিচ্ছেন

দেশ2 days ago

Sputnik V: এপ্রিলের শেষে ভারতের বাজারে চলে আসবে টিকা, জানাল রাশিয়া

ভোটকাহন

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 weeks ago

বাজেট কম? তা হলে ৮ হাজার টাকার নীচে এই ৫টি স্মার্টফোন দেখতে পারেন

আট হাজার টাকার মধ্যেই দেখে নিতে পারেন দুর্দান্ত কিছু ফিচারের স্মার্টফোনগুলি।

কেনাকাটা2 months ago

সরস্বতী পুজোর পোশাক, ছোটোদের জন্য কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সরস্বতী পুজোয় প্রায় সব ছোটো ছেলেমেয়েই হলুদ লাল ও অন্যান্য রঙের শাড়ি, পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে। তাই ছোটোদের জন্য...

কেনাকাটা2 months ago

সরস্বতী পুজো স্পেশাল হলুদ শাড়ির নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই সরস্বতী পুজো। এই দিন বয়স নির্বিশেষে সবাই হলুদ রঙের পোশাকের প্রতি বেশি আকর্ষিত হয়। তাই হলুদ রঙের...

কেনাকাটা3 months ago

বাসন্তী রঙের পোশাক খুঁজছেন?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: সামনেই আসছে সরস্বতী পুজো। সেই দিন হলুদ বা বাসন্তী রঙের পোশাক পরার একটা চল রয়েছে অনেকের মধ্যেই। ওই...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরদোরের মেকওভার করতে চান? এগুলি খুবই উপযুক্ত

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘরদোর সব একঘেয়ে লাগছে? মেকওভার করুন সাধ্যের মধ্যে। নাগালের মধ্যে থাকা কয়েকটি আইটেম রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার...

কেনাকাটা3 months ago

সিলিকন প্রোডাক্ট রোজের ব্যবহারের জন্য খুবই সুবিধেজনক

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন সামগ্রী এখন সিলিকনের। এগুলির ব্যবহার যেমন সুবিধের তেমনই পরিষ্কার করাও সহজ। তেমনই কয়েকটি কাজের সামগ্রীর খোঁজ...

কেনাকাটা3 months ago

আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজ রইল আরও কয়েকটি ব্র্যান্ডেড মেকআপ সামগ্রী ৯৯ টাকার মধ্যে অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন লেখার সময় যে দাম ছিল...

কেনাকাটা3 months ago

রান্নাঘরের এই সামগ্রীগুলি কি আপনার সংগ্রহে আছে?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরে বাসনপত্রের এমন অনেক সুবিধেজনক কালেকশন আছে যেগুলি থাকলে কাজ অনেক সহজ হয়ে যেতে পারে। এমনকি দেখতেও সুন্দর।...

কেনাকাটা3 months ago

৫০% পর্যন্ত ছাড় রয়েছে এই প্যান্ট্রি আইটেমগুলিতে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: দৈনন্দিন জীবনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসগুলির মধ্যে বেশ কিছু এখন পাওয়া যাচ্ছে প্রায় ৫০% বা তার বেশি ছাড়ে। তার মধ্যে...

কেনাকাটা3 months ago

ঘরের জন্য কয়েকটি খুবই প্রয়োজনীয় সামগ্রী

খবরঅনলাইন ডেস্ক: নিত্যদিনের প্রয়োজনীয় ও সুবিধাজনক বেশ কয়েকটি সামগ্রীর খোঁজ রইল অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় যে দাম ছিল তা-ই...

নজরে