পশ্চিমবঙ্গে করোনা পরিস্থিতির আরও উন্নতি, সংক্রমণের হার নামল ৭ শতাংশে

0

কলকাতা: রবিবারের তুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় প্রচুর সংখ্যক টেস্ট বেশি হওয়ার পরেও পশ্চিমবঙ্গে করোনা সংক্রমণ কমে গেল। ফলে এক ধাক্কায় রাজ্যে সংক্রমণের হার নেমে এল ৭ শতাংশের ঘরে। টেস্ট বাড়ার ফলে স্বাভাবিক ভাবেই কলকাতার সংক্রমণ বাড়লেও তা থাকল ছ’শোর নীচে। অন্যদিকে, নতুন সংক্রমণের পাআয় ৪ গুণ মানুষ সুস্থ হওয়ায় এ দিন আরও প্রায় ১৫ হাজার সক্রিয় রোগী কমল রাজ্যে। সব মিলিয়ে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির আরও অনেকটাই উন্নতি হল।

রাজ্যের কোভিড পরিস্থিতি

স্বাস্থ্য দফতরের প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় গোটা রাজ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ৪ হাজার ৪৯৪ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ লক্ষ ৭৪ হাজার ২৮৫।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৮ হাজার ৮২৫ জন। এর ফলে এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট কোভিডজয়ীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৮ লক্ষ ৭৩ হাজার ৭০৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত কোভিডে প্রাণ হারিয়েছেন মোট ২০ হাজার ৪১১ জন। রাজ্যে মৃত্যুহার রয়েছে ১.০৩ শতাংশে। ডিসেম্বরের শেষে রাজ্যে মৃত্যুহার ছিল ১.২১ শতাংশ।

রাজ্যে বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ৮০ হাজার ১৬৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ হাজার ৩৬৭ জন সক্রিয় রোগী কমেছে রাজ্যে। রাজ্যে সুস্থতার হার রয়েছে ৯৪.৯১ শতাংশ।

দৈনিক সংক্রমণের হার আরও কমল

সংক্রমণের দাপট কতটা রয়েছে সেটা ভালো করে বুঝতে গেলে দৈনিক সংক্রমণের হারের দিকে তাকাতে হয়। প্রতি ১০০ টেস্টে কত জনের রিপোর্ট পজিটিভ হচ্ছে, সেটাকেই সংক্রমণের হার বলে।

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে সংক্রমণের হার এ দিন আরও কমে গিয়েছে। ডিসেম্বরের শেষ সপ্তাহের পর এই প্রথমবার তা ৭ শতাংশের ঘরে নেমে এসেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৬৩ হাজার ১২৩টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। ফলত, এ দিন সংক্রমণের হার ছিল ৭.১২ শতাংশ।

কলকাতা ও উত্তর ২৪ পরগণার পরিস্থিতি

কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগণায় অত্যন্ত দ্রুতগতিতে সংক্রমণ কমছে। কলকাতায় গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৯১ জন, উত্তর ২৪ পরগণায় ৫৮৩ জন। এই দুই জেলায় সুস্থ হয়েছেন যথাক্রমে ৪ হাজার ৭৮৯ এবং ৩ হাজার ২৮০ জন। কলকাতায় ৭ আর উত্তর ২৪ পরগণায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কলকাতায় এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ৪১ হাজার ৬৫২, উত্তর ২৪ পরগণায় মোট আক্রান্ত ৩ লক্ষ ৯৭ হাজার ২৯১। কলকাতায় বর্তমানে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ১৯ হাজার ৮৪৫ জন এবং উত্তর ২৪ পরগণায় ১৩ হাজার ৭৬৫ জন। দুই জেলায় মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৫৪৮৬ এবং ৫১৭২ জনের।

রাজ্যের বাকি জেলার চিত্র

গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গের বাকি ২১টি জেলায় সংক্রমণ এবং আগের দিনের তুলনায় কতটা বাড়ল বা কমল, দেখে নিন।

১) আলিপুরদুয়ার

নতুন করে আক্রান্ত -৮২

সুস্থ হলেন –১৬২

২) কোচবিহার

নতুন করে আক্রান্ত –১৩৯

সুস্থ হলেন –২২৩

৩) দার্জিলিং

নতুন করে আক্রান্ত –৩২২

সুস্থ হলেন –৬২৯

৪) কালিম্পং

নতুন করে আক্রান্ত –৩৬

সুস্থ হলেন –৭৫

৫) জলপাইগুড়ি

নতুন করে আক্রান্ত –২১৮

সুস্থ হলেন –৩৯৬

৬) উত্তর দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত -১৬৭

সুস্থ হলেন -৩১০

৭) দক্ষিণ দিনাজপুর

নতুন করে আক্রান্ত -১২০

সুস্থ হলেন –২৬৩

৮) মালদহ

নতুন করে আক্রান্ত -৩০১

সুস্থ হলেন –৫৯৯

৯) মুর্শিদাবাদ

নতুন করে আক্রান্ত -১১৮

সুস্থ হলেন –৪১১

১০) নদিয়া

নতুন করে আক্রান্ত -১০৩

সুস্থ হলেন -৬৮৭

১১) বীরভূম

নতুন করে আক্রান্ত –১৭৯

সুস্থ হলেন –৮৯৩

১২) পশ্চিম বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত –৮২

সুস্থ হলেন –৭৮৬

১৩) পূর্ব বর্ধমান

নতুন করে আক্রান্ত-১৩৭

সুস্থ হলেন –৭৩১

১৪) বাঁকুড়া

নতুন করে আক্রান্ত -১৪৬

সুস্থ হলেন –৩৬৩

১৫) পুরুলিয়া

নতুন করে আক্রান্ত -৭৮

সুস্থ হলেন –২৬০

১৬) পূর্ব মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত -৭৫

সুস্থ হলেন -২১১

১৭) পশ্চিম মেদিনীপুর

নতুন করে আক্রান্ত–১৭১

সুস্থ হলেন –৪১৫

১৮) ঝাড়গ্রাম

নতুন করে আক্রান্ত -৭০

সুস্থ হলেন- ১৭৪

১৯) দক্ষিণ ২৪ পরগণা

নতুন করে আক্রান্ত –৪২৩

সুস্থ হলেন –১,২০৮

২০) হুগলি

নতুন করে আক্রান্ত –২০৯

সুস্থ হলেন -৯২৪

২১) হাওড়া

নতুন করে আক্রান্ত –১৪৪

সুস্থ হলেন –১,০৩৬

উল্লিখিত জেলাগুলির মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু রেকর্ড করেছে দক্ষিণ ২৪ পরগণা (৯), দার্জিলিং (২), বীরভূম (২), আলিপুরদুয়ার (১), কোচবিহার (১), কালিম্পং (১), জলপাইগুড়ি (১), দক্ষিণ দিনাজপুর (১), মুর্শিদাবাদ (১), নদিয়া (১), পুরুলিয়া (১) এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে (১)।

আরও পড়তে পারেন

সামান্য হলেও বাড়ল সোনার দাম, কমল রুপো! এটাই কি কেনার সময়?

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন